• শুক্রবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

রিয়ালকে পেছনে ফেলে অনন্য রেকর্ড গড়ল বার্সেলোনা

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০:১০
লিওনেল মেসি ও টনি ক্রুস
লিওনেল মেসি ও টনি ক্রুস (ছবি: সংগৃহীত)

রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে পেছনে ফেলে রেকর্ড ষষ্ঠবারের মতো ব্যালন ডি’অর জিতেছেন লিওনেল মেসি। মেসির এ অর্জনে রেকর্ড গড়েছে বার্সেলোনাও। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদকে পেছনে ফেলে সর্বোচ্চ ব্যালন ডি’অর জয়ী ক্লাবও এখন বার্সেলোনা। 

সোমবার (২ ডিসেম্বর) জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ব্যালন ডি’অর জয়ী হিসেবে মেসির নাম ঘোষণা করা হয়। মেসির হাত ধরে ১২তম ব্যালন ডি’অর জিতেছে বার্সেলোনা। মেসি একাই জিতেছেন ৬টি, বাকি ৫ জন মিলে জিতেছেন ছয়টি ব্যালন ডি’অর। তারমধ্যে ইয়োহান ক্রুইফ জিতেছেন দুইবার। বাকি চারটি জিতেছেন লুইস সুয়ারেজ, রিস্টো স্টোইচকোভ, রিভালদো ও রোনালদিনহো।

অন্যদিকে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ব্যালন ডি’অর জিতেছে রিয়াল মাদ্রিদ। মাদ্রিদের ৭ ফুটবলার ১১ বার জিতেছে এ পুরস্কার। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ৪ বার ব্যালন ডি’অর জিতেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। এছাড়া ডি স্টেফানো জিতেছেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ দুইবার। রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ব্যালন ডি’অর জয়ী বাকি পাঁচজন হলেন- রেইমন্ড কোপা, লুইস ফিগো, রোনালদো লিমা, ফ্যাবিও ক্যানভেরো ও লুকা মদ্রিচ। এছাড়া এসি মিলান ও জুভেন্তাসে ফুটবলাররা সমান ৮ বার ব্যালন ডি’অর জিতেছে।

তবে চারটি ব্যালন ডি’অর অবশ্য দুটো ক্লাব দাবি করতে পারে। ১৯৭৩ সালে ইয়োহান ক্রুইফ বার্সেলোনার হয়ে ব্যালন ডি’অর জিতলেও মৌসুমের অর্ধেকটা সময় কাটিয়েছেন আয়াক্সে। উল্টো ঘটনা আবার রোনালদো লিমার ক্ষেত্রে। ১৯৯৭ সালে ব্যালন ডি’অর জয়ী ব্রাজিলিয়ান তারকা রোনালদো মৌসুমের মাঝামাঝি সময়ে বার্সেলোনা ছেড়ে ইন্টার মিলানে পাড়ি জমিয়েছিলেন। অন্যদিকে ২০০০ সালে লুইস ফিগো ও ২০০৬ সালে ক্যানভেরো রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে ব্যালন ডি’অর জিতলেও তারা মৌসুমের অর্ধেক সময় অন্য ক্লাবের হয়ে খেলেছেন। ফিগো মৌসুমের অর্ধেক ছিলেন বার্সেলোনায় আর ক্যানভেরো ছিলেন জুভেন্তাসে।

ওডি/এমএমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড