• মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৭  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

দলে সুযোগ না পেয়ে অনুর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটারের আত্মহত্যা

  ক্রীড়া ডেস্ক

১৬ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৪৫
যুব ক্রিকেটার সজিব হোসেন
যুব ক্রিকেটার সজিব হোসেন। (ছবি : সংগৃহীত)

বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ অনুর্ধ্ব-১৯ টুর্নামেন্টে খেলার সুযোগ না পেয়ে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন সজিব হোসেন নামের এক যুব ক্রিকেটার। তিনি জাতীয় অনূর্ধ্ব ১৫, ১৭ ও ১৯ দলের খেলোয়াড় ছিলেন।

রবিবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে খবর পেয়ে রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সাম্প্রতিক সময়ে সজীব বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপে খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন। অংশগ্রহণের জন্য সব পরীক্ষাও দিয়েছিলেন তিনি। গত ১৩ নভেম্বর বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপে উত্তীর্ণ খেলোয়াড়দের তালিকায় প্রকাশ করা হয়। ওই তালিকায় তার নাম না থাকায় হতাশ হয়ে পড়েন।

এরপর শনিবার (১৪ নভেম্বর) দিনগত রাতে এ ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করছে পুলিশ। আইনি প্রক্রিয়া শেষে রবিবার বিকালে পরিবারের ইচ্ছায় তার মরদেহ হস্তান্তর করে পুলিশ। পরে সন্ধ্যায় নিজ গ্রামেই তার মরদেহ দাফন করা হয়।

যুব ক্রিকেটার সজিব হোসেনের বাড়ি রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকা গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের মোরশেদ আলীর ছেলে। সজিব এর আগে অনূর্ধ্ব-১৯ জাতীয় দলের খেলোয়াড় হয়ে শ্রীলঙ্কার মাটিতে বেশ কয়েকটি ম্যাচ খেলেছেন বলে জানিয়েছে তার পরিবার। ভারতের বিপক্ষে ব্যাট করে সেই ম্যাচে সর্বোচ্চ ৯৫ রান সংগ্রহ করেছিলেন। ওই ম্যাচে দলের মধ্যে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ছিলেন তিনি।

সজিব হোসেনসহ ৪৬ জন ক্রিকেটারকে নিয়ে বিকেএসপিতে ক্যাম্পেইন শুরু হয়েছিল এ বছরের প্রথম দিকে। পরে সেখান থেকে বাছাই করে ২৮ জনের একটি দল ঠিক করে প্রশিক্ষণের জন্য মনোনীত করা হয়। ২৮ জনের মধ্য থেকে বাছাই করে ১৫ জনের একটি চূড়ান্ত দল গঠনের কথা জানিয়েছিলেন টিম ম্যানেজার সাজ্জাদ হোসেন। কিন্তু ভালো পারম্যান্স সত্বেও বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে খেলার জন্য সজিব হোসেনকে রাখা হয়নি বলে জানিয়েছে তার পরিবার।

সজিব হোসেনের চাচাতো ভাই মোফাজ্জল হোসেন সাংবাদিকদের জানান, অনূর্ধ্ব-১৭ দলের হয়ে এর আগে সজিব শ্রীলঙ্কা, ভারতসহ বিভিন্ন দেশে জাতীয় পর্যায়ে ভালো খেলে কৃতিত্বের স্বাক্ষর রেখেছেন। ভালো পারফরম্যান্স থাকা সত্বেও রাজনৈতিক বিবেচনায় সজিবসহ অনেককেই আসন্ন বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে সুযোগ না দিতে প্রশিক্ষণের বাইরে রাখা হয়। এ কারণে মানসিকভাবে অনেকটা ভেঙে পড়েছিলেন সজিব। কিন্তু বাড়ির কাউকে সেটা বুঝতে না দিয়ে রাতে নিজের শয়নকক্ষে গলায় রশি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি। পরদিন সকালে সজিবের কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরের জানালা দিয়ে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পেয়ে থানায় খবর দেওয়া হয়।

আরও পড়ুন : ক্যানসার আক্রান্ত হয়েছেন বাদল রায়

রাজশাহীর দুর্গাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাসমত আলী জানান, খবর পেয়ে শনিবার দুপুরে ঝালুকা গ্রামে গিয়ে ক্রিকেটার সজিব হোসেনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পারিবারের ইচ্ছায় ময়না তদন্ত ছাড়াই বিকালে মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়। সন্ধ্যায় তার মরদেহ দাফন করা হয়ে গেছে। তবে এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা করা হয়েছে বলেও জানান দুর্গাপুর থানার এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এদিকে, খবর পেয়ে রাজশাহী জেলা পুলিশের পুঠিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম সাহিদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: +8801703790747, +8801721978664, 02-9110584 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড