• শনিবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ১৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অনুশীলনের সময় আম্পায়ারদেরও উপস্থিতি চান টফেল

  ক্রীড়া ডেস্ক

২০ নভেম্বর ২০১৯, ১২:২২
সাইমন টফেল
অস্ট্রেলিয়ার সাবেক আম্পায়ার টফেল (ছবি : সংগৃহীত)

শুধু ব্যাটসম্যান নয়। রাতে গোলাপি বল দেখতে সমস্যায় পড়তে পারেন আম্পায়াররাও। এমনটাই জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিয়ার সাবেক আম্পায়ার সাইমন টফেল গোলাপি বলে অ্যাডিলেডে হওয়া প্রথম টেস্টে টফেল আধিকারিক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সেই টফেল মনে করেন, গোলাপি বল ভালো করে দেখতে আম্পায়াররা প্রয়োজনে কৃত্রিম লেন্সের সাহায্য নিতে পারেন।

টফেলের মন্তব্য, ‘জানি না ওরা (আম্পায়াররা) বলকে আলাদাভাবে দেখতে বিশেষ লেন্স চোখে নেবে কি না। সেটা পুরোপুরি ওদের ব্যাপার। ওদের উচিত নেটে ক্রিকেটারদের অনুশীলনের সময়ও যত বেশি সম্ভব হাজির থাকা।’

বিশ্বের সর্বকালের অন্যতম সেরা আম্পায়ার আরও বলেন, ‘নেটে অনেকটা সময় কাটালে আম্পায়াররা গোলাপি বল দেখার ব্যাপারে অভ্যস্ত হবে। ক্রিকেটে ঠিক সময়ে ঠিক জিনিস দেখা একটা বড় ব্যাপার। নেটে সময় দিলে ওদের আত্মবিশ্বাস বেড়ে যাবে।’ টফেল যোগ করেন, ‘গোধূলিতে আলোর পরিবর্তন হয়। উজ্জ্বল সূর্যের আলো থেকে রাতের আলোতে খেলা শুরু হয়। এই সময় গোলাপি বলে খেলা ব্যাটসম্যানদের পরীক্ষা। আম্পায়ারদের ক্ষেত্রেও এই একই কথা খাটে। ব্যাট করার মতোই তখন কঠিন হয় ম্যাচ পরিচালনা করা।’

টফেল ভারতে এসেছেন নিজের বইয়ের প্রচারে। ইডেনে গোলাপি বলে টেস্ট চলার সময় তার হাজির থাকার কথা। টফেল মনে করেন, বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের কাজ বেশি কঠিন কারণ কখনো তারা গোলাপি বলে খেলেননি। তাই তাদের তিনি অতিরিক্ত সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। বেশ কয়েকজন ভারতীয় ক্রিকেটার অতীতে গোলাপি বলে ঘরোয়া ক্রিকেট খেলেছেন। সেখানে ২০১৩তে বাংলাদেশ একবারই গোলাপি বলে চার দিনের একটা ম্যাচ খেলেছিল। কিন্তু সেই দলের কেউ এ বার খেলছেন না।

টফেল বলেন, ‘জানি না বাংলাদেশ গোলাপি বলে কখনো প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছে কি না। তবে বাংলাদেশের কাজটা নিঃসন্দেহে বেশি কঠিন।’ টফেল আরও বলেন, ‘শিশির থাকলে ফিল্ডিং করাও বড় সমস্যা। তখন একটা বড় কাজ, বল শুকনো রাখা। দেখার বিষয় বলের রং কতক্ষণ ঠিক থাকে। পুরনো বল নিয়ে কতটা সময় খেলা যাবে সেটা বোঝাও আম্পায়ারদের কাছে ঝামেলার। সাদা বলই ৫০ ওভার খেলা যায় না। সেখানে টেস্টে তো গোলাপি বলে ৮০ ওভার খেলা হবে।’  

ওডি/এনএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন সজীব 

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড