• বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

নানা সমস্যায় ঝুঁকির মুখে ভাসমান কাঠের বাজার

  ইমন চৌধুরী, পিরোজপুর ১৪ মে ২০১৯, ১৭:২৮

ভাসমান কাঠ বাজার
ভাসমান কাঠের বাজারে লিভারের মাধ্যমে কাঠ সরিয়ে নিচ্ছেন শ্রমিক (ছবি : দৈনিক অধিকার)

পিরোজপুরের অর্থনৈতিক চালিকা শক্তির অন্যতম উৎস নেসারাবাদের ভাসমান কাঠ বাজার আজ নানা সমস্যায় জর্জরিত। অব্যবস্থাপনা, চাঁদাবাজি আর নিরাপত্তার অভাবে হারিয়ে যেতে বসেছে দেশের সবচেয়ে পুরাতন ও বড় নেসারাবাদের ভাসমান এ কাঠের বাজার।

ফলে এ অঞ্চলের এক সময়ের অর্থনৈতিক চালিকা শক্তি মুখ থুবড়ে পড়ছে আজ। চাঁদাবাজির কারণে বিভিন্ন জেলার কাঠ ব্যবসায়ীরা এ বাজারে আসা অনেকটাই ছেড়ে দিয়েছেন। এমন পরিস্থিতিতে প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেছেন ব্যবসায়ীরা।

(ছবি : দৈনিক অধিকার)

নেসারাবাদের ভাসমান কাঠের বাজার পড়ে আছে গাছের গুড়ি (ছবি : দৈনিক অধিকার)

আড়ৎদার ও শ্রমিকদের কাছ থেকে জানা যায়, দেশের দক্ষিণাঞ্চলের একটি পুরাতন জনপদ নেসারাবাদ যা দেশের বিভিন্ন স্থানে স্বরূপকাঠি নামে পরিচিত। উপকূলীয় এলাকা, ভৌগোলিক যোগাযোগ ব্যবস্থা এবং ব্যবসায়ী বন্দর হওয়ায় প্রায় দেড়শ বছর পূর্বে এখানে গড়ে উঠে ভাসমান কাঠের বাজার। তখন এখানে বেশির ভাগ কাঠ আসতো সুন্দরবন থেকে।

কিন্তু ১৮৮৫ সালে সুন্দরবনকে রিজার্ভ ফরেস্ট ঘোষণা করা হলে সেখান থেকে পরিকল্পিতভাবে কাঠ আহরণ শুরু হয়। ফলে কাঠের চালান কমে যাওয়ায় বিকল্প হিসেবে আসাম, ত্রিপুরা ও বার্মা থেকে কাঠ আসতে শুরু করে এখানে। আর একে কেন্দ্র করে এ বন্দরে সূচনা হয় বিভিন্ন ব্যবসা বাণিজ্যের। শুধুমাত্র এ উপজেলাতেই গড়ে উঠে দুই শতাধিক সমিল। কর্মসংস্থান হয় হাজার হাজার শ্রমিকের। আর কাঠ রূপান্তরিত হয় এখানকার অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তিতে।

(ছবি : দৈনিক অধিকার)

ভাসমান কাঠের বাজারে কাজে ব্যস্ত শ্রমিক (ছবি : দৈনিক অধিকার)

তবে বিভিন্ন স্থানে চাঁদাবাজি ও বাজারের অব্যবস্থাপনার কারণে এ ব্যবসা এখন হুমকির মুখে। ফলে সরকার হারাতে বসেছে কোটি টাকার রাজস্ব। সরকারি উদ্যোগ আর যথাযথ পরিচালনায় রক্ষা পেতে পারে দেশের এ সর্ববৃহৎ পাইকারি কাঠের আড়ত।

বর্তমানে এ ব্যবসাকে কেন্দ্র করে চলা পাঁচ হাজার পরিবার রয়েছে অর্থনৈতিক ঝুঁকির মধ্যে। অথচ অব্যবস্থাপনা আর চাঁদাবাজির কারণে ধ্বংস হতে বসেছে জেলার ঐতিহ্যবাহী এ ভাসমান কাঠের বাজার।

উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আব্দুল হক বলেন, চাঁদাবাজি ঠেকাতে কাজ করবেন তিনি। কাঠ ব্যবসায়ীদের যাত্রাপথে চাঁদাবাজি বন্ধ করে নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছার যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

ওডি/এএসএল

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: info@odhikar.news

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড