• শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৫ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩৫ °সে
  • বেটা ভার্সন

পেনাল্টি ব্যর্থতার পরও বার্সার জয়ের নায়ক মেসি

লিওনেল মেসি
রিয়াল ভায়াদোলিদ গোলরক্ষক জর্দি ম্যাসিপ রুখে দেন বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসির দ্বিতীয় পেনাল্টিটি (ছবি : বার্সেলোনা টুইটার)

দ্বিতীয়ার্ধের মাঝামাঝি বদলি হিসেবে নামা ফিলিপ কৌতিনহো ম্যাচের ৮৪তম মিনিটে আদায় করে নেন পেনাল্টি। ব্যবধান বাড়িয়ে জয় নিশ্চিত করতে ম্যাচে দ্বিতীয়বারের মতো স্পট কিক নিতে এগিয়ে যান বার্সেলোনার প্রাণ ভোমরা লিওনেল মেসি। কিন্তু আগের ভুলের পুনরাবৃত্তি করেননি একসময় বার্সার যুব দলের হয়ে খেলা গোলরক্ষক জর্দি ম্যাসিপ। এবারে পড়ে ফেলেন মেসির শারীরিক ভাষা। সঠিক দিকে লাফিয়ে রুখে দেন মেসির বাঁ পায়ের জোরালো শট। ফিরতি বলে হেড করে আবারও জালে জড়ানোর চেষ্টা করেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড। কিন্তু এবারও ম্যাসিপ নামের দেয়ালে বাধা পান মেসি। ফলে ঘরের মাঠ ন্যু ক্যাম্পে দুর্বল প্রতিপক্ষ রিয়াল ভায়াদোলিদের বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয়েছে কাতালানদের।

পেনাল্টি ব্যর্থতার পরও মেসিই বার্সেলোনার জয়ের নায়ক। কেননা বিরতির মিনিট দুয়েক আগে সফল স্পট কিক নিয়েছিলেন তিনি। যদিও ওই পেনাল্টির সিদ্ধান্তের বিপক্ষে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন অতিথি ভায়াদোলিদের খেলোয়াড়রা। কারণ ডি-বক্সের মধ্যে আলতো ছোঁয়াতেই লুটিয়ে পড়েছিলেন বার্সার ডিফেন্ডার জেরার্দ পিকে। তবে ভায়াদোলিদের প্রতিবাদ সত্ত্বেও ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারির (ভিএআর) সাহায্য নিতে রাজি হননি মাঠের রেফারি।

শনিবার রাতে স্প্যানিশ লা লিগার ম্যাচে বার্সেলোনার জয়টা আসতে পারত তিন কিংবা চার গোলের ব্যবধানে। নিষ্প্রভ প্রথমার্ধের পর বার্সা তারকারা দ্বিতীয়ার্ধে নিজেদের জাত চেনালেও গোল আদায় করে নিতে পারেননি। বলা যায়, পাল্লা দিয়ে গোল মিসের মহড়া দিয়েছেন মেসি, কেভিন প্রিন্স বোয়াটেং ও লুইস সুয়ারেজরা!

তবে এই জয়ে টানা তিন ড্রয়ের পর জয়ের ধারায় ফিরেছে বার্সেলোনা। লা লিগায় ভ্যালেন্সিয়া ও অ্যাথলেটিকো বিলবাওয়ের সঙ্গে পয়েন্ট ভাগাভাগি করার মাঝে কোপা দেল রের সেমিফাইনালে রিয়ালের সঙ্গে ড্র করেছিল আর্নেস্তো ভালভার্দের শিষ্যরা। ২৪ ম্যাচে ৫৪ পয়েন্ট নিয়ে লিগের পয়েন্ট তালিকার শীর্ষস্থানও ধরে রেখেছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা।

ভায়াদোলিদের বিপক্ষে জয়সূচক গোলটি চলতি লা লিগায় মেসির ২২তম। সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে এবারের মৌসুমে তার গোলসংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩০। ফলে টানা ১১ মৌসুমে ৩০ বা তার বেশি গোল করার রেকর্ড গড়েছেন ৩১ বছর বয়সী তারকা।

রাতের আগের ম্যাচে রায়ো ভায়োকানোকে একই ব্যবধানে হারিয়ে লা লিগার পয়েন্ট তালিকার দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ। ২৪ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ৪৭ পয়েন্ট। এক ম্যাচ কম খেলে ৪৫ পয়েন্ট নিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ নেমে গেছে তিন নম্বরে।

এসএইচ

সংশ্লিষ্ট ঘটনা সমূহ : লা লিগা

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড