• সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

খেলোয়াড়রা ক্লাব ও দেশের বিবাদের ‘বলি’ হচ্ছে : ক্লপ

  ক্রীড়া ডেস্ক

১০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৪৪
ইয়ুর্গেন ক্লপ
ইয়ুর্গেন ক্লপ। (ছবি: সংগৃহীত)

নিয়মের মারপ্যাঁচে নিজেদের পরের ম্যাচে ব্রাজিলিয়ান ফুটবলারদের হয়তো পাবে না লিভারপুল। আন্তর্জাতিক বিরতির জন্য না ছাড়া খেলোয়াড়দের এভাবে ‘শাস্তি’ পাওয়ার বিষয়টি মোটেই পছন্দ হচ্ছে না দলটির কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপের। তার মতে, ক্লাব ও দেশের বিবাদের ‘বলি’ হচ্ছে এসব খেলোয়াড়রা।

চলমান আন্তর্জাতিক বিরতিতে লাতিন আমেরিকার খেলোয়াড়দের ছাড়েনি ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের অধিকাংশ দল।

ফিফার নিয়ম অনুযায়ী, আন্তর্জাতিক বিরতিতে যে খেলোয়াড়দের ছাড়া হয়নি, বিরতি শেষে তাদের পাঁচ দিনের জন্য নিষিদ্ধ করা যেতে পারে। সূত্রের বরাত দিয়ে গত বুধবার রয়টার্স জানায়, এই নিয়মটি কার্যকরের জন্য ফিফার দ্বারস্থ হয়েছে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সিএবএফ)।

আইনটি কার্যকর হলে পাঁচ দিনের এই নিষেধাজ্ঞার সময়ে কোনো ক্লাব বিশেষ ওই খেলোয়াড়দের দলে নিলে শাস্তির মুখে পড়বে। শুক্রবার থেকে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত চলবে নিষেধাজ্ঞার এই সময়।

করোনাভাইরাস মহামারীর কারণে যুক্তরাজ্য সরকারের লাল তালিকায় পড়েছে লাতিন আমেরিকার সব দেশ। এসব দেশ থেকে ফিরে বাধ্যতামূলক ১০ দিনের কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে সবাইকে। এতে লিগে পরের কয়েকটি ম্যাচে ওই খেলোয়াড়রা অনিশ্চিত হয়ে পড়তো বলে ক্লাবগুলো তাদের খেলোয়াড় ছাড়েনি।

মহামারীর কঠিন পরিস্থিতির এই বাস্তবতাই শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরেন ক্লপ। তিনি বলেন, এটা সত্যিই কঠিন পরিস্থিতি এবং এটা সব ক্লাব ও খেলোয়াড়দের জন্য সত্যিই কঠিন...আমাদের ভুলে যাওয়া উচিত নয় যে খেলোয়াড়রা এই ম্যাচগুলো খেলতে চেয়েছিল। ক্লাবগুলোও খেলোয়াড়দের ছাড়তে চেয়েছিল, কিন্তু তা সম্ভব ছিল না। মনে হচ্ছে আসল শাস্তি পাচ্ছে খেলোয়াড়রা, কারণ তারা খেলতে পারছে না। এটাই তাদের কাজ, এটাই তারা করতে পছন্দ করে। বিষয়টা আসলে ঠিক নয়। বিশ্ব এখনও মহামারীর মধ্যে রয়েছে।

আগামী রবিবার প্রিমিয়ার লিগে লিডস ইউনাইটেডের বিপক্ষে তিন ব্রাজিলিয়ান আলিসন, ফাবিনিয়ো ও রবের্তো ফিরমিনোকে ছাড়াই হয়তো খেলতে হবে লিভারপুলকে।

এবারের আন্তর্জাতিক বিরতিতে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে ব্রাজিলের ম্যাচটি স্থগিত হয়ে যায় খেলা শুরুর পাঁচ মিনিট পরই। প্রিমিয়ার লিগে খেলা আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড় কোয়ারেন্টিনের নিয়ম ভেঙেছে বলে অভিযোগ এনে মাঠে নেমে পড়েছিল স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা।

ক্লপের মতে, দুই বছরের মধ্যে দ্বিতীয় কোপা আমেরিকা আয়োজন করার পরিবর্তে ক্লাবগুলোর বিরতির সময়ে বাছাইয়ের ম্যাচ খেলানো যেত।

আরও পড়ুন : ওয়াদা রক্ষার্থে নেপালের লিগ খেলবেন তামিম

লিভারপুল কোচ বলেন, এমন পরিস্থিতি কেউ দেখতে চায় না। এখন আমাদের আবার ম্যাচ আছে। তারা আমাদের বলেছে, আমরা ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড়দের খেলাতে পারব না। এটা কেমন কথা, হ্যাঁ? আমরা কিছুই করিনি। আমরা তো কোপা আমেরিকা আয়োজন করিনি, (বাছাইয়ের) যে ম্যাচগুলো তারা খেলতে পারেনি, তার জন্য আমরা দায়ী নই। আমরা খেলোয়াড়দের আমন্ত্রণ জানাইনি, আমরা বলিনি তারা যখন ফিরে আসবে তখন (কোয়ারেন্টিন ইস্যুতে) কোনো ছাড় পাবে না। আমরা এসব কিছুই করিনি।

ওডি/জেআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড