• সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

ভিনগ্রহে মিলল পানির সন্ধান, দাবি নাসার

  প্রযুক্তি ডেস্ক

১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:৩৬
নতুন গ্রহ
কে-টু-১৮বি গ্রহে পানির সন্ধান। (ছবি : ইন্টারনেট)

মহাকাশ গবেষণায় আবারও বড় ধরনের সাফল্য। একটি তারাকে প্রদক্ষিণকারী এক গ্রহ বসবাসযোগ্য বলে এই প্রথমবারের মতো প্রমাণ পেয়েছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। তারা এটাও বলছেন, এই গ্রহ যে কক্ষপথে ঘুরছে তাও বসবাসযোগ্য এলাকার মধ্যে।

মহাশূন্যের একটি অজানা গ্রহে পানির সন্ধান মিলেছে। চাঞ্চল্যকর দাবি করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (নাসা)। নাসার হাবল স্পেস টেলিস্কোপে ধরা পড়েছে সেই গ্রহ।

মার্কিন গবেষণা সংস্থা কেন্দ্র নাসা জানিয়েছে, যেহেতু পানির সন্ধান মিলেছে ফলে সেখানে প্রাণের অস্তিত্ব থাকলেও থাকতে পারে দাবি নাসার। ওই গ্রহটির নাম দেয়া হয়েছে ‘‌কে ২ ১৮বি’।‌ এই গ্রহটি ২০১৫ সালে প্রথমে নাসার কেপলার মহাকাশযানের নজরে আসে।

জানা গেছে, পৃথিবী থেকে কে-টু-১৮বি গ্রহের দূরত্ব ১১১ আলোক বর্ষ দূরে অবস্থান করছে অর্থাৎ প্রায় ৬৫০ মিলিয়ন মাইল দূরে। অনুসন্ধানী মহাকাশযান পাঠানোর জন্য যা খুবই দূরে।

বিজ্ঞানীরা জানায়, ওই গ্রহটির বায়ুমণ্ডলে আদ্রতা আছে। এ কারণে সেখানে জলের অস্তিত্ব থাকতেই হবে। আর সেই কারণে সেখানে কোনো প্রাণের অস্তিত্ব রয়েছে কি না তার জন্য জোর সন্ধান চালাচ্ছে নাসার বিজ্ঞানীরা।

নাসার বিজ্ঞানীদের দাবি করেছেন, পৃথিবীর ভরের প্রায় আটগুণ ‘‌কে-টু-১৮বি’ গ্রহটি ভর। এই গ্রহটিও পৃথিবীর মতো একটি নক্ষত্র জগতে অবস্থান করছে। যে নক্ষত্রকে কেন্দ্র করে এই গ্রহ ঘুরছে, সেই নক্ষত্রটি সূর্যের থেকে অনেকটাই ছোট। ওই নক্ষত্রটি থেকে যে দূরত্বে ‘‌কে-টু- ১৮ বি’ গ্রহটি অবস্থান, তাতে প্রাণিজগত গড়ে ওঠার প্রবল সম্ভাবনা আছে।

বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, এই গ্রহটি পৃথিবীর একাধিক বৈশিষ্ট্য বহন করছে, এ কারণে সেখানে প্রাণিজগতের অস্তিত্ব থাকলেও থাকতে পারে বলে তাদের ধারণা।

ওডি/টিএএফ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড