• শুক্রবার, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, ২ কার্তিক ১৪২৬  |   ৩৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পূর্বাপর তুলে ধরতে কমিশন গঠনের দাবি 

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৩ আগস্ট ২০১৯, ১৬:২৯
বঙ্গবন্ধু পরিষদ
বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু পরিষদ আয়োজিত আলোচনা সভা (ছবি : আল আমিন পাটওয়ারী, দৈনিক অধিকার)

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকারীদের আংশিক বিচার হলেও এই হত্যাকাণ্ডের ষড়যন্ত্রে কারা ছিল এটা এখনও জাতির সামনে সঠিকভাবে উন্মোচিত হয়নি বলে মনে করছেন আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ও বিশিষ্টজনরা। তাই এই হত্যাকাণ্ডের পূর্বাপর বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে একটি কমিশন গঠনের জোরদাবি জানিয়েছে বঙ্গবন্ধু পরিষদ।

বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদাৎ বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে শুক্রবার (২৩ আগস্ট) সকাল ১০টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন (আইইবি) মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত আলোচনা সভায় এ দাবি জানানো হয়। 

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সংসদ সদস্য মুহাম্মদ শফিকুর রহমান ৭৫ এ জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বপরিবারে হত্যাকাণ্ড হতে শুরু করে ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের ষড়যন্ত্রে কারা ছিল এর তদন্তে উচ্চ পর্যায়ের কমিশন গঠনের উপর জোর দেন। 

২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার ঘটনায় প্রথম আলোর সম্পাদক মতিউর রহমানের একটি লেখার কথা উল্লেখ করে প্রেস ক্লাবের সাবেক এই সভাপতি বলেন, ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার পর খালেদা জিয়া প্রথম আলোর মতিউর রহমানকে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন। সেখানে মতিউর রহমান ২১ আগস্ট হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে প্রশ্ন তুললে খালেদা জিয়া তখন সরাসরি বলেছিলেন শেখ হাসিনাকে রাজপথে নামতে দেওয়া হবে না। তাকে রাজনীতি করতে দেওয়া হবে না। রাজনীতি থেকে তাকে একেবারে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়া হবে।

এর মানে কি দাঁড়ায় বলে প্রশ্ন তুলে তিনি বলেন, খালেদা জিয়া কি জানতেন না, বঙ্গবন্ধু হত্যার পূর্বে খালেদ মোশাররফরা সেনানিবাসে বৈঠক করে জিয়াউর রহমানকে কি বলেছিলেন?  

জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ও সংসদ সদস্য মুহাম্মদ শফিকুর রহমান

বঙ্গবন্ধু হত্যার পূর্বে জিয়া উর রহমানের সঙ্গে হত্যাকারীদের বৈঠকের বিষয় উল্লেখ করে শফিকুর বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পূর্বে জিয়াউর রহমানের সঙ্গে বৈঠক করে ষড়যন্ত্রকারীরা হত্যার বিষয় তাকে অবগত করেছিলেন। জবাবে জিয়া বলেছিলেন, তিনি সিনিয়র আর্মি অফিসার হিসেবে এধরনের কর্মকাণ্ডে সরাসরি অংশ নিতে পারেন না, তবে জুনিয়র অফিসাররা যদি চায়, তাহলে তারা এটা করতে পারে। 

জিয়ার এই বক্তব্যের দ্বারা পুরাপুরি বোঝা যায় তিনি বঙ্গবন্ধু হত্যার একজন খুনি বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান যেমন তার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেন নাই। ঠিক একইভাবে বেগম খালেদা জিয়াও তার দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করেন নাই। 

সভায় উপস্থিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্টের মূল উদ্দেশ্য ছিল জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে স্বপরিবারে হত্যা করা। কিন্তু সেদিন বিদেশ থাকার কারণে বেঁচে যান বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। তারা বেঁচে গিয়েছিলেন এটাই ছিল তাদের অপরাধ। আর এজন্যই ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আরেকটি হত্যার ষড়যন্ত্র করা হয়। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক

এসব হত্যাকাণ্ডের পিছনের মূল সত্যতা বের করে আনতে একটি কমিশন গঠনের উপর গুরুত্বারোপ করে আরেফিন সিদ্দিক বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই আমরা দেখেছি কোনো রাষ্ট্র নায়কের হত্যার পর তদন্ত কমিশন গঠন করা হয়, হত্যাকাণ্ডের পূর্বাপর তুলে ধরার জন্য। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের পূর্বাপর তুলে ধরার জন্যও তাই একটি কমিশন গঠন অত্যন্ত প্রয়োজন। 

তিনি আরও বলেন, মুশতাকরা আমাদের আশেপাশেই আছে। মুশতাকরা একেক সময় একেক রূপে জন্ম নেয়। আর এই মুশতাকদের আসল রূপ সকলের সামনে তুলে ধরতে প্রয়োজন একটি কমিশন গঠন। বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের মূল সত্যতাটাকে সবার সামনে তুলে ধরতেই কমিশনের প্রয়োজন। 

বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ডা. এস এ মালেকের সভাপতিত্বে উক্ত আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামান, মওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আলাউদ্দিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসী অনুষদের সাবেক ডীন অধ্যাপক আ ব ম ফারুক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কর্ম বিভাগের অধ্যাপক ড. সাদেকুল আরেফিন প্রমুখ।  

ওডি/এআর 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড