• শুক্রবার, ১০ জুলাই ২০২০, ২৬ আষাঢ় ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বেরিয়ে এলো রশিদ লতিফের আরেকটি জোচ্চুরির ঘটনা

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

৩০ মে ২০২০, ১৯:১৪
করোনা
ছবি : সংগৃহীত

পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক রশিদ লতিফের নাম সহজেই ভুলবে না বাংলাদেশের ক্রিকেট ভক্ত-সমর্থকরা। ২০০৩ সালের মুলতান টেস্টে রশিদের ভাবনার অতীত জোচ্চুরির কারণে টেস্ট জেতার সহজ সুযোগ হাতছাড়া হয়েছিল বাংলাদেশের। সে ম্যাচে মাটি থেকে বল তুলে ক্যাচ দাবি করেছিলেন রশিদ, সেটিকে আউটও দিয়েছিলেন আম্পায়ার।

সেই রশিদ লতিফের এমন জোচ্চুরির ঘটনা সেটিই প্রথম নয়। ১৯৯৬ সালে ভারতের বিপক্ষেও একবার এমন করেছিলেন তিনি। সেটিতেও আউট নয় জেনে আবেদন করেছিলেন রশিদ এবং আঙুল তুলে দিয়েছিলেন আম্পায়ার। সে ঘটনায় ভুক্তভোগী ব্যাটসম্যান ছিলেন রাহুল দ্রাবিড়।

১৯৯৬ সালের শারজাহ কাপের প্রথম ওয়ানডেতে আগে ব্যাট করে ২৭১ রান করেছিল পাকিস্তান। জবাবে মাত্র ৯১ রানেই ৪ উইকেট হারিয়ে বসেছিল ভারত। তখন তাদের প্রয়োজন ছিল বড় একটি জুটি। কিন্তু রশিদ ও মুশতাক আহমেদের ভুল তবে জোরালো আপিলের কারণে নিজের উইকেট হারান দ্রাবিড়।

লেগস্পিনার মুশতাকের ঝুলিয়ে দেয়া ডেলিভারিতে ড্রাইভ করতে চেয়েছিলেন দ্রাবিড়। কিন্তু টার্ন করে তার ব্যাটকে ফাঁকি দেয় সেটি, বল জমা পড়ে উইকেটরক্ষক রশিদের গ্লাভসে। সঙ্গে সঙ্গে সমস্বরে আপিল শুরু করেন মুশতাক ও রশিদ। আম্পায়ারও আঙুল তুলে দেন।

ফলে ৯৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে ভারত। শেষপর্যন্ত ম্যাচটি হারে ৩৮ রানের ব্যবধানে। ম্যাচশেষে রশিদ নিজেই দ্রাবিড়কে গিয়ে বলেছিলেন, সেটি যে আসলে আউট ছিল না। সম্প্রতি এক ইউটিউব ভিডিওতে এ কথা বলেছেন রশিদ।

তার ভাষ্য, ‘শারজাহয় আমাদের বিপক্ষে ভারতের ম্যাচ ছিল। দুর্ভাগ্যবশত কট বিহাইন্ড হয়েছিল দ্রাবিড়। মুশতাক একটি ডেলিভারিতে জোরালো আপিল করেছিল। আমরাও সঙ্গে সঙ্গে আপিল করি এবং আউটও পেয়ে যাই। ম্যাচ শেষে দ্রাবিড় আমাকে জিজ্ঞেস করেছিল, আমি কি আউট ছিলাম? আমি তখন বলে দিয়েছি, না তুমি আউট ছিলে না। আসলে মুশতাক একটু বেশি বেশি করে।’

এসময় রাহুল দ্রাবিড় এবং সৌরভ গাঙ্গুলির অভিষেকের বিষয়ে রশিদ বলেন, ‘সৌরভ গাঙ্গুলি এবং রাহুল দ্রাবিড়- দুজনই তাদের অভিষেক করেছিল ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। কাকতালীয়ভাবে আমরাও তখন সেখানে ছিলাম। প্রধানমন্ত্রীর আমন্ত্রণে আমরা পুরো দল গিয়েছিলাম। সেখানে দুই ইয়ংস্টারকেও (রাহুল-সৌরভ) দেখেছিলাম। তারা ভাল খেলেছিল।’

ওডি/ 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড