• বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

প্রথমবারের মতো ব্ল্যাক হোলের ছবি প্রকাশ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১১ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:১০

আলবার্ট আইনস্টাইন ‘জেনারেল থিওরি অব রিলেটিভিটির’ মাধ্যমে ব্ল্যাক হোলের অস্তিত্বের ব্যাপারে যে ধারণা দেন তার প্রমাণস্বরূপ যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল সায়েন্স ফাউন্ডেশন (এনএসএফ) এই প্রথম ব্ল্যাক হোলের ছবি প্রকাশ করেছে। এই ছবিটি ধারণ করা হয় পৃথিবীব্যাপী স্থাপিত আটটি ‘ইভেন্ট হরিজোন টেলিস্কোপের' মাধ্যমে। ২৯ বছর বয়সী নারী কেটি বিউম্যানের তৈরি কম্পিউটার প্রোগ্রামের মাধ্যমেই ব্ল্যাক হোলের এই ছবিটি ধারণ করা সম্ভব হয়। পৃথিবী থেকে প্রায় ৩০ লাখ গুণ বড় এবং ৫০০ মিলিয়ন ট্রিলিয়ন কিলোমিটার দূরে এম৮৭ নামের এক দূরবর্তী ছায়াপথ থেকে এই ব্ল্যাক হোলের ছবি তোলা হয়। 

এনএসেফের সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, এক দশক ধরে ২০০ জন বিজ্ঞানীর নিরলস প্রচেষ্টার ফলস্বরূপ ২০১৭ সালের এপ্রিলে টেলিস্কোপের বৈশ্বিক নেটওয়ার্ক ইভেন্ট হরিজন টেলিস্কোপ কোলাবোরেশন ব্ল্যাক হোলের পর্যবেক্ষণ ও এর ছবি তুলতে কাজ করে। এই ব্ল্যাক হোলের ভর সূর্যের চেয়েও ৬৫০ কোটি গুণ বেশি। এটি ব্রহ্মাণ্ডের সবচেয়ে ভারী ব্ল্যাক হোলের মধ্যে অন্যতম।

পদার্থবিজ্ঞানী জন হুইলারের দেওয়া ধারণা অনুসারে এই বিশ্ব ব্রহ্মাণ্ডে এমন কিছু তারকা বা নক্ষত্র রয়েছে যারা এমন শক্তিশালী মহাকর্ষ বলয় তৈরি করে যে- এটি তার কাছাকাছি চলে আসা যে কোনো বস্তুকে আকর্ষণ করে টেনে নিয়ে যায়। সেই তত্ত্ব অনুসারে, ব্ল্যাক হোল ব্রহ্মাণ্ডের এমন একটি বিশেষ স্থান, যেখান থেকে কোনো কিছু এমনকি আলো পর্যন্ত বের হয়ে আসতে পারে না। পথ হারায় আলোকতরঙ্গও। এই ব্ল্যাক হোলের চারপাশে ছড়িয়ে রয়েছে উজ্জ্বলতম আলোকবলয়।

ইএইচটির ডিরেক্টর শেপার্ড ডোয়েলেম্যান বলেন, ’আসলে আমরা এমন কিছু দেখে ফেলেছি, যা আমাদের কাছে মনে হয়েছিল দেখা যাবে না।’

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড