• বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ৩০ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অর্থাভাবে ইফতির খোঁজ নিতে পারছেন না দরিদ্র বাবা

  কাজী আনোয়ারুল ইসলাম, রাজবাড়ী প্রতিনিধি

০৬ নভেম্বর ২০১৯, ১৮:৫১
আবরার ফাহাদ ও ইফতি মোশাররফ সকাল
আবরার ফাহাদ ও ইফতি মোশাররফ সকাল (ছবি : সংগৃহীত)

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলার আসামিদের একজন ইফতি মোশাররফ সকাল। তার পরিবার থাকে রাজবাড়ী শহরের ধুঞ্চি গ্রামে। তার দরিদ্র বাবা টিউশনি করে সংসার চালান। অর্থাভাবে ছেলে ইফতির খোঁজ রাখতে পারছেন না তিনি। জানেন না আবরার হত্যা মামলার সর্বশেষ অবস্থাও।

ইফতির মা রাবেয়া মোশাররফ বলেন, আমার বড় ছেলে ইফতির পড়াশোনার খরচ আমার ভাই দিতেন। পাশাপাশি ওর বাবা টিউশনি করে দুই ছেলের পড়াশোনার খরচ চালান। কোনো রকমে আমাদের সংসার চলে।

তিনি বলেন, আমাদের বাড়িও নেই, ভাসুরের (স্বামীর বড় ভাই) বাড়িতে থাকি। ছেলে পড়াশোনা শেষ করে সংসারের দায়িত্ব নেবে এই আশায় ছিলাম। আমি খুবই অসুস্থ। আমার চোখে সমস্যা, তালু কাটা (রোগ) ও অসুখে দাত পড়ে গেছে। ছেলে আমাকে আশ্বাস দিয়েছে পড়াশোনা শেষ করে প্রতিষ্ঠিত হয়ে চিকিৎসা করাবে।

ইফতির বাবা  ফকির মোশাররফ হোসেন বলেন, আমি খুবই অসুস্থ। হার্টে ব্লক জনিত সমস্যায় আছি। হাসপাতালে ভর্তি ছিলাম। হার্টে রিং পরাতে হবে কিন্তু টাকার অভাবে পারছি না।

তিনি বলেন, ইফতির মামলার ব্যাপারে কোনো খোঁজ-খবর নিতে পারছি না। ঢাকায় যেতেও অনেক টাকা লাগে। আমি টিউশনি করে সংসার চালাই। অন্য কোনো আয়ের উৎস আমার নেই। ঢাকাতে যে আত্মীয়-স্বজন আছে তারাই কিছুটা খোঁজ-খবর নেয়।

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার এক মাস পূর্ণ হয়েছে আজ (৬ নভেম্বর)। গত মাসের ৬ তারিখ আবরার হত্যার ঘটনা ঘটে।

ওডি/এমআর

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- [email protected] আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড