• বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৪ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

নিউজ সেকশনের জন্য কেন সাংবাদিক নিয়োগ দেবে ফেসবুক?

ফেসবুক
(ছবি: সংগৃহীত)

চলতি বছরের শেষ নাগাদ নিউজ সেকশন নামে নতুন একটি সেকশন চালু করবে ফেসবুক। এই সেকশনে শুধু খবর থাকবে। আর এজন্য নিজস্ব নিউজ সেকশনের কন্টেন্টের জন্য পত্রিকা প্রকাশকদের লাখ লাখ ডলার অফারও করছে তারা। সম্প্রতি ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল এমন এক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ওয়াশিংটন পোস্ট, এবিসি নিউজের মতো গণমাধ্যমকে এমন প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।  

ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, প্রতিবেদনের স্বত্ব কিনতে একেকটি গণমাধ্যমকে বছরে ৩০ লাখ ডলার পর্যন্ত দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যেই ফেসবুকের নির্বাহীরা ওয়াশিংটন পোস্ট,ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল, ব্লুমবার্গ, এবিসি নিউজের প্যারেন্ট কোম্পানি ডাও জোনসকে এমন প্রস্তাব দিয়েছেন।

জানা গেছে, ফেসবুকের নতুন এই ফিচারটিতে নির্বাচিত কিছু গুরুত্বপূর্ণ খবর দেখানো হবে। সাংবাদিকদের ছোট্ট একটি দল এই খবরগুলো নির্বাচন করবে। মোবাইলে ফেসবুক অ্যাপের একটি অংশে ওই নিউজ ট্যাব থাকবে।  

নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অ্যালগরিদম অনুযায়ী ফেসবুকের নিউজ ট্যাবের অধিকাংশ খবর দেখানো হবে। তবে প্রতিদিনের শীর্ষ খবরগুলো ১০ জন বিখ্যাত সাংবাদিক ঠিক করে দেবেন। অ্যাপটির মূল ফিড থেকে এ নিউজ ট্যাব আলাদা থাকবে।   ব্যবহারকারীদের কাছে সঠিক খবর সময়মতো পৌঁছাতে ফেসবুককে বেশ হ্যাপা পোহাতে হয়। আগে ফেসবুকের চালু করা ‘ট্রেন্ডিং টপিকস’ ফিচারটিতে অধিকাংশ সময় পুরোনো খবর ও বিরক্তিকর বিষয় দেখানো হতো।

পাশাপাশি ফেসবুকের বিরুদ্ধে ভুয়া খবর দেখানোর অভিযোগও রয়েছে। পরে মার্কিনী এই টেক জায়ান্টটি ওই বিভাগ চালাতে চুক্তিভিত্তিক লোক নিয়োগ করে  ও সমালোচনার মুখে পড়ে। সেখানে ফেসবুকের খবর দেখানোর সময় পক্ষপাত করা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করা হয়। পরে তারা এই ফিচারটি বাদ দেয়।   

কিন্তু প্রতিষ্ঠানটি এবার সরাসরি সাংবাদিক নিয়োগ দেওয়ার বিষয়টিকে বেশ জোর দিচ্ছে। যেখানে তারা পূর্ণকালীন কর্মী হিসেবে সাংবাদিক নিয়োগের পাশাপাশি খবর প্রকাশের মাধ্যমগুলোকেও অর্থ দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে।  খবর প্রকাশকদের সঙ্গে ফেসবুকের সাম্প্রতিক এক আলোচনার পর পূর্ণকালীন সাংবাদিক নিয়োগের বিষয়টি চূড়ান্ত করা হয়েছে বলেও অনলাইন ট্রেড ম্যাগাজিন ডিজিডের এক প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয়।  সেই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, অ্যাপল খবর তুলে আনার জন্য যে ধরনের উদ্যোগ নিয়েছে,  ফেসবুক ততটা উদ্যোগ নেয়নি। অ্যাপল নিউজ চালু করার সময় ৩০ জন সাংবাদিক নিয়োগ দিয়েছিল। সে তুলনায় ফেসবুক শুরুতে কয়েকজনকে নিয়ে কাজ শুরু করছে।

 প্রসঙ্গত, মার্ক জাকারবার্গ মার্চের শেষের দিকে ফেসবুকে নিউজ সেকশন চালুর ঘোষণা দেন। তখন তিনি ‘উচ্চমান ও নির্ভরযোগ্য’ গণমাধ্যম হয়ে ওঠার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। চলতি বছরের শেষ নাগাদ সেকশনটি চালুর পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানা যায়।  

জাকারবার্গ তার পরিকল্পনা সম্পর্কে বলেন, তার ভিশন ১০, ১৫ বা ২০ শতাংশ ফেসবুক ব্যবহারকারী এ সেকশনটি ব্যবহার করবে। উচ্চমানের সাংবাদিকতা ছড়িয়ে দিতে ফেসবুকের যথেষ্ট সক্ষমতা রয়েছে বলেও জানান তিনি।  

এদিকে চলতি বছরের শুরুর দিকে অ্যাপল নিউজ কন্টেন্টের সাবস্ক্রিপশন সেবা চালু করে। আর এ ঘোষণার কিছুদিনই পরই মার্ক জাকারবার্গ ফেসবুকে ডেডিকেটেড নিউজ সেকশন যুক্ত করার ঘোষণা দেন।

ওডি/টিএফ 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড