• শুক্রবার, ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভারতের শক্তি বাড়াতে 'বোমারু ড্রোন' দিচ্ছে আমেরিকা  

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

০৬ জুলাই ২০২০, ১৯:০৪
করোনা
ছবি : সংগৃহীত

পূর্ব লাদাখে চীনের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই আমেরিকার কাছ থেকে মিসাইল ও গাইডেড বোমা বহনে সক্ষম অত্যাধুনিক প্রিডেটর-বি ড্রোন কেনার প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত৷ চীন পাকিস্তানকে চারটি সশস্ত্র ড্রোন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরই পাল্টা এই পদক্ষেপ নিয়েছে নয়াদিল্লি। বর্তমান পরিস্থিতিতে যা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ৷

ভারত যে ধরনের প্রিডেটর-বি ড্রোন ভারত কেনার কথা ভাবছে, সেগুলো মিসাইল এবং লেজার গাইডেড বোমা দিয়ে শত্রু শিবিরের উপরে আক্রমণ হানতে সক্ষম৷ শুধু তাই নয়, নজরদারির মাধ্যমে শত্রুপক্ষের গতিবিধির উপরে লক্ষ্য রেখে নির্ভুল নিশানায় হামলা চালাতেও এর জুড়ি মেলা ভার

নজরদারির জন্য আমেরিকার থেকে গোয়েন্দা ড্রোন কেনার কথাবার্তা চালাচ্ছিল ভারতীয় নৌবাহিনী৷ কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে নজরদারির পাশাপাশি হামলা চালাতে সক্ষম ড্রোন কেনাই বেশি কার্যকরী হবে বলে মনে করা হচ্ছে৷

ইরাক, আফগানিস্তান এবং সিরিয়ায় এই ধরনের মেল আর্মড প্রিডেটর-বি ড্রোন ব্যবহার করেছে আমেরিকা৷ এই ড্রোনগুলো একসঙ্গে চারটি হেল-ফায়ার মিসাইল এবং ৫০০ পাউন্ড লেজার গাইডেড বোমা বহনে সক্ষম৷

ভারত নিজেই এই ধরনের অ্যাটাক ড্রোন তৈরি করার চেষ্টা করছে৷ কিন্তু চীন পাকিস্তানকে চারটি ড্রোন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরই দ্রুত আমেরিকার থেকে এই ধরনের ড্রোন কিনতে তৎপর হয়েছে ভারত৷ গদার বন্দরে চীন-পাকিস্তান অর্থনৈতিক করিডরের নিরাপত্তার জন্য এই ড্রোনগুলি চীন পাকিস্তানকে দিচ্ছে বলে জানা গেছে৷ এর পাশাপাশি পাকিস্তানি বিমান বাহিনীকে দেওয়ার জন্য জিজে-২ ড্রোন তৈরি করছে চীন, যা উইং লং-২ ড্রোনের মিলিটারি ভার্সন৷

উইং লং-২ ড্রোন চীনে বাণিজ্যিক ভাবেই বিক্রি করা হয়৷ এশিয়ার বিভিন্ন দেশকে চীন তা বিক্রিও করেছে৷ তার মধ্যে রয়েছে সৌদি আরব, কাজাখস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তুর্কমেনিস্তানের মতো দেশ৷ সূত্র- নিউজ ১৮।

ওডি/

সংশ্লিষ্ট ঘটনা সমূহ : চীন ভারত সংঘাত

আরও
jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড