• বৃহস্পতিবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ৩ ভাদ্র ১৪২৯  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

হুঁশ ফিরেছে অস্কারের, ফের খেলতে চান ইউরোপে

  ক্রীড়া ডেস্ক

১২ জানুয়ারি ২০২২, ১৮:৪৭
অস্কার ডস সান্তোস (ছবি: সংগৃহীত)

বছর পাঁচেক আগেও চেলসির জার্সি গায়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ (ইপিএল) দাপিয়ে বেড়িয়েছেন অস্কার ডস সান্তোস। নিখুঁত পাসিং দক্ষতার কারণে এই ব্রাজিলিয়ান তারকাকে মাঝমাঠের ভবিষ্যৎ কান্ডারি হিসেবে বিবেচনা করা হতো। সে সময় তাকে দলে পেতে আগ্রহীও ছিল ইউরোপের বড় বড় সব ক্লাব। কিন্তু সবাইকে চমকে দিয়ে চেলসির সমৃদ্ধ ক্যারিয়ার ফেলে ২০১৭ সালে হঠাৎ করে পাড়ি জমান চীনে।

সে সময় দ্য ব্লুজদের ডেরা থেকে ৬০ মিলিয়ন পাউন্ডে চাইনিজ সুপার লিগের ক্লাব সাংহাই পোর্ট এফসিতে যান অস্কার। এরপর থেকে আলোচনার বাইরে চলে যান তিনি। এমনকি চীনে যাওয়ার পর থেকে ব্রাজিল জাতীয় দলে আর ডাক পাননি তিনি। তবে হয়তো নিজের ভুল বুঝতে পেরেছেন অস্কার। এবার আবারও ইউরোপীয় ফুটবলে ফিরতে চাচ্ছেন তিনি। এমনকি স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সেলোনার হয়ে খেলতে আগ্রহ দেখিয়েছেন চেলসির সাবেক মিডফিল্ডার।

সাংহাই পোর্ট এফসিতে ২০২৪ সাল পর্যন্ত চুক্তি রয়েছে অস্কারের। শুরুতে ক্লাবটির কাছ থেকে সপ্তাহে চার লক্ষ পাউন্ড বেতন নিতেন তিনি। পরে সেটা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ লক্ষ ৬০ হাজার পাউন্ডে। তবে ইউরোপীয় ফুটবলে ফিরলে বেতন কমানোর ইচ্ছাও জানিয়েছেন অস্কার।

চাইনিজ সুপার লিগে ১১৩টি ম্যাচ খেলেছেন অস্কার। ৩৪টি গোল করার পাশাপাশি সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন ৭৩ গোল। ২০১৮ সালে চাইনিজ সুপার লিগ ও ২০১৯ সালে চাইনিজ এফএ সুপার কাপ জিতেছেন তিনি। ইউরোপে ব্লুজদের হয়ে দুটি প্রিমিয়ার লিগ শিরোপাও জিতেছিলেন অস্কার। ব্রাজিলের জার্সিতে ৪৮ ম্যাচে পেয়েছেন ১২ গোল।

যদিও বার্সেলোনা কোচ জাভি হার্নান্দেজ জাভির পরবর্তী অগ্রাধিকার একজন মাঝ মাঠের খেলোয়াড়। অস্কার এমন তেমনই একজন, যিনি বল দক্ষতা এবং পাসিংয়ের ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞ। কিন্তু বিশাল অঙ্কের ঋণ মাথায় নিয়ে অস্কারের মতো বিপুল বেতনের বোঝা বওয়াটা বার্সার পক্ষে এই মুহূর্তে হয়ত কঠিনই হবে!

ওডি/কেএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড