• বুধবার, ০৩ জুন ২০২০, ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ঝড় বইছে পাপিয়া-মফিজের গ্রামে

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:১৮
পাপিয়া
উদ্ধার হওয়া বিপুল পরিমাণ টাকা ও পাপিয়া-মফিজ দম্পতি (ছবি : সংগৃহীত)

সদ্য বহিষ্কৃত যুবলীগ নেত্রী শামীমা নুর পাপিয়া ওরফে পিউ ও তার স্বামী মফিজুর রহমান চৌধুরী সুমন ওরফে মতি সুমনকে নিয়ে নরসিংদীতে সমালোচনার ঝড় উঠেছে। জেলার সাধারণ মানুষ তাদের নিয়ে মুখ খুলতে শুরু করেছে।

নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক পাপিয়া ও তার স্বামী শহর ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক মফিজুর রহমানের রাজনীতির আড়ালে অবৈধ অর্থ পাচার, জাল টাকা সরবরাহ, চাঁদাবাজি, জিম্মি করে টাকা আদায়, তদবির বাণিজ্য, মাদক ব্যবসা, প্রতারণা ও অনৈতিক কাজের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) তাদের আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

এ ঘটনায় সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘বাইজি সর্দারনি’ বেশে পাপিয়ার একটি ভিডিও ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে। ইতোমধ্যে তাদের অপরাধমূলক কাজকর্ম সামনে আসতে শুরু করেছে। মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি ও দেহ ব্যবসার পাশাপাশি জিম্মি করে টাকা আদায় করার মাধ্যমে গড়ে তুলেছেন কোটি কোটি টাকার সাম্রাজ্য। অনৈতিক কাজের ভিডিও ধারণ করে ধনী কাস্টমারদের কাছ থেকে বিপুল অর্থ হাতিয়ে নেওয়াই ছিল তাদের প্রধান পেশা।

এ দিকে, রবিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে ফার্মগেট এলাকায় পাপিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১টি বিদেশি পিস্তল, ২টি ম্যাগজিন, ২০ রাউন্ড গুলি, ৫টি পাসপোর্ট, ৩টি চেক, ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি এটিএম কার্ড, বিদেশি ডলার, ৫ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করেছে র‌্যাব।

অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িয়ে পড়া এই যুব মহিলা লীগের শামীমা নুর পাপিয়াকে বহিষ্কার করেছে কেন্দ্রীয় যুব মহিলা লীগ। দুপুরে যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আকতার ও সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক অপু উকিল স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আরও পড়ুন : পাপিয়ার বিলাসবহুল বাড়ি-গাড়ি, নামে-বেনামে বিপুল অর্থ

স্থানীয় রাজনীতিবিদ ও এলাকাবাসীরা জানান, ২০০০ সালের দিকে মফিজুর রহমানের উত্থান শুরু হয়। চাঁদাবাজি, সন্ত্রাস ও ব্ল্যাকমেইল ছিল সুমনের প্রধান পেশা। একটা সময় গিয়ে মফিজুর রাজনীতিবিদদের সঙ্গে সখ্য গড়ে তোলেন। ২০০১ সালে পৌরসভার কমিশনার মানিক মিয়াকে যাত্রা প্যান্ডেলে গিয়ে হত্যার পর আলোচনায় আসেন তিনি। এর মধ্যে পাপিয়াকে বিয়ে করেন মফিজুর। এরপর তিনি স্ত্রী পাপিয়াকে রাজনৈতিক কাজে লাগান।

২০১৪ সালের ১৩ ডিসেম্বর জেলা যুব মহিলা লীগের সম্মেলনে পাপিয়া সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

ওডি/টিএএফ

অপরাধের সূত্রপাত কিংবা ভোগান্তির কথা জানাতে সরাসরি দৈনিক অধিকারকে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড