• বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

জাল হাদিসের খপ্পরে রাসূলুল্লাহ (সা.) (১ম পর্ব)

  অধিকার ডেস্ক    ২৭ নভেম্বর ২০১৮, ১০:৫২

রাসূল
ছবি : প্রতীকী

কুরআন কারীমে অগণিত আয়াতে এবং সহীহ হাদিসে রাসূলুল্লাহ (সা.) এর সীমাহীন ও অতুলনীয় মর্যাদা, ফযীলত, মহত্ব ও গুরুত্ব বর্ণনা করা হয়েছে। তথাপিও আমরা দেখতে পাই যে, এ সকল আয়াত ও সহীহ হাদিস বাদ দিয়ে এক শ্রেণীর আলেম নামধারী ওয়ায়েজ-বক্তা একেবারে ভিত্তিহীন, মিথ্যা, জাল, বানোয়াট ও অত্যন্ত দূর্বল সূত্রে বর্ণিত হাদীসগুলো গুরুত্ব সহকারে ওয়ায-নসিহত মাহফিলে আলোচনা করে থাকেন। 

কেউ কেউ মনে করে থাকেন যে, রাসূলুল্লাহ (সা.) এর নামে মিথ্যা বলা দ্বারা আমরা তাঁর মর্যাদা বৃদ্ধি করে থাকি। কত জঘন্য চিন্তা! তাঁর মর্যাদা মিথ্যা কথা দিয়ে বাড়াতে হবে! নাউযুবিল্লাহ! মহান আল্লাহ তাআলা ও তাঁর রাসূলুল্লাহ (সা.) সবচেয়ে অসন্তুষ্ট হন মিথ্যা কথা এবং সবচেয়ে জঘন্য মিথ্যা হলো আল্লাহ ও তাঁর রাসূলুল্লাহ (সা.) এর নামে মিথ্যা বলা। এখনে রাসূলুল্লাহ (সা.) কেন্দ্রিক কিছু মিথ্যা কথা উল্লেখ করা হচ্ছে, যা আমাদের সমাজে প্রচলিত হয়ে আছে- 

১) রাসূলুল্লাহ (সা.) জন্ম থেকেই কুরআন জানতেন- 

আল্লামা আব্দুল হাই লাখনবী হানাফী রাঃ. বলেন, রাসূলুল্লা (সা.) এর নামে এটি একটি জাল, ভিত্তিহীন ও মিথ্যা কথা যে, তিনি জন্মলগ্নথেকেই কুরআন জানতেন এবং পাঠ করতেন। (কিতাবুল আ-সার-৩৮পৃঃ) 

এ কথা শুধু মিথ্যাই নয় বরং কুরআনের বিভিন্ন আয়াতের সুস্পষ্ট বিরোধী।

আল্লাহ তাআলা বলেন, হে নবী! তুমি তো আদৌ জানতেই না আল্লাহ তাআলার কিতাব কী আর না তুমি জানতে ঈমান কী? (সূরা আশশুরা- ৫২)

আল্লাহ তাআলা অন্যত্রে বলেন, তুমি তো কখনো এ আশা করোনি তোমার উপর কোনো কিতাব অবতীর্ণ হবে, এটা ছিল তোমার মালিকের একান্ত মেহেরবানী যে (তোমাকে তোমার মালিক কিতাব দান করেছেন)। (সূরা আল কাসাস- ৮৬)

২) রাসূলুল্লাহ (সা.) জন্ম থেকেই লেখাপড়া জানতেন- 

আল্লামা আব্দুল হাই লাখনবী হানাফী রাঃ. বলেন, ওয়ায়িজ বা বক্তাদের আরেকটি মিথ্যা জাল হাদীস যে, রাসূলুল্লাহ (সা.) উম্মী বা নিরক্ষর ছিলেন না। তিনি প্রকৃতিগতভাবে শুরু থেকেই লিখতে ও পড়তে সক্ষম ছিলেন। (কিতাবুল আসার- ৩৮ পৃ)

এই কথাটিও ভিত্তিহীন ও মিথ্যা এবং কুরআনের সুস্পষ্ট বিরোধী।

আল্লাহ তাআল বলেন, হে নবী! তুমি তো (এ কুরআন অবতীর্ণ হয়ার আগে) কোনো বই-পুস্তক পাঠ করোনি, আর তুমি তোমার ডান হাত দিয়ে কিছু লিখে রাখনি যে, মিথ্যার পুজারীরা তা দেখে আজ সন্দেহে লিপ্ত হয়ে পড়েছে। (সূরা আল আনকাবূত- ৪৮)

৩) “তোমাকে সৃষ্টি না করলে আসমান জমিন বা মহাবিশ্ব সৃষ্টি করতাম না। (আল মাউযূআ’ত-  ৫২ পৃ, আল আসরার- ১৯৪ পৃ, আল মাসনূ- ১১৬ পৃ, কাশফুল খাফা- ২/২১৪, আলআসারুল মারফুআ- ৪৪ পৃ)

আল্লমা সাগানী, মোল্লা আলী ক্বারী হানাফী, আল্লমা আব্দুল হাই লাখনবী হানাফী রাঃ ও অন্যান্য মুহাদ্দীসগন এক বাক্যে এ কথাটিকে জাল ও ভিত্তিহীন বলে উল্লেখ করেছেন। কারণ এই শব্দে বা এই বাক্যে কোনোপ্রকার সূত্রে (সনদে) কোন হাদিস গ্রন্থে হাদীস বর্ণিত হয়নি। উল্লেখ্য যে, এই শব্দে নয় তবে এই অর্থে দূর্বল বা মাউযূ হাদিস বর্ণিত হয়েছে।

লেখক : মাওলানা আখতারুজ্জামান খালেদ, ইমাম ও খতীব।
 

প্রচলিত কুসংস্কারের বিরুদ্ধে ধর্মীয় ব্যখ্যা, সমাজের কোন অমীমাংসিত বিষয়ে ধর্মতত্ত্ব, হাদিস, কোরআনের আয়াতের তাৎপর্য কিংবা অন্য যেকোন ধর্মের কোন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, সর্বপরি মানব জীবনের সকল দিকে ধর্মের গুরুত্ব নিয়ে লিখুন আপনিও- [email protected]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
SELECT id,hl2,parent_cat_id,entry_time,tmp_photo FROM news WHERE ((spc_tags REGEXP '.*"people";s:[0-9]+:"রাসূল".*')) AND id<>30864 ORDER BY id DESC LIMIT 0,5

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড