• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

খেলা দেখতে না দেয়ায় নারী ভক্তের আত্মহত্যা, কাঁদছে ফুটবল বিশ্ব

  ক্রীড়া ডেস্ক

১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৮:০৩
ফুটবল ভক্তের আত্মহত্যা
স্টেডিয়ামের বাইরে ইরানের নারী ফুটবল ভক্তরা (ছবি: সংগৃহীত)

মুসলিম রাষ্ট্র ইরানে ফুটবল অন্যতম জনপ্রিয় খেলা। দেশটি ফিফার সর্বোচ্চ আসর বিশ্বকাপেও অংশ নিয়েছে। তবে সম্প্রতি ইরানে ঘটে গেছে লজ্জাজনক এক ঘটনা। খেলা দেখতে না দেয়ায় আত্মহত্যা করেছে দেশটির এক নারী ফুটবল ভক্ত।

ইরানে স্টেডিয়ামে গিয়ে ফুটবল খেলা দেখায় রাষ্ট্রীয় কোনো নিষেধাজ্ঞা নেই। তবে মুসলিম প্রধান দেশটিতে ধর্মীয় কারণে নারীদের স্টেডিয়ামে গিয়ে ফুটবল খেলা দেখতে দেয়া হয় না। এ নিয়ে বহুদিন ধরেই প্রতিবাদ করে আসছে দেশটির সাধারণ মানুষ। তবে তারপরও পরিবর্তন হয়নি অবস্থার।

গত ১২ মার্চ সংযুক্ত আরব আমিরাতের আল আইন ক্লাবের সঙ্গে ম্যাচ ছিল এস্তেঘলালের। মহাদেশীয় পর্যায়ের এ খেলা দেখার জন্য এস্তেঘলালের ভক্ত ২৯ বছর বয়সী সারা আজাদি স্টেডিয়ামে ঢোকার চেষ্টা করেছিলেন। তবে এ নারীকে স্টেডিয়ামে ঢুকতে দেয়নি নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশরা। এমনকি তাকে ধরে নিয়ে জেলে পাঠায় তারা। স্টেডিয়ামে ঢোকা নিয়ে কোনো আইন না থাকায় হিজাব ঠিকভাবে পড়া হয়নি এমন অভিযোগে তাকে জেলে নেয়া হয়।

তবে দীর্ঘ আইনি লড়াইয়ের পর ১ সেপ্টেম্বর জামিনে বের হন ফুটবল ভক্ত সারা। এরপর নিজের মোবাইল ফেরত আনতে গিয়ে তিনি জানতে পারেন তার শাস্তি এখনো শেষ হয়নি। আরও ছয় মাসের জন্য জেলে যেতে হবে তাকে। আর তাতে রাগে, ক্ষোভে কোর্ট হাউসের সামনে গায়ে তেল ঢেলে গায়ে আগুন লাগিয়ে দেন সারা।

আগুন লাগার পর দ্রুতই হাসপাতালে নেয়া হয় সারাকে। তবে শরীরের ৯০ শতাংশ অংশ পুড়ে যাওয়ায় ডাক্তাররা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেও বাঁচাতে পারেনি তাকে। মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) না ফেরার দেশে পাড়ি জমান তিনি।

সারার মৃত্যুতে শোকে স্তব্ধ ফুটবল বিশ্ব। তিনি তেহরানের এস্তেঘলাল ফুটবল ক্লাবের ভক্ত ছিলেন। ক্লাবটির নীল জার্সির সঙ্গে মিল রেখে ফুটবলপ্রেমীরা সারাকে ‘ব্লু গার্ল’ উপাধিতে ভূষিত করে।

ওডি/এমএমএ 
 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড