কিউইদের বিপক্ষে ব্যর্থতার ষোলোকলা পূর্ণ করল শ্রীলঙ্কা

প্রকাশ : ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১৭:২৯

 অধিকার ডেস্ক   

স্বাগতিক নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজ হারের পর শ্রীলঙ্কার ভরসা ছিল এক ম্যাচের টি-টুয়েন্টি সিরিজ। কিন্তু শেষরক্ষা করতে পারল না লাসিথ মালিঙ্গা বাহিনী। কিউইদের বিপক্ষে ৩৫ রানে হেরে ব্যর্থতার ষোলোকলা পূর্ণ করে তিনটি সিরিজ হারের লজ্জা নিয়ে দেশে ফিরছে সফরকারীরা।

শুক্রবার অকল্যান্ডে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৯ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়েছিল নিউজিল্যান্ড। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ভালো শুরুর পরও শেষ দিকের ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় শ্রীলঙ্কার ইনিংস থামে ১৪৪ রানে। ১৯ বল বাকি থাকতেই অলআউট হয় তারা।

এদিন লঙ্কান অধিনায়ক মালিঙ্গা স্বাগতিকদের ব্যাটিংয়ের আহ্বান জানান। শুরু থেকেই কিউই ব্যাটসম্যানদের ওপর চেপে বসেন লঙ্কান বোলাররা। মালিঙ্গা ও রাজিথার আঘাতে ২৭ রানের মধ্যে ৪ উইকেট হারায় নিউজিল্যান্ড। ১০ ওভার শেষে ৫ উইকেটে ৫৫ রান তুলে ধুঁকছিল তারা। কিন্তু এরপর অবিশ্বাস্যভাবে ঘুরে দাঁড়ায় দলটি।

অভিজ্ঞ রস টেইলরের (৩৭ বলে ৩৩ রান) সময়োপযোগী ব্যাটিংয়ের পাশপাশি ডগ ব্রেসওয়েল (২৬ বলে ৪৪), স্কট কাগেলেইন (১৫ বলে অপরাজিত ৩৫ রান) ও টিম সাউদি (৮ বলে অপরাজিত ১৩ রান) খেলেন বিধ্বংসী ইনিংস। রাজিথা ৩ উইকেট নিলেও ছিলেন খরুচে। দেন ৪৪ রান। মালিঙ্গা ২৪ রানে পান ২ উইকেট।

জবাব দিতে নেমে শুরুতেই ওপেনার সাদিরা সামারাবিক্রমার উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। এরপর অবশ্য ভালোভাবেই ম্যাচে ফেরে দলটি।। এক পর্যায়ে ৯.৪ ওভারে ৩ উইকেটে ৯৪ রান তুলে ফেলেছিল তারা। কিন্তু চতুর্থ উইকেট পড়ার পর শুরু হয় শ্রীলঙ্কার ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার মিছিল।

ওয়ানডে সিরিজে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা থিসারা পেরেরা পঞ্চম ব্যাটার হিসেবে আউট হলে শেষ হয়ে যায় লঙ্কানদের সব স্বপ্ন। তাদের শেষ ৬ উইকেটের পতন ঘটে মাত্র ২৬ রানে। দলটির শেষ পাঁচ ব্যাটসম্যান দুই অঙ্কের রানের কোটা ছুঁতে পারেননি।

থিসারা দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৪ বলে ৪৩ রান করেন। তার উইকেটসহ তিন ব্যাটসম্যানকে আউট করেন লোকি ফার্গুসন। খরচ করেন মাত্র ২১ রান। ইশ সোধিও ৩ উইকেট শিকার করেন ৩০ রানের বিনিময়ে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর :

নিউজিল্যান্ড : ১৭৯/৭ (২০ ওভারে) (গাপটিল ১, মুনরো ১৬, সেইফার্ট ২, নিকোলস ৪, টেইলর ৩৩, স্যান্টনার ১৩, ব্রেসওয়েল ৪৪, কাগেলেইন ৩৫*, সাউদি ১৩*; মালিঙ্গা ২/২৪, রাজিথা ৩/৪৪, পেরেরা ১/৪২, কুমারা ০/২৪, সান্দাকান ১/৪১) 

শ্রীলঙ্কা : ১৪৪/১০ (১৬.৫ ওভারে) (ডিকভেলা ১৮, সামারাবিক্রমা ০, কুসল পেরেরা ২৩, কুসল মেন্ডিস ১৭,  থিসারা পেরেরা ৪৩, ধনঞ্জয়া ১০, শানাকা ৭, রাজিথা ৫, মালিঙ্গা ৬, কুমারা ৪, সান্দাকান ১*; ফার্গুসন ৩/২১, সাউদি ১/২১, কাগেলেইন ১/২৬, ব্রেসওয়েল ১/১৯, স্যান্টনার ১/২৭, সোধি ৩/৩০)।