• শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ২ মাঘ ১৪২৭  |   ১৫ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

আনারসের পাতার ড্রোন: অবাক বিশ্ব

  প্রযুক্তি ডেস্ক

১০ জানুয়ারি ২০২১, ১১:৪৯
ছবি : সংগৃহীত

ড্রোন শব্দের অর্থ হল গুঞ্জন। ড্রোনের উড়ে চলার শব্দ মৌমাছির গুন গুন করে চলার মত। আর ড্রোন এর প্রথম শর্ত হল যেকোনো ড্রোনে অবশ্যই ক্যামেরা থাকবে এবং পাইলটবিহীন হবে। ড্রোনের নজরদারি সর্বত্র। বৈজ্ঞানিক কোনও রিসার্চ থেকে শুরু করে যে কোনও এলাকার নজরদারিতে এখন ড্রোন অপরিহার্য। শুধু তাই নয়, সিনেমার শুটিং, প্রডাক্ট ডেলিভারি, পার্টি, এমনকী ইদানিংকালে মিটিং-মিছিলেও ড্রোনের ব্যবহার ব্যাপক হারে বেড়েছে। এবার মালয়েশিয়ার একদল বিজ্ঞানী খুবই স্মার্ট পদ্ধতিতে ড্রোনের চিত্তাকর্ষক এক রূপ দিলেন।

মালয়েশিয়ান সেই গবেষকেরা অদ্ভুত পদ্ধতির সাহায্যে পরিত্যক্ত আনারসের পাতা রূপান্তরের মাধ্যমে এমনই অসাধারণ এক উপাদান তৈরি করেছেন, যা দিয়ে অনায়াসে ড্রোনের ফ্রেমস তৈরি করেছেন। বিশেষজ্ঞ মহলের দাবি, সুদূরপ্রসারী ভাবনা। পাশাপাশিই তারা আরও দাবি করছেন, এই ধরনের ড্রোন আদপে তৈরি হলে তার দামও যেমন কম হবে, সেই সঙ্গে বস্তুটিও শক্তিশালী এবং পরিবেশ-বান্ধব হবে।

সম্প্রতি সংবাদমাধ্যম রয়টার্সের একটি রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, এই প্রজেক্ট যিনি নেতৃত্ব দিচ্ছেন, তার নাম মহম্মদ তারিখ হামিদ সুলতান। মালয়েশিয়ার পুত্রা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক তিনি। কুয়ালালামপুর থেকে মাত্র ৬৫ কিমি দূরেই অবস্থিত এই বিশ্ববিদ্যালয়।

বিগত কিছু বছর ধরেই এই বিষয়ে রিসার্চ চালাচ্ছেন মহম্মদ তারিখ। রয়টার্সের রিপোর্ট থেকে জানা গিয়েছে, শুধু ড্রোনই নয়, আরও নানাবিধ অ্যারোস্পেস অ্যাপ্লিকেশনেই আনারসের পাতা রূপান্তর করে একটি ফাইবারের রূপ দিয়ে এমনতর কাজ করার উদ্যোগ নিয়েছেন পুত্রা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেই প্রফেসর।

সম্প্রতি মহম্মদ তারিখ এবং তার দল সেই আনারসের পাতা থেকে ফাইবারটি তৈরি করে ফেলেছেন, যা ড্রোনের বিভিন্ন অংশে কাজে লাগবে। রয়টার্সের কাছে গবেষক তারিখ জানিয়েছেন, জৈব কোনও উপাদান থেকে তৈরি করা ড্রোন অনেকাংশেই সিন্থেটিক ফাইবার দ্বারা নির্মিত ড্রোনের তুলনায় শক্তিশালী। শক্তি, ওজন সব দিক থেকেই জৈব উপায়ে নির্মিত ফাইবারের ড্রোন সেরা।

ড্রোনগুলো ১০০০ মিটার অবধি উড়তে পারে এবং বাতাসে কমপক্ষে ২০ মিনিট অবধি ভেসে থাকতে পারবে এই বিশেষ প্রযুক্তির ড্রোন। গবেষকেরা এখন ছক কষছেন যাতে এই একই পদ্ধতি ব্যবহার করে আরও একটু বড় মাপের ড্রোন তৈরি করা যায়, যেগুলো রিয়েল-লাইফে প্রতিটি ক্ষেত্রেই ব্যবহার করা যায়।

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড