• বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮  |   ২৭ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

তালায় কোটি টাকা ব্যয়ে অপরিকল্পিত ড্রেন নির্মাণ

  সেলিম হায়দার, তালা (সাতক্ষীরা)

০৭ জুন ২০২১, ১১:০৮
রাস্তার পিচ ও ইটের হেজিং নষ্ট করে নির্মাণ হচ্ছে ড্রেন
রাস্তার পিচ ও ইটের হেজিং নষ্ট করে নির্মাণ হচ্ছে ড্রেন। (ছবি : দৈনিক অধিকার)

সাতক্ষীরার তালায় জলাবদ্ধতা নিরসনে এডিবির অর্থায়নে ১ কোটি ১৬ লাখ টাকা ব্যয়ে ড্রেন নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। তবে এতে নষ্ট হবে সরকারের কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত রাস্তা।

অভিযোগ রয়েছে, সীমানা নির্ধারণ না করা ও প্রভাবশালীদের দখলে থাকা জায়গার সার্ভে না করেই পিচ ও ইটের হেজিং নষ্ট করে নির্মাণ হচ্ছে এই ড্রেন। উপজেলা প্রশাসন রাস্তার জায়গা সার্ভে করে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে ড্রেন নির্মাণ করার নির্দেশ দিলেও তাতে কোনো কর্ণপাত করেনি উপজেলা প্রকৌশলী রথিন্দ্র নাথ হালদার।

জানা যায়, এ বিষয়ে তালা উপজেলা নাগরিক কমিটি একাধিকবার রাস্তা সার্ভে করে ড্রেন নির্মাণের আবেদন করলেও বিষয়টি নিয়ে উদাসীন উপজেলা প্রশাসন।

উপজেলা প্রকৌশলী অফিস সূত্রে জানা যায়, তালা প্রেসক্লাব মোড় থেকে থানা এবং খাজরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় অভিমুখে ১ হাজার ১০৫ মিটার রাস্তা ১ কোটি ১৬ লাখ ৯০ হাজার ৫৬০ টাকা ব্যয়ে ড্রেন নির্মাণের কাজ গত এক সপ্তাহ ধরে চলছে। যার উচ্চতা ও প্রস্থ ৩ ফুট। কাজটি তদারকি করছেন মেসার্স মুন্না এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী হাবিবুর রহমান।

এ ব্যাপারে তালা উপজেলা নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিকুল ইসলাম জানান, তালা উপজেলা সদরের জলাবদ্ধতা নিরসনে এডিবির অর্থায়নে ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু করা হয়েছে। ড্রেন নির্মাণের আগে রাস্তা সার্ভে করে সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার পূর্বক কাজটি শুরু করার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত আবেদন করা হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সহকারী কমিশনার (ভূমি) বরাবর আবেদনটি তদন্তের নির্দেশ দেন। কিন্তু গত দুই মাসেও বিষয়টি সমাধান হয়নি।

স্থানীয় বাসিন্দা মীর জিল্লু রহমান জানান, রাস্তার দুই পাশের সরকারি সম্পত্তি স্থানীয় প্রভাবশালীরা ভবন ও সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করে দখলে রেখেছেন। যার ফলে রাস্তার হেজিং কেটে ড্রেন নির্মাণ করা হচ্ছে। অপরিকল্পিত ড্রেন নির্মাণ হলে ভবিষ্যতে শিক্ষার্থী, পথচারী এবং যানবাহন চলাচলে বিঘ্নতা সৃষ্টি হবে।

এ ব্যাপারে মেসার্স মুন্না এন্টারপ্রাইজের সত্ত্বাধিকারী মো. হাবিবুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ব্যস্ততার দোহাই দিয়ে ফোনটি কেটে দেন।

উপজেলা প্রকৌশলী রথীন্দ্র নাথ হালদার জানান, যেমন জায়গা পাবো তেমন ড্রেন করবো, জায়গা নেই ড্রেন করার কাজ বন্ধ। যতটুকু কাজ হবে সেই কাজের বিল ঠিকাদার পাবে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার মশিয়ার রহমান জানান, ঠিকাদার ও প্রকৌশলী রোড ম্যাপ না করেই ইচ্ছেমত কাজ শুরু করেছে। ড্রেন সংশ্লিষ্ট এই রাস্তাটি তালা শহরে ওঠার একমাত্র বাইপাস সড়ক। রাস্তার পাশে একাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও পরীক্ষাকেন্দ্র রয়েছে। রোড ম্যাপ অনুযায়ী ড্রেন নির্মাণের দাবি জানান তিনি।

তালা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. তারিফ উল হাসান জানান, সরকারি সম্পত্তি উদ্ধার পূর্বক ড্রেন নির্মাণের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে উপজেলা প্রকৌশলীকে।

তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার জানান, রোডম্যাপ অনুযায়ী ড্রেন নির্মাণ করতে হলে অসংখ্য স্থাপনা ভাঙতে হবে। তাতে ড্রেন নির্মাণে অনেক বাধার সম্মুখীন হতে হবে। এ কারণেই যেখানে যেমন জায়গা আছে সেখানে তেমন ড্রেন নির্মাণ করা হচ্ছে।

ওডি/জাহিদ

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড