• বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ওয়ার্নারের ট্রিপল সেঞ্চুরির রহস্য জানালেন স্ত্রী

  ক্রীড়া ডেস্ক

০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:৫৪
অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তান সিরিজ
ওয়ার্নারের স্ত্রী ক্যান্ডিস (ছবি : সংগৃহীত)

সাড়ে চার বছর আগে অস্ট্রেলিয়ার বাঁহাতি ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের কাছে তিনশ রানের আবদার করে বসেছিলেন এক ভক্ত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভক্তের সেই অনুরোধে ওয়ার্নার সে দিন হেসেছিলেন। শনিবার (নভেম্বর) অ্যাডিলেডে বাঁ হাতি অজি ওপেনার সেই ভক্তের আবদার রাখলেন। ৩৩৫ রানের দুরন্ত ইনিংস খেললেন তিনি। তার ব্যাটিং দাপটে অস্ট্রেলিয়া তিন উইকেটে ৫৮৯ রানে ইনিংস ঘোষণা করে দেয়।  

২০১৫ সালের ২৩ জুলাই সোশ্যাল মিডিয়ায় জোনাথন নামের এক ভক্ত ওয়ার্নারের উদ্দেশে লিখেছিলেন, ‘টেস্ট ক্রিকেটে একটা ট্রিপল সেঞ্চুরি অন্তত করো।’ ট্রিপল সেঞ্চুরি করতে হলে ধৈর্যের পরীক্ষা দিতে হয় ব্যাটসম্যানকে। দাঁত কামড়ে পড়ে থাকতে হয় ক্রিজে। ওয়ার্নার ধৈর্যের ধার ধারেন না। মারমুখী ব্যাটিং করতে গিয়ে অনেক সময়েই তার উইকেট গড়াগড়ি খেয়েছে মাটিতে। ধৈর্যের দোহাই দিয়ে সে দিন ভক্তের আবদার উড়িয়েই দিয়েছিলেন অজি তারকা। 

অ্যাডিলেডে আকাশ ছুঁলেন ওয়ার্নার। কীভাবে তা সম্ভব হলো? অজি-ওপেনারের স্ত্রী ক্যান্ডিস টুইট করে রহস্য ফাঁস করেন। ওয়ার্নারের স্ত্রী লেখেন, ‘শারীরিক সক্ষমতা শক্তির আসল উৎস নয়। অদম্য ইচ্ছাশক্তিই শরীরে এনে দেয় বল।’ ওয়ার্নারও এই ইচ্ছাশক্তিরই পরিচয় দিয়েছেন দ্বিতীয় টেস্টে। ধৈর্য ধরে ব্যাট করে একশোকে দুশো, দুশোকে তিনশো রানে পরিণত করেন বাঁ হাতি অজি ওপেনার। ক্যান্ডিস আরও বলেন, ‘বহির্জগত তোমার সম্পর্কে কী মনে করছে, তা মোটেও গুরুত্বপূর্ণ নয়। নিজের ক্ষমতায় তুমি কতটা বিশ্বাসী সেটাই গুরুত্বপূর্ণ।’

ওয়ার্নারের ক্রিকেট জীবনের উপর দিয়ে কম ঝড় বয়ে যায়নি। অজি ক্রিকেটারের লড়াইটা খুব কাছ থেকে দেখেছেন স্ত্রী ক্যান্ডিস। তাই তিনি এমন কথা বলতে পারলেন। বল বিকৃতি কাণ্ডে জড়িয়ে এক বছরের জন্য নির্বাসিত হতে হয়েছিল বাঁ হাতি অজি ওপেনারকে।

নির্বাসন কাটিয়ে ফিরে অ্যাশেজে কথা বলেনি ওয়ার্নারের ব্যাট। প্রবল সমালোচিত হয়েছিলেন তিনি। ইংল্যান্ডের মাঠে খেলতে নামলেই ওয়ার্নারের দিকে ধেয়ে এসেছে কটাক্ষ। সেগুলোকে গুরুত্ব দেননি। নিজের ক্ষমতা, দক্ষতায় বিশ্বাস রেখে পাকিস্তানের বিপক্ষে ফুল ফোটালেন ওয়ার্নার। নিজেকে নিয়ে গিয়েছেন ধরাছোঁয়ার বাইরে। তার সেই পরিবর্তনের রহস্যই ফাঁস করেছেন ক্যান্ডিস। 

ওডি/এনএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড