• সোমবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩ আশ্বিন ১৪২৭  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

উইন্ডোজ ৭ ব্যবহারকারীরা কি এখনো নিরাপদ!

১৬ জানুয়ারি ২০২০, ১৬:০৬
উইন্ডোজ ৭
ছবি : উইন্ডোজ ৭

চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারি থেকে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম উইন্ডোজ ৭ এর অফিশিয়াল আপডেট বন্ধ করে দিয়েছে। তবে এখনো অনেকেই আছেন যারা উইন্ডোজ ৭ ছাড়ার কথা ভাবতেই পারছেন না।

উইন্ডোজ ৭ এতটা জনপ্রিয় ছিল যে এখনো এর ব্যবহারকারী মারাত্মক পরিমাণ। অনলাইন ওয়েবসাইট স্টেটকাউন্টার ডট কমের অনুসারে মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ৩৫ শতাংশ এখনো উইন্ডোজ ৭ ব্যবহার করছে। তারা ওয়েব ব্রাউজার থেকে ডাটা কালেক্ট করে কোন কোন অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহৃত হচ্ছে সে ডাটা তৈরি করে।

তাদের ডাটা অনুযায়ী বর্তমানে মোট ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর ৫৩ শতাংশ উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করছে এবং গত বছর ১০ শতাংশ ব্যবহারকারী উইন্ডোজ ৭ থেকে উইন্ডোজ ১০ এ আপডেট করেছে। অর্থাৎ এখনো সম্পূর্ণ ইন্টারনেট ট্র্যাফিকের প্রায় ৩ ভাগের ১ ভাগ হচ্ছে উইন্ডোজ ৭ ব্যবহারকারী।

বর্তমানে উইন্ডোজ ৭ অ্যাবানডানওয়্যারে পরিণত হয়ে গেছে। যদিও ২০২৩ সাল পর্যন্ত অপারেটিং সিস্টেমটির পেইড সাপোর্ট পাওয়া যাবে। তবে এটা ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকাই ভালো।

উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমের যেকোনো ভার্সনকে মাইক্রোসফট মূলত ১০ বছরের সাপোর্ট দিয়ে থাকে। এর মধ্যে প্রথম ৫ বছর হচ্ছে মেইনস্ট্রিম সাপোর্ট। এর মধ্যে ফিচার আপডেট, ডিজাইন আপডেট, ইউআই আপডেট, সিকিউরিটি আপডেট, বাগ ফিক্স রয়েছে। আর পরের ৫ বছর মাইক্রোসফট এক্সটেন্ডেড সাপোর্ট প্রদান করে যেখানে শুধুমাত্র বাগ ফিক্স এবং সিকিউরিটি আপডেট প্রদান করা হয়।

যদিও উইন্ডোজ ৭ এর মেইনস্ট্রিম ২০১৫ তে শেষ হয়ে গিয়েছিল। তবে এর জনপ্রিয়তার জন্য মেইনস্ট্রিম সাপোর্ট বাড়ানো হয়েছিল। এখন তো এর বর্ধিত সময়ও শেষ হয়ে গেছে।

সম্প্রতি উইন্ডোজ ৭ ব্যবহার করা বিপদের কারণ হতে পারে। যেহেতু উইন্ডোজ ৭ এর সিকিউরিটি আপডেট ও বাগ ফিক্স বন্ধ হয়ে গিয়েছে, তাই এই অপারেটিং সিস্টেম এখন হ্যাকারদের টার্গেটে থাকবে। ইচ্ছামতো ম্যালিসিয়াস কার্যক্রম চালাবে। এই রকম একটা অপারেটিং সিস্টেম তো হ্যাকারদের কাছে স্বর্গের সমতুল্য।

উইন্ডোজ ৭ ব্যবহারকারীদের মধ্যে কেউ কেউ হয়তো ২০২৩ সাল পর্যন্ত পেইড ভার্সন ব্যবহার করার কথা ভাবছেন। কিন্তু ২০২৩ সাল পর্যন্ত যে সিকিউরিটি আপডেটগুলো রিলিজ করা হবে, তা এক্সট্রা টাকা পরিশোধ না করে ডাউনলোড করা যাবে না। অর্থাৎ প্রতিটি আপডেটের জন্য আপনাকে আলাদা আলাদা টাকা পরিশোধ করতে হবে।

যদিও মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ ৭ এর সময় বাড়ানোর পেছনে কিছু কারণ আছে। অনেক কোম্পানিই উইন্ডোজ ৭ নির্ভর সিস্টেম সফটওয়্যার ব্যবহার করছে। এখন যদি হঠাৎ করে উইন্ডোজ ৭ বন্ধ করে দেওয়া হয়, তবে এসব কোম্পানিকে দেখতে লোকসানের মুখ। অন্যদিকে তারা যদিও অপারেটিং সিস্টেম আপগ্রেড করে সিস্টেম সফটওয়্যার ব্যবহার করে, তবে কর্মরত সবাইকে ট্রেনিং দিতে হবে। অল্প সময়ের মধ্যে সেটা করা মোটেও সহজ কাজ নয়।

আরও পড়ুন : অফিশিয়াল সাপোর্ট পাচ্ছে না আর উইন্ডোজ ৭

তাই কোম্পানিগুলোর কথা ভেবেই উইন্ডোজ ৭ এর সময় এক্সটেন্ড করা হয়েছে। তবে এই ৩ বছর এক্সটেন্ডেড সাপোর্ট নেওয়ার জন্য প্রত্যেক বছর গুণতে হবে ডাবল টাকা। উইন্ডোজ এডিশন অনুযায়ী উইন্ডোজ ৭ প্রো এর ক্ষেত্রে প্রথম বছরে ৫০ ডলার, দ্বিতীয় বছরে ১০০ ডলার ও তৃতীয় বছরে ২০০ ডলার এবং উইন্ডোজ ৭ এন্টারপ্রাইজের ক্ষেত্রে প্রথম বছর ২৫ ডলার, দ্বিতীয় বছর ৫০ ডলার এবং তৃতীয় বছরের জন্য ১০০ ডলার পরিশোধ করতে হবে।

আপনি যদি একজন হোম ইউজার হোন, তাহলে সেক্ষেত্রে এত খরচ করে উইন্ডোজ ৭ ব্যবহার করা অবশ্যই কষ্টকর। তাই এখন থেকেই উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করতে পারেন। উইন্ডোজ ১০ ও অসাধারণ একটি অপারেটিং সিস্টেম। এতে ৬ মাস অন্তর অন্তর নতুন ফিচার যুক্ত করা হচ্ছে এবং প্রতিনিয়ত সিকিউরিটি আপডেটসহ অন্যান্য আপডেট হচ্ছে।

তাই নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে উইন্ডোজ ৭ ব্যবহার না করে উইন্ডোজ ১০ ব্যবহার করাই উত্তম।

ওডি/এওয়াইআর

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড