• শনিবার, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, ৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ম্যাচ ফিক্সিংয়ে রাজি হলেই দেয়া হতো আইফোন!

  ক্রীড়া ডেস্ক

০৯ নভেম্বর ২০১৯, ২০:৫৫
ম্যাচ ফিক্সিং
ছবি : সংগৃহীত

ভারতের তুলনামূলক কম জনপ্রিয় ফ্রাঞ্চাইজি লিগগুলোর একটি কর্ণাটক প্রিমিয়ার লিগ (কেপিএল)। তবে সম্প্রতি আলোচনায় উঠে এসেছে লিগটি। একের পর এক ম্যাচ ফিক্সিং কাণ্ডের গোমর ফাঁস হওয়ার পর থেকে পত্র-পত্রিকায় বিস্তর লেখালেখি হচ্ছে লিগটিকে নিয়ে। এ টুর্নামেন্টের বেশ কয়েকজন কোচ ও খেলোয়াড়কে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের অভিযোগে গ্রেফতারও করা হয়েছে। 

সম্প্রতি ভারতীয় পত্রিকা হিন্দুস্তান টাইমসকে ম্যাচ ফিক্সিং নিয়ে বেশকিছু গোপন তথ্য দিয়েছে টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী খেলোয়াড় ও কর্ণাটক ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন কর্মকর্তারা। তবে নিরাপত্তার খাতিরে তাদের কারও নাম প্রকাশ করা হয়নি। 

এক ক্রিকেটার জানান, টুর্নামেন্টের ক্রিকেটাররা শুধু একজনের সঙ্গে দেখা করলেই পেতেন আইফোন। ভয়ঙ্কর ব্যাপার হচ্ছে, দলের কোচই এই আইফোন বিতরণ করতেন। ওই ক্রিকেটার বলেন, ‘আমাকে এক ক্রিকেটার এসে বলে গেল যে, আমাকে একজনের সঙ্গে শুধু দেখা করতে হবে। বদলে দেওয়া হবে আইফোন। একজন কোচ ছিলেন যার কাজই ছিল ক্রিকেটারদের মধ্যে বিতরণের জন্য ব্যাগ-ভর্তি আইফোন নিয়ে ঘোরা।’

এরপর আরেক ক্রিকেটার বলেন, ‘যখন ওরা বুঝে গেল যে, কয়েকজন কিছুতেই ফিক্সিং করবে না, তখন ওরা সতর্ক হয়ে গেল।’

এছাড়া ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের দুর্নীতি-দমন শাখার প্রাক্তন প্রধান রবি সাওয়ানি কেপিএলের ফিক্সিং নিয়ে কথা বলেন। তিনি গত মৌসুমে কর্ণাটক প্রিমিয়ার লিগের দুর্নীতি দমন শাখার প্রধান ছিলেন। এছাড়া এর আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলেরও (আইসিসি) এই শাখার প্রধান ছিলেন তিনি। তিনি বলেন, ‘ম্যানেজমেন্টকে এটা প্রকাশ্যে আনতে হবে। আমরা দৈনিক ভিত্তিতে এর ওপর নজর রাখি। যখনই কোনো ইস্যু থাকে, তা রিপোর্ট করা হয়।’

এছাড়া আরেক ক্রিকেটার দলগুলোর মালিকদের বিরুদ্ধেই অভিযোগ তোলেন। তিনি বলেন, ‘আসলে মাথাতেই সমস্যা থাকলে ক্রিকেটাররা রিপোর্ট করতে চায় না। এমনকি, নিজে ফিক্সিং করতে না চাইলেও কোচ, মালিকরা জড়িত থাকলে তা রিপোর্ট করা সহজ নয়। আমার অধিনায়ক যেমন সৎ ছিল। ও কিন্তু বুঝে ফেলেছিল, দলের মধ্যেই ভুলভাল কিছু হচ্ছে। আর তাই একেবারে শেষ মুহূর্তেও কোন এগারোজন খেলছে, তা জানাত।’

ওডি/এমএমএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড