• বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ১ কার্তিক ১৪২৬  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বিপিএলে কড়া নিয়মের বলি হচ্ছেন দেশি কোচরা

  ক্রীড়া ডেস্ক

১১ অক্টোবর ২০১৯, ১২:১৬
বিসিবির বোর্ড সভা
বিপিএল নিয়ে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত হয় বিসিবিতে (ছবি : সংগৃহীত)

কোচ সালাহউদ্দিনের হাত ধরে দুইবার শিরোপা জিতেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানস। অথচ এবার দেশীয় কোচ ছাড়াই মাঠে গড়াবে বিপিএল। বিসিবি জানিয়েছে, এবারের আসরে দেশীয় কোচরা কোনো ফ্র্যাঞ্চাইজির হেড কোচ হতে পারবেন না, তারা কেবল সহকারীর ভূমিকা পালন করবেন। 

বিসিবির বোর্ড সভা শেষে এমনটাই জানান পরিচালক মাহবুব আনাম। তিনি বলেন, ‘প্রতিটি দলের জন্য বিদেশি হেড কোচ, ফিজিও, ট্রেনার নিয়োগ দেবে বিসিবি। দেশীয় কোচরা হেড কোচ হতে পারবেন না। তারা থাকবেন সহকারী হিসেবে। প্রতিটি দলে একজন করে টিম ডিরেক্টর থাকবেন। বিসিবির পরিচালকরাই হবেন টিম ডিরেক্টর। এবার বিপিএল হতে পারে দুটি ভেন্যুতে’।

তবে দেশীয় ক্রিকেটারদের বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে। মাহবুব আনাম বলেছেন, ‘টুর্নামেন্টটা করার প্রধান কারণ- বাংলাদেশের খেলোয়াড় বের করে আনা। তবে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা যদি পজিশন মতো ব্যাটিং করতে না পারে, বোলিং করতে না পারে, তবে এই টুর্নামেন্টের স্বার্থকতা কমে যাবে।’

প্রতিটি দলের একাদশে একজন লেগ স্পিনার থাকা বাধ্যতামূলক করে দিচ্ছে বিসিবি। মাহবুব আনাম বলেছেন, ‘প্রতিটি দলে একজন লেগস্পিনার খেলাতেই হবে এবং তাকে বাধ্যতামূলকভাবে চার ওভার বোলিং করাতেই হবে।’

এছাড়া বিদেশি কোটায় আসা পেস বোলারদের গতিকে প্রাধান্য দিচ্ছে বিসিবি। প্রতিটি দলে ১৪০ কিলোমিটার বেগে বোলিং করা একজন পেসার থাকা বাধ্যতামূলক। এ দিকে, দলের স্পন্সরশিপের জন্য কথা বলে গেছে ছয়টি প্রতিষ্ঠান। জানা গেছে প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- ডেল্টা স্পোর্টস লিমিটেড (আখতার গ্রুপ), লেভেল থ্রি ক্যারিয়ার লিমিটেড, টাইগার আইটি বাংলাদেশ লিমিটেড, সাগর ট্রেড ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড, মাইন্ড ট্রি ও জিনস ম্যানুফেকচারিং কোম্পানি লিমিটেড। তবে দলের স্পন্সর হতে আগ্রহী প্রতিষ্ঠান আরও রয়েছে। আগামী সপ্তাহে এসব  প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত জানাবে বিসিবি। 

ওডি/এনএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড