• বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন

কলকাতার কোচ হচ্ছেন রিকি পন্টিং!

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৯ আগস্ট ২০১৯, ১১:৪১
রিকি পন্টিং
রিকি পন্টিং (ছবি : সংগৃহীত)

বেশ কয়েক মৌসুমই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারছে না কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর)। ২০১৬ সাল থেকে জ্যাক ক্যালিস-সাইমন ক্যাটিচের কোচিংয়ে প্রথম তিন বছর আইপিএলের প্লে-অফে কলকাতা খেললেও ২০১৯ সালে পাঁচ নম্বর থেকে আইপিএল শেষ করে শাহরুখের দল। ভাগ্য পরিবর্তনের লক্ষ্যে হেড কোচ জ্যাক ক্যালিসের পাশাপাশি ব্যাটিং কোচ সাইমন ক্যাটিচকেও সরিয়ে দিয়েছে দুবারের চ্যাম্পিয়ন দলটি। নতুন কোচের খোঁজে মরিয়া কেকেআর বিশ্বকাপজয়ী অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিংকে হেড কোচ হিসেবে নিতে চাচ্ছে!

অবশ্য রিকি পন্টিংকে পাওয়াটা অতটাও সহজ হবে না কলকাতার। গত বছর পন্টিং ছিলেন দিল্লি ক্যাপিটালসের প্রধান কোচ। উপদেষ্টা হিসেবে সেই দলে ছিলেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি। নাইট কর্তারা যদি পন্টিংকে নিতে চান, দিল্লি থেকে ছিনিয়ে আনতে হবে।

তবে শাহরুখের দলের শীর্ষমহল থেকে জোরালো ইঙ্গিত পাওয়া শোনা যাচ্ছে, কলকাতা পন্টিংকে পেতে সবকিছুই করতে রাজি; দমে যাচ্ছেন না তারা। গত বছর আইপিএলে ভালো করতে না পারায় মরিয়া নাইট কর্তারা সর্বাত্মকভাবে পন্টিংয়ের জন্য ঝাঁপাতে প্রস্তুত। 

শীর্ষমহল থেকে আরও খবর এসেছে-  পন্টিংই এখন কোচ হিসেবে নাইট কর্তাদের চোখে এক নম্বর পছন্দ। তার সঙ্গে কথাবার্তাও শুরু হয়েছে বলে খবর পাওয়া গেছে। তাদের দাবি সাবেক এই অজি তারকার সঙ্গে প্রাথমিক কথাবার্তার ফল খুব নেতিবাচক নয়।

এর আগে,  ইংল্যান্ডের বিশ্বকাপজয়ী কোচ ট্রেভর বেলিসকে কোচ হিসেবে নিতে চেয়েছিল কলকাতা। কিন্তু সানরাইজার্স হায়দরাবাদের কোচ হলেন ট্রেভর। কেকেআরের চোখ এখন দিল্লির কোচের দিকে- দেখার বিষয় পন্টিং দিল্লির কর্তাদের সঙ্গে আলোচনায় বসলে পরিস্থিতি কি দাঁড়ায়; কেননা গত বছর তরুণ দল নিয়ে ভালো করার পরে দিল্লি ক্যাপিটালসও কি সহজে তাকে ছেড়ে দিতে চাইবে? সূত্র : আনন্দবাজার 

ওডি/এএপি  

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড