• শনিবার, ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৪ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ২৩ °সে
  • বেটা ভার্সন

মাত্র ৫ মিনিটেই শনাক্ত হবে বেওয়ারিশ লাশ!

  অধিকার ডেস্ক    ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:৫১

লাশ
বেওয়ারিশ লাশ

নাম-পরিচয়হীন লাশের পরিচয় শনাক্ত করতে বিশেষ এক পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন-পিবিআই। তারা একটি সফটওয়্যার তৈরি করেছে যেখানে মাত্র ৫ মিনিটেই জানা যাবে অজ্ঞাত লাশের পরিচয়।  

সাধারণত পুলিশ হত্যা, সড়ক দুর্ঘটনাসহ বিভিন্ন অপঘাতে মৃত্যু হওয়া মানুষের লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।
 
প্রতিদিন দুই থেকে তিনটি অজ্ঞাতপরিচয় লাশ এ মর্গে নিয়ে আসা হয়। সংশ্লিষ্টদের এসব লাশের পরিচয় শনাক্তে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় ।
 
শনাক্ত না হওয়ায় ফলে অনেক লাশের পরিচয় যেমন খুঁজে পাওয়া যায় না, তেমনি অনেক মৃত্যুর রহস্য উদঘাটনও হয় না।  এসব লাশ বেওয়ারিশ হিসেবে দাফন করা হয়। 

ধারণা করা হচ্ছে, পিবিআইর এ বিশেষ পদ্ধতি শতভাগ কার্যকর হলে বেওয়ারিশ লাশের সংখ্যা কমে আসবে। পরীক্ষামূলকভাবে এ প্রক্রিয়ায় পিবিআই বেশ কিছু অজ্ঞাতপরিচয় লাশ শনাক্ত করেছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। 
 
পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের প্রধান ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদার এই সফটওয়্যার সম্পর্কে বলেন, এ প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে দুই বছরের বেশি সময় লেগেছে। এ সফটওয়্যারটির মাধ্যমে অটো লাইভে পরিচয় শনাক্ত হয়।

শনাক্তকরণের প্রক্রিয়া সম্পর্কে তিনি বলেন, ওই সফটওয়্যারের মোবাইল ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানারের মাধ্যমে প্রথমে তার দুই হাতের মধ্যমা ও বৃদ্ধাঙ্গুলের চাপ সংগ্রহ করা হয়। যাকে আমরা লাইভ ফিঙ্গারপ্রিন্ট বলি।

ফিঙ্গারপ্রিন্ট গ্রহণের পর সফটওয়্যারটি তা কনভার্ট করে পিবিআই সদর দপ্তরে অবস্থিত ‘সেন্ট্রাল অ্যাপ্লিকেশন সার্ভারে’ প্রেরণ করে। সেখান থেকে এ ফিঙ্গারপ্রিন্ট নির্বাচন কমিশনে রক্ষিত ‘ফিঙ্গারপ্রিন্ট ডাটাবেজে’ অটো চলে যায়। এরপর তা রিড করতে শুরু করে।

সেখান থেকে ওই ব্যক্তির ছবি, ঠিকানাসহ সব তথ্য নিয়ে মুহূর্তেই খুঁজে বের করে পিবিআই সদর দপ্তরের ল্যাবে চলে আসে। এখানে রেকর্ড জমা রেখে যেখান থেকে ফিঙ্গারপ্রিন্ট পাঠানো হয়েছিল, সেখানে চলে যায়। ফিঙ্গারপ্রিন্ট ম্যাচ হয়েছে কি না, তখন তা জানিয়ে দেয়। এই পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সময় নেয় মাত্র ৫ মিনিট।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড