• সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

খালেদার ঈদের খাবারে পোলাও মাংস ডিম মাছ মিষ্টি পান-সুপারি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১২ আগস্ট ২০১৯, ১৪:১৯
খালেদা জিয়া
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া (ফাইল ফটো)

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়-বিএসএমএমইউ এর কেবিনে ঈদ করছেন ৫ বছরের কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। বিএসএমএমইউ-এ দ্বিতীয়বার ও বন্দি অবস্থায় খালেদা জিয়ার এটা ষষ্ঠ ঈদ।

ডিভিশনপ্রাপ্ত (বিশেষ সুবিধা) কারাবন্দি হিসেবে ঈদের দিন খালেদা জিয়ার জন্য হাসপাতালে বিশেষ খাবারের ব্যবস্থা করেছে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার কর্তৃপক্ষ।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগার সূত্র জানায়, ঈদের দিন সকালে খালেদা জিয়ার কেবিনে মুড়ি, পায়েস ও সেমাই পাঠানো হয়। কেন্দ্রীয় কারাগারের কারারক্ষীরা এগুলো তৈরি করেন। তবে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী আলাদাভাবে কম চিনি দিয়ে খালেদার খাবার তৈরি করা হয়েছে।

সোমবার (১২ আগস্ট) দুপুরের খাবার হিসেবে খালেদা জিয়ার কেবিনে পাঠানো হয় ভাত/পোলাও (ইচ্ছের ওপর নির্ভর করে), ডিম, রুই মাছ, মাংস ও আলুর দম। খালেদার দাঁতে সমস্যা থাকায় মাংস নরম করে রান্না করা হয়।

বিএনপির চেয়ারপারসনের জন্য সন্ধ্যার পর থাকছে পোলাও (নরম), কুরবানির গরু/খাসির মাংস, ডিম, ডায়াবেটিক মিষ্টি, কোমল পানীয় ও পান-সুপারি।

কারা সূত্র জানায়, এসব খাবার ছাড়াও একজন ডিভিশনপ্রাপ্ত কয়েদি হিসেবে খালেদা জিয়া অন্য কোনো খাবার খেতে চাইলে তা কারা কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে পারেন। তবে তাকে সেই খাবার দিতে বাধ্য নয় কর্তৃপক্ষ। রবিবার (১১ আগস্ট) পর্যন্ত কারা কর্তৃপক্ষের কাছে বিশেষ কোনো আইটেম তৈরির আবেদন করেননি খালেদা জিয়া।

ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের জেলার মাহাবুবুল ইসলাম মিলন বলেন, জেলকোড অনুযায়ী বেগম জিয়াকে খাবার দেওয়া হবে। ঈদের দিন তার পরিবারের সদস্যরা তার জন্য খাবার আনবেন। তিনি চাইলে সে খাবার খেতে পারবেন। তবে খাবার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাকে খেতে দেওয়া হবে।

গত ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজা ঘোষণার দিন থেকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কারাগারে ছিলেন তিনি। বর্তমানে তিনি বিএসএমএমইউতে ৬২১ নম্বর কেবিনে আছেন।

ওডি/এমআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড