• শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

লন্ডনে শ্রীপুর ভিলেজ ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

  মুহিব উদ্দিন চৌধুরী, যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি

১৬ জুলাই ২০২২, ০০:২২
লন্ডনে শ্রীপুর ভিলেজ ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
শ্রীপুর ভিলেজ ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন করা হচ্ছে (ছবি : অধিকার)

ব্রিটিশ জনগণ এবং বাংলাদেশি কমিউনিটির মধ্যে স্বাস্থ্য বিষয়ে ‘অসমতা’ দূর করার আহ্বান জানিয়েছেন লেবার পার্টির এমপি টিউলিপ সিদ্দিক। নতুন করে বাড়তে থাকা কোভিড সংক্রমণ রুখতে তিনি এ আহ্বান জানিয়েছেন। নর্থ লন্ডনের হাইগেটের এক রেস্টুরেন্টে দেশটির মা ও শিশুদের নিয়ে কাজ করা দাতব্য সংস্থা ‘শ্রীপুর ভিলেজ’ এর ৩৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত মঙ্গলবার (১২ জুলাই) এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে টিউলিপ এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, কোভিড মহামারি শুরুর পর সেখানে বসবাসরত বাংলাদেশিরা ‘বৈষম্যের’ শিকার হওয়ায় স্বাস্থ্যগত ভোগান্তিতে পড়েছেন। তাতে ব্রিটিশদের চেয়ে বাংলাদেশিদের মৃত্যুর ঝুঁকি ‘দ্বিগুণ’ হয়ে যায়। তাই সবাইকে টিকা নিতে হবে।

অনুষ্ঠানে মা ও শিশুদের নিয়ে কাজ করা দাতব্য সংস্থা ‘শ্রীপুর ভিলেজ’ নিয়েও কথা বলেন টিউলিপ সিদ্দিক। এর প্রতিষ্ঠাতা ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের সাবেক কেবিন ক্রু প্যাট কারের প্রশংসাও করেন তিনি।

টিউলিপ জানান, তিনি এ সংস্থার সম্পর্কে জানতে পারেন তার মা শেখ রেহানার মাধ্যমে। “আপনারা অনেকেই আমার মাকে চেনেন এবং তাকে খুশি করা খুব কঠিন। তিনিই আমার কাছে প্যাট কার এবং তার কাজের প্রশংসা করেন।“

সংস্থার ট্রাস্টি ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের কেবিন ক্রু ও রেস্তোরাঁ ব্যবসায়ী সাব্বির করিমের তহবিল সংগ্রহের কথা তুলে ধরে ‘শ্রীপুর ভিলেজ’ এর জন্য সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিতে অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবার প্রতি আহ্বান জানান বঙ্গবন্ধুর নাতনি টিউলিপ।

মুহিব উদ্দিন চৌধুরী, যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি

অনুষ্ঠানে উপস্থিত অতিথিরা (ছবি : অধিকার)

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- কেমডেন কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলর নাসিম আলী ওবিই, যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের ডেপুটি হাইকমিশনার জাহিদুল ইসলাম ও শ্রীপুর ভিলেজ ট্রাস্ট এর প্রতিষ্ঠাতা প্যাট কার।

শ্রীপুর ভিলেজের প্রতিষ্ঠাতা প্যাট কার বলেন, সংস্থা পরিচালনা ও উন্নয়ন তার কাজ হলেও তহবিল সংগ্রহে তিনি পটু নন। তহবিল সংগ্রহ করে দাতব্য সংস্থাটিকে চালিয়ে নেওয়ার জন্য প্যাট তার টিমের সদস্য এবং দাতাদের প্রশংসা করেন।

প্যাট জানান, দীর্ঘদিন বাংলাদেশে বসবাসের কারণে তিনি নাগরিকত্বের আবেদন করেছিলেন এবং বর্তমানে তিনি বাংলাদেশ নাগরিক।

কেমডেন কাউন্সিলের মেয়র কাউন্সিলর নাসিম আলী অনুষ্ঠানে প্যাট কারকে অভিনন্দন জানান। শ্রীপুর বিলেজ কার্যক্রমের প্রশংসা করে সকলের সাহায্য সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি গত তিন দশকের তুলনা টেনে বাংলাদেশের আর্থিক উন্নয়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করেন।

অনুষ্ঠানের আয়োজক সাব্বির করিম একজন ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের কেবিন ক্রু, পুরস্কার বিজয়ী শেফ এবং শ্রীপুর গ্রামের দাতব্য সংস্থার ট্রাস্টি, তার হাইগেটের নমস্তে রেস্টুরেন্টে ছিল এ উদযাপনমূলক মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন। সাব্বির করিম বহু বছর ধরে দাতব্য সংস্থার একজন আগ্রহী সমর্থক। শ্রীপুর গ্রামের সাথে তার গভীর সম্পর্ক রয়েছে এবং ২৫ বছর ধরে তিনি এ প্রকল্পের আন্তরিক সাথী।

সাব্বির তার বক্তব্যে বলেন, আমি ১৯৯৬ সালে হঠাৎ করেই শ্রীপুরের সাথে জড়িত হয়েছিলাম। আমাকে হিথ্রো থেকে ঢাকা ভ্রমণের জন্য ডাকা হয়েছিল। এবং আমি প্রথমবার একজন এয়ারলাইন ক্রু হিসাবে আমার মাতৃভূমিতে যেতে খুব উত্তেজিত ছিলাম।

তিনি আরও বলেন, পরের দিন, পুরো দলটি শ্রীপুর গ্রাম পরিদর্শন করতে গিয়েছিল এবং আমরা বাচ্চাদের সাথে সময় কাটিয়েছি, তারপর থেকে আমি শ্রীপুরের সাথে আমার সংযোগ অব্যাহত রেখেছি, এবং বিগত ৫ বছর ধরে আমি একজন ট্রাস্টি। এটি একটি দুর্দান্ত দাতব্য অফার– পুষ্টিকর খাবার, স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা এবং দক্ষতার সাথে মায়েদের ক্ষমতায়ন যা তাদেরকে স্বাধীনভাবে তাদের পরিবারের জন্য একটি টেকসই ভবিষ্যত প্রদান করতে সক্ষম করবে।

শ্রীপুর ভিলেজের ট্রাস্টি ব্যবসায়ী সাব্বির করিম আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে মধ্যাহ্ন ভোজের মাধ্যমে তহবিল সংগ্রহের জন্য নিলাম ও র‍্যাফল ড্র পরিচালনা করেন কাউন্সিলর আব্দাল উল্লাহ।

অনুষ্ঠানে বিশেষভাবে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে ছিলেন- জালাল উদ্দীন আহমেদ, চিত্র নায়ক ফেরদৌস আহমেদ, আনিলা করিম, প্রফেসর টম সেলিন, সৈয়দ নাহাস পাশা, প্রফেসর ডক্টর সানাওয়ার চৌধুরী, কাউন্সিলর আবদাল উল্লাহ, কাউন্সিলর আব্দুল হাই ওবিই, ডক্টর জাকি রেজওয়ানা আনোয়ার, আব্দুল করিম গনি, আব্দুল করিম নাজিম, কাউন্সিলার পারভেজ আহমেদ, কাউন্সিলর শেরওয়ান চৌধুরী, কাউন্সিলর রিতা বেগম, মুরাদ কুরাইশী, মুহিব উদ্দিন চৌধুরী, ইয়াওর খান, ফারহান খান, নাজ আহমেদ, মিসবাহ আহমেদ, সাদিউল রহমান বিপুল, টিভি ক্যামেরা ব্যক্তিত্ব ফজলুল হক ও রেজাউল করিম মৃদা, বেকি হর্সবার্গ।

সংস্থাটিকে সহায়তার জন্য টিউলিপ ছাড়াও কাউন্সিলর আব্দুল হাই, মেয়র নাসিম আলীর হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন প্যাট কার ও সাব্বির করি।

উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের পক্ষ থেকে দেওয়া ৫০ হাজারের অ্যাভিওস পয়েন্টের উপহারস্বরূপ একটি ভাউচার নিলামে বিক্রির অর্থ সংস্থার তহবিলে দেয়া হয়।

প্রবাস জীবন, আকাঙ্খা, প্রত্যাশা-প্রাপ্তির সমীকরণ সবই লিখুন দৈনিক অধিকারকে [email protected] আপনার প্রবাস জীবনের প্রতিটি ক্ষুদ্র অনুভূতিও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড