• শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বিশ্বমঞ্চে সেরাটা দিতে তৈরি সোহান

  ক্রীড়া ডেস্ক

১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৩৭
নুরুল হাসান সোহান
নুরুল হাসান সোহান। (ছবি: সংগৃহীত)

ক্যারিয়ারের শুরুর দিকে উইকেট কিপিংটা ছিল তার একমাত্র সত্ত্বা। বাংলাদেশ দলে মুশফিকুর রহিমের মতো অভিজ্ঞ ব্যাটার-কিপার থাকায় তাই জাতীয় দলে ঢোকা বড় চ্যালেঞ্জ হয়েই দাঁড়ায় তার জন্য। ২০১৬ সালে বাংলাদেশ দলে তার অভিষেক হয়, তবে চলতি বছরের আগে কখনোই একাদশে নিয়মিত ছিলেন না তিনি।

একাদশে নিয়মিত হওয়ার সুযোগ আবার ওই মুশফিকের কল্যাণেই। জিম্বাবুয়ে সিরিজে তার অনুপস্থিতিতে নিজেকে মেলে ধরার সুযোগটা পান নুরুল হাসান সোহান। এরপর টি-টুয়েন্টি ফরম্যাট থেকে মুশফিক কিপিং গ্লাভস ছেড়ে দেওয়ার পরই এই দায়িত্বটা এসে পড়েছে সোহানের কাঁধে। মূল দলের অন্যতম প্রধান অস্ত্র হিসেবেই তাই এবারের টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলবেন এই ডানহাতি কিপার-ব্যাটার।

২০১৬ টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের দলেও ছিলেন সোহান। তবে খেলতে পারেননি একটি ম্যাচও। এবার সেই আক্ষেপ ফুরানোর সুযোগ তার সামনে। সোহান নিজেও তৈরি বিশ্বমঞ্চে নিজেকে মেলে ধরতে। তবে সোহানের কাছে বিশ্বকাপ আলাদা কোনো অর্থ বহন করে না। তার মতে, বাংলাদেশের হয়ে প্রতিটি ম্যাচ সমান গুরুত্বপূর্ণ তার কাছে।

দেশের জার্সি গায়ে ম্যাচ খেলা গর্বের জানিয়ে সোহান বলেছেন, ‘শুধু বিশ্বকাপ কেন, আমার কাছে বাংলাদেশের হয়ে প্রতিটি ম্যাচই গুরুত্বপূর্ণ। শুধু আমি না, যারা বাংলাদেশ দলের হয়ে খেলে সবার জন্যই এটা গুরুত্বের। আর যে কোনো দলের বিপক্ষেই বাংলাদেশের হয়ে খেলা একটা গর্বের ব্যাপার।’

টি-টুয়েন্টিতে সেরকম সাবলীল না হলেও, শেষ তিন সিরিজেই জয়। জিম্বাবুয়ে, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সেই তিন সিরিজ জয়ের আত্মবিশ্বাস বিশ্বকাপে কাজে লাগবে বলে জানালেন সোহান, ‘শেষ তিনটা সিরিজ আমরা খুব ভালো খেলেছি এবং দলের সবার বিশ্বাস, যেকোনো বড় দলের বিপক্ষে আমরা জিততে পারি। এই চিয়ার আপ ও আত্মবিশ্বাসটা আমাদের বিশ্বকাপে অনেক সাহায্য করবে।’

এরও পড়ুন : সিমিওনে চেয়েছিলেন, মেসি অ্যাটলেটিকোতে আসুক

সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ওমানে খুব কম ম্যাচই খেলেছে বাংলাদেশ। সেখানকার কন্ডিশন তাই খানিক অচেনা টাইগারদের কাছে। তবে বাংলাদেশের সঙ্গে আবহাওয়ায় মিল থাকায় কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে খুব একটা কষ্ট হবে না বলে মনে করছেন সোহান, ‘একেক জায়গার কন্ডিশন একেক রকম থাকবেই। তবে আমার মনে হয় বাংলাদেশের কন্ডিশন আর আরব আমিরাতের কন্ডিশন অনেকটাই একরকম। যেহেতু আমরা আগে যাচ্ছি (৪ অক্টোবর ওমানে পৌঁছায় বাংলাদেশ) তো এটা অনেক সাহায্য করবে কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে।’

ওডি/জেআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড