• মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৮ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘ক্রিকেটাররা একবার বোর্ডকে জানাতেই পারত’

  ক্রীড়া ডেস্ক

২১ অক্টোবর ২০১৯, ২০:১৮
যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল
যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল (ছবি : সংগৃহীত)

ক্রিকেটারদের সুবিধা দেখতে দাবি আদায়ের জন্য ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটাররা। আজ সোমবার (২১ অক্টোবর) বিসিবির একাডেমি প্রাঙ্গণে সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বে প্রায় শতাধিক ক্রিকেটারের উপস্থিতিতে ১১ দফা দাবি নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট ডাকা হয়।

তবে পুরো এই বিষয়টি ক্রিকেটাররা আগে বোর্ডকে জানাতে পারত বলে মনে করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। এভাবে মিডিয়ার সামনে দাবি নিয়ে সম্মেলন করায় দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হয়েছে বলে অভিমত তার। ক্রিকেটারদের দাবি-দাওয়া নিয়ে দ্রুতই আলাপ-আলোচনা হবে এবং এর মাধ্যমে সমাধান হবে জানান তিনি। 

সাকিব-তামিমদের সংবাদ সম্মেলন শেষে দেশের একটি গণমাধ্যমকে প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ‘এসব কিছুর আগে (আন্দোলন বা ধর্মঘট) ক্রিকেটাররা বিষয়টি বিসিবিকে জানাতে পারত। এমনকি আমাকেও জানাতে পারত। প্রথমেই হার্ড লাইনে যাওয়াটা তাদের উচিত হয়নি। এতে ক্রিকেট দুনিয়ায় দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে আমি ক্রিকেটারদের দাবি-দাওয়ার প্রতি সম্পূর্ণ সহানুভূতিশীল। বিসিবির সঙ্গে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমেই বিষয়টি সমাধান করা যাবে বলে আমি মনে করি।’ 

উল্লেখ্য, বিষয়টি নিয়ে দ্রুতই সমাধানে আসবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এমন আশ্বাস দিয়েছেন বার্ডের সিইও নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। তিনি বলেন, ‘হ্যাঁ, আমরা জানতে পেরেছি। মিডিয়ার মাধ্যমেই আমরা জানতে পেরেছি। ফরমালি কোনো যোগাযোগ হয়নি আর অবশ্যই খেলোয়াড়েরা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, তাদের বিষয়গুলো বোর্ডকে আমরা জানাব এবং এ ব্যাপারে পরবর্তীকালে বোর্ড সিদ্ধান্ত নেবে।’

ক্রিকেটারদের ধর্মঘটে শঙ্কায় পড়েছে আগামী মাসে ভারত সফর। এছাড়া দাবি মানা না হলে চলতি জাতীয় ক্রিকেট লিগেও খেলা চালিয়ে যাবে না কেউই। 

ওডি/এএপি 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড