• বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বাংলাদেশ দলের কী হয়েছে জানা নেই সুজনের

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৭ এপ্রিল ২০২১, ১১:৩১
খালেদ মাহমুদ সুজন
খালেদ মাহমুদ সুজন। (ছবি: সংগৃহীত)

বাংলাদেশের নিউজিল্যান্ড সফরে যাচ্ছেতাই পারফরম্যান্সের পর অনেকগুলো প্রশ্ন উঠেছে ভক্ত-সমর্থকদের মধ্যে। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন, এই দলটির মধ্যেই শৃঙ্খলা নেই। কারো নিয়ন্ত্রন। সিনিয়র-জুনিয়ার দুই ভাগ হয়ে গেছে দল। কেউ কারো নির্দেশনা মানে না।

এতসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে আজ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে নানা প্রশ্নের জবাব দিতে হয়েছে বিসিবি পরিচালক এবং শ্রীলঙ্কা সফরে বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনকে। সেখানে উঠলো একই প্রশ্ন। তার জবাবে সুজন জানিয়ে দিলেন, বাংলাদেশ দলের কী হয়েছে তা তার জানা নেই।

খালেদ মাহমুদ সুজন বলেন, ‘আপনি যেমন বাংলাদেশে দাঁড়িয়ে ঘোষণা করছেন, আমিও তো আপনার মতো সে রকম দূর থেকেই দেখেছি। তো টিম বাংলাদেশের কী হলো তা আমি জানি না। যেহেতু এবার আমি যাচ্ছি (শ্রীলঙ্কায়), আমি দেখবো কি হলো। চেষ্টা করবো টিম বাংলাদেশের কোন প্রবলেম থাকলে সেটা যেন ক্লিয়ার হয়। আমরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে যেন লড়তে পারি, ভালো খেলে জিততে পারি সেটাই আমার টার্গেট থাকবে। আমার তো কাজই সেটা করা।’

আগেও ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেছেন এবং দারুণ দারুণ সাফল্য এনে দিয়েছেন। এখন আবার দলের ম্যানেজারের দায়িত্বে এসেছেন। অনুভূতি কেমন? জানতে চাইলে সুজন বলেন, ‘ফিল তো কিছু নাই, দায়িত্ব আবার একটা। এর আগে জালাল ভাই গিয়েছিলেন বোর্ড হয়ত বা ঘুরে ফিরে সবাইকে দিচ্ছে। বোর্ডের যেহেতু আস্থার জায়গা আছে আমাদের ওপরে। সেটা জালাল ভাই যাক আর আমি যাই বা আকরাম ভাই যাক। এর আগের সিরিজে আমাকে বলেছে যদিও আমি মানা করেছিলাম। তারপরেও বোর্ড যখন বলে আমার করার কিছু থাকে না। অবশ্যই এক্সসাইটেড, আবারো বাংলাদেশ টিমের সাথে যাবো। খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি সিরিজ সামনে। আর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ আমার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ মনে হয় আমার কাছে। যদিও আমরা টেস্টে ম্যাচে পিছিয়ে আছি। সুতরাং যখনি টেস্ট ম্যাচ আসে মনে হয় কিভাবে আমরা ভালো করতে পারি, জিততে পারি। যেহেতু ম্যানেজমেন্টে আমি তো ক্রিকেটিং কোন কাজ থাকে না, আমি খেলবও না। কোনভাবে যদি সাপোর্ট করা যায় দলকে সেভাবে চেষ্টা করব সাপোর্ট করার।’

নিজেদের শক্তি-সামর্থ্যের ওপর আস্থা আছে সুজনের। সেটাই জানালেন, ‘অবশ্যই আমরা একটা ভালো দল। যদিও বা আমরা দেশের মাটিতে দুটো সিরিজ পারিনি, আফগানিস্তান বা ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে হেরেছি। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে জেতা ম্যাচটা আমরা কিন্তু হেরেছি। হয়ত আমাদের ছোটখাট ভুল ত্রুটি ছিল। এগুলা কাটিয়ে উঠে চাইবো যে শ্রীলঙ্কায় ভালো কিছু করতে। কারণ আমি মনে করি বাংলাদেশ যখন ভালো খেলে তখন কিন্তু টেস্ট ভালো খেলি। এই দলটার এবিলিট আছে ম্যাচ জেতার। সুতরাং সেই হিসেব করেই আমাদের শ্রীলঙ্কা যেতে হবে, সেই চিন্তা নিয়েই যেতে হবে। শ্রীলঙ্কায় আমরা জানি যে পাল্লেকেলেতে দুটি টেস্ট ম্যাচ হবে। সেখানে ব্যাট করার জন্য উইকেটটা ভালো, স্পোর্টিং উইকেট। তাই আমি মনে করে আমরা ভালো টেস্ট ম্যাচ খেলব।’

করোনার এই পরিস্থিতিতে সিরিজ হবে তো? সুজন বলেন, ‘সো ফার তো আমি জানি অন (হবে)। বোর্ড টু বোর্ডের কথা আমরা জানি না। তারাই বলতে পারবে ভালো তবে আমি জানি অন (সিরিজ হবে)।’

কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো কিংবা বিদেশী অন্য কোচদের ভূমিকা সম্পর্কে জানতে চাইলে সুজন বলেন, ‘আমি তো পার্সোনালি জানি ভালো কোচ। এখন কাছ থেকে আমি যখন দেখব তখন আরো ভালো বোঝা যাবে। অবশ্যই আমরা তো চিন্তা-ভাবনা করেই রাসেলকে নিয়েছিলাম। সে তো গুড কোচ, অবশ্যই। পারফরম্যান্স তো কোচের ওপর ডিপেন্ড করবে না। একটা সম্পূরক ব্যাপার সবাইকে করতে হবে। খেলবে প্লেয়াররা কোচরা না। কোচ তো হাজার প্লান দিতে পারে। আপনি যদি মাঠে এক্সিকিউট করতে না পারেন তাহলে ঐ প্ল্যান দিয়ে লাভটা কি? সুতরাং কোচ প্লানিং দিতে পারে ট্রেনিং দিতে পারে প্লেয়ারদের ভালো খেলতে হবে। আবার প্লেয়াররা ভালো খেলছে কিন্তু প্লানিং ভালো হচ্ছে না তাহলে আবার হবে না।

আমার কাছে মনে হয় এখানে কো অর্ডনেশনেরে ব্যাপারটা খুব ইমপরট্যান্ট। জানি না কেন এরকম হচ্ছে, বারবার কেন হচ্ছে। আমরা ভালো করেছি ওয়ানডেতে আবার করিনি। সুতরাং কাছাকাছি না মিশলে কমেন্ট করাটা আসলে ডিফিকাল্ট।’

ওডি/জেআই

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড