• সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ১৩ আষাঢ় ১৪২৯  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ওয়াইড ও নো বলেও ডিআরএসের ব্যবহার চান ভেট্টরি

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৩ মে ২০২২, ১৫:২৩
ড্যানিয়েল ভেট্টরি (ছবি: সংগৃহীত)

দিন কয়েক আগে দিল্লি ক্যাপিটালস ও রাজস্থান রয়্যালসের মধ্যকার ম্যাচে বাউন্সার নো বল নিয়ে ব্যাপকভাবে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। সেই নো বলের পর ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) এবার নতুন বিতর্ক বেধেছে ওয়াইড নিয়ে। বিতর্ক সামাল দিতে ওয়াইড এবং বাউন্সার নো বলকে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমের (ডিআরএস) আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন ড্যানিয়েল ভেটরি। সোমবার (২ মে) কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ১৯তম ওভারে তিনটি ওয়াইড দেন রাজস্থান রয়্যালসের পেসার প্রসিধ কৃষ্ণা। যেখানে ডানহাতি এই পেসার বল ছাড়ার আগেই শাফল করেছিলেন ব্যাটার রিংকু সিং। তবুও বলটি ওয়াইড ডাকেন আম্পায়ার নিতিন পণ্ডিত।

আম্পায়ারের এমন সিদ্ধান্তে হতাশা প্রকাশ করে রিভিউ নেন রাজস্থানের অধিনায়ক সাঞ্জু স্যামসন। ক্রিকেটে ওয়াইডের জন্য রিভিউ নেই, সে কারণে স্যামসনের রিভিউয়ে দেখা হয় বল ব্যাটারের ব্যাটে লেগেছিল কি না। এর আগে উচ্চতার নো বল বিতর্কে রভম্যান পাওয়েল এবং কুলদীপ যাদবকে মাঠ ছেড়ে আসতে বলেছিলেন দিল্লির অধিনায়ক ঋশভ পান্ত।

আম্পায়ারদের এমন ভুল এড়াতে এবং ক্রিকেটারদের ওপর সিদ্ধান্তের ভার দিতেই ওয়াইড এবং নো বলকে ডিআরএসের আওতায় আনতে বলছেন নিউজিল্যান্ডের স্পিন গ্রেট ভেট্টরি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার মনে হয় না, স্যামসনের ওই রিভিউ নেওয়ায় আউটের কোনো ভাবনা ছিল। অবশ্যই (ওয়াইডের ক্ষেত্রে ক্রিকেটারদের রিভিউ নিতে দেওয়া উচিত)…এই ধরনের গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তগুলোয় ক্রিকেটারদেরই সিদ্ধান্তের ভার নিতে দেওয়া উচিত।’

তিনি বলেন, ‘আজকে যদিও ওয়াইড এতটা গুরুত্বপূর্ণ হয়নি, কলকাতা এমনিতেই জিতে যাচ্ছিল। কিন্তু আমরা অনেকবারই দেখেছি, এই ধরনের সিদ্ধান্ত বোলারের বিপক্ষে যায় এবং আম্পায়ার ভুল করেন। এজন্যই সেই ভুল ধরিয়ে দেওয়ার কোনো পথ ক্রিকেটারদের সামনে থাকা উচিত। ডিআরএস তো এজন্যই চালু করা হয়েছে, ভুল শোধরানোর জন্য। আমি এটা দেখতে চাই। ক্রিকেটাররাই এটা ভালোভাবে বিচার করতে পারবে, কারণ তারা বেশিরভাগ সময়ই ঠিকটা বুঝতে পারে।’

ওডি/কেএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড