• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

নিখোঁজের দুই বছরেও মেলেনি প্রবাসীর সন্ধান

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

২৪ মে ২০২২, ১৫:৩২
নিখোঁজের দুই বছরেও মেলেনি প্রবাসীর সন্ধান
মালয়েশিয়া নিখোঁজ হওয়া প্রবাসী মিরাজুল মণ্ডল (ছবি : সংগৃহীত)

নিখোঁজ হওয়ার দুই বছর পরও কোনো সন্ধান মেলেনি মালয়েশিয়া প্রবাসী মিরাজুল মণ্ডলের।

তিনি পাবনার আটঘোরিয়া উপজেলার একদন্ত ইউনিয়নের চৌকিবাড়ী গ্রামের দুলাল মণ্ডলের ছেলে। প্রবাসী ছেলেকে ফিরে পেতে দীর্ঘদিন যাবত সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্নস্থানে ধর্না দিচ্ছেন তার বাবা-মা। এরপর কোনো সন্ধান মেলেনি ভাগ্য পরিবর্তনের আশায় মালয়েশিয়ায় গিয়ে নিখোঁজ হওয়া মিরাজুলের।

পরিবারে একটু সচ্ছলতা ফেরাতে ২০১৮ সালের ২৮ মার্চ বাংলাদেশি রিক্রুটিং এজেন্সি মেসার্স ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনাল (আরএল-৫৪৯) কোম্পানির মাধ্যমে মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমিয়েছিলেন তিনি। দেশটিতে পৌঁছানোর পর ‘মালয়েশিয়ার ইয়াংসিং ইন্ডাষ্ট্রিজ- ইপু এসডিএন. বিএইচডি, কোম্পানিতে’ সাধারণ কর্মী হিসেবে যোগদানও করেছিলেন।

দেশটিতে প্রবেশের পর প্রথম দিকে নিয়মিত বাংলাদেশে টাকা পাঠাতেন এবং বাবা-মাসহ পরিবারের অন্য লোকজনের খোঁজখবর নিতেন মিরাজুল মণ্ডল কিন্তু হঠাৎ করেই ২০২০ সালের জানুয়ারি মাস থেকে তার সঙ্গে পরিবারের যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। তার আত্মীয়স্বজন কেউই জানেন না, মিরাজুলের কি হয়েছে? আদৌ সে বেঁচে আছে কি-না!

নিখোঁজ মিরাজুলের বাবা দুলাল মণ্ডলের অভিযোগ, মালয়েশিয়া যাওয়ার পর থেকে যথারীতি নভেম্বর ২০১৯ সাল পর্যন্ত আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখাসহ আমাকে তার বেতনের টাকাও পাঠাতেন। আমার ছেলের বেতন ভাতা বা চাকুরির কোন সমস্যা না থাকলেও সে মাঝে মধ্যে আমাকে টেলিফোনে বলতেন- তার রুমমেট পাবনার মিলন, কুমিল্লার ফরহাদ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সজিব তাকে নির্যাতন করতেন এবং টাকা-পয়সা কেড়ে নিতেন।

আরও পড়ুন : দ্রুতগতিতে ধ্বংস হবে ইসরায়েল, ইরানের ভবিষ্যদ্বাণী

তার অভিযোগ, বিভিন্ন সময় তারা আমার ছেলেকে মেরে ফেলার হুমকিও নাকি দিয়েছেন। এরপর ২০২০ সালের ১৭ জানুয়ারি আমার সঙ্গে শেষবার কথা বলার পর থেকেই তার আর কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। আমরাও তার সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে তার কোনো সন্ধান পাইনি। তাই মিরাজুলের তিন রুমমেটই তাকে অপহরণ করেছে বলে আমরা মনে করি।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, মিরাজুলের রুমমেট মিলন ও ফরহাদের সঙ্গে মুঠোফোনে কথা হলে তারা জানান- কোম্পানির সুপারভাইজার মিরাজুলকে রুম থেকে ডেকে পানিশমেন্ট রোমে নিয়ে যাওয়ার পর থেকে সে আর রুমে ফিরে আসেনি। এমনকি তারা জানেন না; আদৌ মিরাজুল বেঁচে আছে কি-না।

মিরাজুলকে খুঁজে পেতে বাংলাদেশ সরকারের সহায়তা চেয়েছেন তার পরিবারের সদস্যরা ও স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. লিয়াকত হোসেন আলাল।

সম্প্রতি মিরাজুলের সন্ধান চেয়ে বাংলাদেশের জনশক্তি, কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোতে এবং থানায় লিখিত আবেদন জমা দেওয়া হয়। এরপর সেখান থেকে কোনো ধরনের সহায়তা না পেয়ে পরবর্তীকালে সন্তানের খোঁজে বাংলাদেশি রিক্রুটিং এজেন্সি মেসার্স ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনাল (আরএল-৫৪৯) কর্তৃপক্ষের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বলে জানান মিরাজুলের বাবা।

এ দিকে মিরাজুলের মা একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে প্রায় বাকরুদ্ধ অবস্থাতে রাজধানীর মহাখালী ক্যান্সার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন। তবে অনেকেই আশা করছেন- সন্তানকে ফিরে পেলে হয়ত তিনি আবারও সুস্থ জীবনে ফিরে যেতে পারবেন।

আরও পড়ুন : আকাশে তেল পুড়িয়ে ঢাকায় নামল বিমান

বিষয়টি নিয়ে মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে সংশ্লিষ্টরা জানান, বাংলাদেশি নিখোঁজের বিষয়টি নিয়ে এরই মধ্যে নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের সহায়তা পেতে বিভিন্ন পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছে। খুব শীগগিরই মিরাজুল মণ্ডলের সন্ধান পাওয়া যাবে বলে আশা করা যায়।

ওডি/কেএইচআর

প্রবাস জীবন, আকাঙ্খা, প্রত্যাশা-প্রাপ্তির সমীকরণ সবই লিখুন দৈনিক অধিকারকে [email protected] আপনার প্রবাস জীবনের প্রতিটি ক্ষুদ্র অনুভূতিও আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড