• রোববার, ২৫ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বর্ণবাদের অভিযোগ তুলে মাঠ ছাড়ল জার্মানি

  ক্রীড়া ডেস্ক

১৮ জুলাই ২০২১, ১৬:০৩
জার্মানি
ছবি : সংগৃহীত

ম্যাচের তখন পাঁচ মিনিট বাকি। তখনই ঘটল এক বিস্ময়কর ঘটনা। মাঠ ছেড়ে গেল জার্মান ফুটবল দল। পরে জানা গেল দলের ডিফেন্ডার জর্ডান টনারিগার প্রতি করা হয়েছিল বর্ণবাদী আচরণ, এটাই কারণ জার্মান দলের ক্ষোভের।

অলিম্পিককে সামনে রেখে জার্মান অলিম্পিক দল গতকাল শনিবার রাতে মুখোমুখি হয় হন্ডুরাস অনূর্ধ্ব ২৩ ফুটবল দলের। ডগলাস মার্টিনেজের গোলে ২১ মিনিটে এগিয়ে যায় দলটি। এরপর ৮৪ মিনিটে ফেলিক্স ওদুখাইয়ের লক্ষ্যভেদ ম্যাচে সমতায় ফেরায় হন্ডুরাসকে। এরপরই মাঠ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নেয় জার্মানি।

জাপানের ওয়াকাইয়ামায় অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে ছিল না কোনো দর্শক। ফাঁকা গ্যালারি থাকার ফলে বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ তুললে সেটা গিয়ে বর্তায় প্রতিপক্ষ খেলোয়াড় কিংবা ম্যাচ অফিসিয়ালদের ওপর। এমন ঘটনা নতুন কিছু নয় আদৌ। ম্যাচ শেষে টুইটারে জার্মান দল জানায়, ‘পাঁচ মিনিট বাকি থাকতে খেলা যখন ১-১ সমতায়, তখনই ম্যাচটা শেষ হয়ে যায়। জর্ডান টুনারিগা বর্ণবাদের শিকার হওয়ায় জার্মান খেলোয়াড়রা মাঠ ছেড়ে যান।’

এমন আচরণ প্রতিপক্ষের কাছ থেকেই এসেছে, বিষয়টা অবশেষে জানা গেছে হন্ডুরাসের টুইট থেকে। সেখানে বলা হয়েছে, ‘খেলোয়াড়রা মাঠ ছেড়ে যাওয়ায় ৮৭ মিনিটেই খেলা বন্ধ হয়ে গেছে, কারণ জার্মান এক খেলোয়াড় হন্ডুরাস দলের একজনের ওপর বর্ণবাদী আচরণের অভিযোগ তুলেছিলেন। এই বিষয়ে হন্ডুরাস ফুটবল ফেডারেশন জানাচ্ছে যে, পরিস্থিতিটা সৃষ্টি হয়েছে মাঠে দুই পক্ষের ভুল বোঝাবুঝি থেকে।’

নিজেদের সিদ্ধান্তকেই সঠিক মনে করছেন জার্মান কোচ স্টেফান কুন্টজ। বলেছেন, ‘যদি আমাদের কেউ বর্ণবৈষম্যমূলক আচরণের শিকার হয়, তাহলে খেলে যাওয়ার কোনো অর্থ হয় না।’

কোচ আরও বড় অভিযোগ এনেছেন এরপর। জানিয়েছেন টুনারিগার প্রতি এ আচরণ প্রথম বারেই শেষ হয়ে যায়নি, চলেছে আরও অনেকবার। সে কারণেই এসেছে এই সিদ্ধান্ত। বললেন, ‘তাকে ম্যাচে রাখাই যাচ্ছিল না। তার ওপর খুব বাজেভাবে এর প্রভাব পড়ছিল, কারণ সে বলেছিল যে তার প্রতি বর্ণবৈষম্যমূলক আচরণ ক্রমাগত চলেই আসছিল। আমাদের জন্য এটা পরিষ্কার যে এটা আমাদের মূল্যবোধের পরিপন্থী, আমরা এটা সহ্যই করতে পারি না। আমরা আমাদের খেলোয়াড়কে পুরোপুরি সুরক্ষায় রাখব।’

তবে কোচ জানিয়েছেন, মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার পর পুরো হন্ডুরাস দলই এসে ক্ষমা চেয়েছে টুনারিগার কাছে। ফলে বিষয়টার নিষ্পত্তি হয়ে গেছে সেখানেই।

জার্মান দলের মাঠ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার এই সিদ্ধান্তকেই সঠিক মানছেন অধিনায়ক ম্যাক্সিমিলিয়ান আরনল্ড। এতে সায় দিয়েছে টুনারিগার ক্লাব হের্থা বার্লিনও।

আগামী বৃহস্পতিবার ইয়োকোহামায় অলিম্পিকে জার্মানির প্রথম খেলা ব্রাজিলের বিপক্ষে। এর আগে এটাই ছিল কুন্টজের দলের শেষ প্রস্তুতি ম্যাচ। ব্রাজিলের বিপক্ষে আগামী ২২ জুলাই মুখোমুখি হওয়ার পর জার্মানরা গ্রুপপর্বে খেলবে আরও দুটো ম্যাচ, আগামী ২৫ জুলাই তাদের প্রতিপক্ষ সৌদি আরব আর আইভরি কোস্টের বিপক্ষে তাদের গ্রুপপর্বের শেষ লড়াইটা হবে ২৮ জুলাই।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড