• মঙ্গলবার, ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘ডিজিটালাইজেশনে পিছিয়ে শিক্ষা ও স্বাস্থ্য খাত’

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৯ মে ২০২২, ১৭:০৬
মোস্তাফা জব্বার
কথা বলছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার। (ছবি : অধিকার)

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশের পথে আমরা অনেকখানি এগিয়েছি। তবে পিছিয়ে আছে শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবা খাত। এ জায়গাগুলোতে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আরও বেশি ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হবে।’

বরিবার (২৯ মে) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে বিশ্ব টেলিযোগাযোগ ও তথ্য সংঘ দিবস ২০২২ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, ‘স্বাস্থ্যখাতে এখন ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার হচ্ছে। আমার কাছে মনে হয় স্বাস্থ্য সেবার যে প্রযুক্তিগুলো রয়েছে সেখানে ফোরজি সেবা খুবই কার্যকরী। যেসব জায়গায় এখনো উন্নত স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছায়নি সেখানে এ প্রযুক্তির মাধ্যমে মানুষকে সেবা দেওয়া যাবে।’

মোস্তফা জব্বার বলেন, ‘দেশে ৫জি চালু হলেও এখন পর্যন্ত ফোরজি সেবাই মানুষ ঠিকমতো পাচ্ছে না। আমাদের ফোরজি কার্যকর করতে হবে। এরপর ফোরজি অবকাঠামোতে কিছু ছোটখাটো যন্ত্রপাতি যোগ করলে তাতে ৫জি সুবিধা পাওয়া যাবে। অপারেটরদের বলবো আপনারা ফোরজি অবকাঠামো বিস্তার করুন। পরে যন্ত্রপাতি সহযোজন করে ৫জি সেবা দিতে পারবেন।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘থ্রিজি থেকে ফোরজি সেবার রূপান্তরে প্রধান সমস্যা পুরো ডিভাইস আপডেট করতে হয়। ফাইভ জির ক্ষেত্রে সেটা দরকার হয় না। তাই ৪জি ও ৫জির চাহিদা নিরূপণ করতে হবে। যখন যেখানে যে সেবা দরকার সেখানে সেই ধরনের সেবা দেবেন।’

বিশ্ব টেলিযোগাযোগ ও তথ্য সংঘ দিবস ১৭ মে পালন করার কথা থাকলেও তা রবিবার পালন করা হয়। এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য ‘বয়োজ্যেষ্ঠ ব্যক্তি এবং স্বাস্থ্যসম্মত বার্ধক্যের জন্য ডিজিটাল প্রযুক্তি’।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন শ্যাম সুন্দর সিকদার।

ওডি/জেআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড