• বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ফিনিশিং এ আশার প্রদীপ শামিম পাটোয়ারি

  শিবলী শাহরিয়ার

১৭ জুন ২০২১, ১৫:৫৩
শামীম
ছবি : সংগৃহীত

যুব বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সদস্য শামিম পাটোয়ারি। বড় বড় ইনিংস খেলতে না পারলেও খেলেন দলের জন্য কার্যকারী ইনিংস। এছাড়া বলটাও ভালো ঘোরাতে পটু এই ডানহাতি অফস্পিনার। প্রতি ম্যাচেই ফিল্ডিংয়ে তার মুনশিয়ানা দেখিয়ে আসছেন। এক কথায় যেন একটি পারফেক্ট প্যাকেজ।

ফিনিশিং রোল নিয়ে দেশের ক্রিকেট ভুগছে অনেক বছর ধরেই। আশার আলো জ্বালিয়ে এসেছে অনেকেই কিন্তু সে আশার প্রদীপ নিভিয়েছেন তারা নিজেরাই। তেমনি এক আশার নাম ছিল নাসির হোসেন। স্লগ ওভারে মারকুটে ব্যাটিং এ আলো ছড়িয়েছেন অনেক, দিয়েছেন অনেক ম্যাচ জয়ের উপলক্ষ। প্রয়োজনের সময় বল হাতে এনে দিয়েছেন গুরুত্বপূর্ণ ব্রেকথ্রু। কিংবা দৃষ্টিনন্দন কোনে ক্যাচে আনন্দে ভাসিয়েছেন দেশকে। স্বল্প সময়েই পেয়ে যান মিস্টার ফিনিশার তকমা।

কিন্তু নিজের প্রদীপ নিজেই নিভিয়েছেন নাসির। দীর্ঘ সময় ফর্মহীনতার সাথে জড়িয়েছেন নানা বিতর্কে। সাম্প্রতিক সময়ে ফিটনেস টেস্টে পাস মার্ক তুলতে না পারা আর ঘরোয়া ক্রিকেটের বাজে ফর্মের কারণে নিভে যাওয়ারই ইঙ্গিত দিচ্ছেন নাসির।

নাসিরের পর আরেক স্বপ্নের ফেরিওয়ালা হয়ে এসেছিলেন সাব্বির রহমান। দ্রুত রান তুলতে পারা, দারুণ ফিল্ডিং কিংবা দলের প্রয়োজনে বাইশ গজে হাত ঘোরাতে পারা তেমনটিই মনে হয়েছিলো ক্রিকেটপ্রেমীদের।

নানা বিতর্কে ব্যাড বয় তকমা পাওয়া সাব্বির ফর্মহীনতায় নাম লিখিয়েছেন দেশের ক্রিকেটের হতাশদের দলেই। নানা সময়ে গণমাধ্যমে জানিয়েছে তার জাতীয় দলে ফিরতে চাওয়ার কথা। কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেটে তার পারফরমেন্স সে কথা বলে কোথায়? চলতি ডিপিএলে দশ ম্যাচের নয় ইনিংসে ১৮ গড়ে রান করেছে ১৫১। স্ট্রাইক রেট ৯৮.৬৯ যা টি-টুয়েন্টি সুলভ নয়।

ধুঁকতে থাকা ৭ নম্বর পজিশন নিয়ে ঘুরিয়ে ফিরিয়ে অনেককেই চেষ্টা করেছে বিসিবি। কখনও ওপেনিং থেকে ৭ এ নামিয়েছে সৌম্য সরকারকে। তবে এসব কেবল আক্ষেপই বাড়িয়েছে।

দেশের ক্রিকেট নতুন আশায় বুক বেধেছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত কিংবা আফিফ হোসেনকে নিয়ে। দেশের ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম ত্রিদেশীয় শিরোপা জয়ের ম্যাচের নায়ক সৈকত তাকে নিয়ে ভাবতে বাধ্য করেছে। তবে তাদেরকে নিয়ে আশা হতাশার গ্রাফ টানার সময় আসেনি এখনো। কিন্তু দলের প্রয়োজনে নিজেদের সময়মত মেলে ধরতে না পারা ক্রিকেটপ্রেমীদের মনে কিন্তু হতাশার জন্ম দিতেই পারে। তবে সামনের দিনে তারা নিজেদেরকে মেলে ধরুক সেটাই চাইবে দেশের ক্রিকেট।

সাম্প্রতিক সময়ে পারফরমেন্স দিয়ে ফিনিশার রোলের বড় দাবিদার হিসেবে প্রমাণ করে চলেছেন শামিম হোসেন পাটোয়ারি। বঙ্গবন্ধু ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ১১ ম্যাচের ৯ ইনিংসে ২৯ গড়ে রান করেছেন ১৭৬। স্ট্রাইক রেট ১৫৮.৫৫ যা টুর্নামেন্টের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহকদের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ।

রাতারাতি প্রত্যাশার কেন্দ্রবিন্দুতে না বসিয়ে যত্ন নিয়ে গড়ে তোলা হোক শামিমকে। পরিপক্ক হয়ে আশার প্রদীপ হাতে নিয়ে আসুক দেশের ক্রিকেটে এই যুব বিশ্বকাপজয়ী। নিভু নিভু জ্বলা কোনো প্রদীপ নয়, আশার পালে হাওয়া দেওয়া এই তরুণতুর্কি শাসন করুক ক্রিকেটবিশ্বকে।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড