• মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মালদ্বীপ বধের মন্ত্র পেয়েছে বাংলাদেশ

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৬ অক্টোবর ২০২১, ১৭:২১
বাংলাদেশ ফুটবল দলের অনুশীলন
বাংলাদেশ ফুটবল দলের অনুশীলন। (ছবি: সংগৃহীত)

ভারতের বিপক্ষে ১০ জনের দল নিয়ে জয়ের সমান এক ড্র পেয়েছে বাংলাদেশ। গত সোমবার এই জয় বাংলাদেশ দলের আত্মবিশ্বাসের পালে বাড়তি হাওয়া দিচ্ছে। বৃহস্পতিবার মালদ্বীপের বিপক্ষে ম্যাচের আগে আনিসুর রহমান জিকো-মতিন মিয়াদের উদ্দীপ্ত করছে দুর্দান্ত এই ড্র। মালদ্বীপের রক্ষণ দুর্বলতা কাজে লাগিয়ে এই ম্যাচে জয় চায় অস্কার ব্রুজোনের দল।

ভারত ম্যাচে দারুণ কিছু গোল বাঁচিয়েছেন গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। গোল করে ইয়াসিন আরাফাত যদি নায়ক হন, তবে পার্শ্বনায়কদের একজন জিকো। নিজেদের ইতিবাচক ফুটবল এখন সামনের ম্যাচেও ধরে রাখতে চায় বাংলাদেশ। জিকো বললেন, ‘এখন আমরা অনেক ইতিবাচক ফুটবল খেলছি। চেষ্টা করছি পাসিং ফুটবল খেলতে। সবাই খুব আত্মবিশ্বাসী। সামনেও এভাবে খেলতে চাই। ভারত শক্তিশালী দল ছিল। তবে ১০ জন নিয়েও আমরা ভালো খেলেছি। সামনের ম্যাচেও আমরা এই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই।’ ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশ যেভাবে খেলেছে, ম্যাচ না জেতার আফসোস ঝরেছে কোচ ব্রুজোনোর কণ্ঠে। তবে জিকো খুশি একটি পয়েন্ট পেয়ে, ‘১০ জন নিয়ে ভারতের মতো দলের বিপক্ষে ড্র করাটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এই ১ পয়েন্টই অনেক বড় ব্যাপার। পরের দুটি ম্যাচের একটা জিতলেও ফাইনালে যাওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকবে। ভারত-ম্যাচটা হেরে গেলে সেটা আমাদের জন্য সমস্যা হতো।’

আক্রমণে ভালো হলেও আগের ম্যাচে রক্ষণে দুর্বলতা দেখিয়েছে মালদ্বীপ। এ সুযোগই এখন কাজে লাগাতে চায় বাংলাদেশ। র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়ে থাকা মালদ্বীপের রক্ষণ দুর্বলতার কাজে লাগানোর কথা জানিয়ে জিকো বলেন, ‘মালদ্বীপকে সুযোগ দেওয়া যাবে না। ওদের রক্ষণ কিন্তু আমাদের চেয়ে ভালো না। যদি ওদের ডিফেন্ডারদের আমরা আতঙ্কে রাখতে পারি, আর সুযোগ কাজে লাগাতে পারি তবে গোল বের করতে পারবো।’ একই কথার প্রতিধ্বনি শোনা গেছে ফরোয়ার্ড মতিনের কণ্ঠেও। তিনি বলেন, ‘মালদ্বীপের আক্রমণ ভালো, তবে রক্ষণে অতটা নয়। আমরা এটা নিয়ে কাজ করব। এই সুযোগ আমাদের কাজে লাগাতে হবে। ম্যাচটা আমরা জয়ের জন্য খেলবো।’

আরও পড়ুন : আইসিসির সেপ্টেম্বর সেরার দৌড়ে নাসুম

প্রথমে দুই ম্যাচে ইতিবাচক সাফল্য এলেও বাংলাদেশকে ভাবাচ্ছে ফরোয়ার্ডদের গোল না পাওয়া। প্রথম দুই ম্যাচের দুটি গোলই এসেছে ডিফেন্ডারদের কাছ থেকে। তবে যেভাবেই আসুক গোল পাওয়াকে ইতিবাচকভাবে দেখছেন জিকো। তিনি বললেন, ‘ডিফেন্ডারদের গোল পাওয়াটা ইতিবাচক ব্যাপার। যে কেউ গোল করলেই সেটা দলের জন্য ভালো।’

আর মতিনের আশা, ফরোয়ার্ডরা পরের ম্যাচগুলোয় গোলে ফিরবে, ‘স্ট্রাইকাররাই গোল করে। তবে আমার মনে হয়, যখন ১১ জন মাঠে আছে যে কেউ গোল করতে পারে। আমরা ফিনিশিং নিয়েও কাজ করছি। আশা করি সামনে ফরোয়ার্ডরাও গোল পাবে।’

ওডি/জেআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড