• রোববার, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ৯ মাঘ ১৪২৮  |   ২৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

এবাদত যেদিন ভালো করবে, সেদিন প্রতিপক্ষ শেষ: মুমিনুল

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৫ জানুয়ারি ২০২২, ১৫:৩৯
মুমিনুল হক (ছবি: সংগৃহীত)

মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্ট খেলতে নামার আগে এবাদতের বোলিং গড় ছিল ১০০ এর ওপরে। ১০ ম্যাচে উইকেট ছিল মাত্র ১১টি। এই টেস্ট শেষে এবাদতের মোট উইকেট সংখ্যা এখন ১৮টি। বোলিং গড় এক লাফে নেমে এসেছে ৫৬.৫৬। নিউজিল্যান্ডকে প্রথম টেস্ট হারানোর দিনে ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। এবাদতের এই পারফরম্যান্সে মোটেও অবাক হয়নি সতীর্থরা।

ব্যাটারদের অবদানের প্রশংসা করলেও ম্যাচ জয়ের বড় কৃতিত্ব বোলারদেরই দিলেন অধিনায়ক মুমিনুল হক। এবাদত হোসেনের পারফরম্যান্সে দল মোটেই অবাক হয়নি বলেও জানিয়েছেন তিনি। এ প্রসঙ্গে মুমিনুল বলেন, ‘অবাক না। আমি জানি, আমাদের দলের অনেকেই জানে এবাদত সম্পর্কে। ও যে মাপের বোলার হয়ত এক জায়গায় বেশি বল করতে পারে না। তবে এবাদত যেদিন ভালো বল করবে, ওইদিন সেই দল দল শেষ। কিন্তু ওর এই জিনিসটার ধারাবাহিকতা ছিল না। গত দুই-তিন বছর ধরে অনেক পরিশ্রম করেছে।’

‘গত তিন-চার ম্যাচ ধরে এবাদত টানা ম্যাচ খেলছে। আর এটারই ফল আজ আর কাল দিয়েছে সে, যেটার কারণে আমরা ম্যাচ জিতলাম। তাসকিনও অসম্ভব ভালো বোলিং করেছে। প্রথম ইনিংসে উইকেট পায়নি কিন্তু রান আটকে রেখেছিল। তারপর শরিফুল, খুব তরুণ; মাত্র দুইটি ম্যাচ খেলেছে। সে যে দলের ভেতর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে তা অবিশ্বাস্য।’

অধিনায়ক আরও বলেন, ‘আমার মনে হয়, আমাদের এই টেস্ট ম্যাচ জেতার পেছনে সবচেয়ে বেশি হাত ছিল বোলারদের। তারপরে এই উইকেটে বল ঘোরে না, তবুও মিরাজ কোনো না কোনোভাবে উপায় বের করেছে। তাই ম্যাচ জেতায় বোলারদেরই বেশি কৃতিত্ব। চারটা বোলার নিয়ে একটা টেস্ট ম্যাচ জেতাও ভাবা যায় না।’

ম্যাচ জয়ের সিংহভাগ কৃতিত্ব বোলারদের দিলেও ব্যাটারদের ভূমিকাকে মোটেই ছোট করে দেখছেন না টাইগার কাপ্তান। নিউজিল্যান্ডের পেস বোলারদের সামনে ব্যাটাররা যেভাবে খেলেছেন তার প্রশংসাও করেছেন মুমিনুল।

অধিনায়কের ভাষ্য, ‘ব্যাটাররাও ভালো করেছে। সাদমান আর জয় যেভাবে নিউজিল্যান্ডের বোলারদের সামলেছে তা দারুণ। ওদের বোলাররা কিন্তু নতুন বলে খুব বিপদজনক। মাত্র দ্বিতীয় ম্যাচেই জয় যেভাবে খেলেছে তাতে আমার মনে হয় ও বাংলাদেশের সুপারস্টার হবে। সাদমানও বলটা পুরানো করে দিয়েছে, যার কারণে আমাদের ব্যাট করা সহজ হয়েছে। মিরাজের ৪৭ রানও গুরুত্বপূর্ণ ছিল, ওটার কারণে লিড অনেক বেশি হয়েছে।’

ওডি/কেএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড