• মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ৮ শ্রাবণ ১৪২৬  |   ৩১ °সে
  • বেটা ভার্সন

খালেদাকে 'হুমকি' মনে করেন হাছান

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১০ জুলাই ২০১৯, ১৭:৫৬
হাছান মাহমুদ
বইয়ের মোড়ক উম্মোচন অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। (ছবি : সংগৃহীত)

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএন‌পি দেশের জনগণের ভালো চায় না। জনগণ জানে বলেই তাদের এখন আর মানুষ ভোট দেয় না। যারা ক্ষমতার লোভে পেট্রোলবোমার রাজনীতি করে। সাধারণ মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে মারে। তাদের নেত্রী খালেদা জিয়া রাজনীতির জন্য বড় হুমকি।

বুধবার (১০ জুলাই ) জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর ইসলাম চৌধুরী হলে ‘সাংবাদিকতা রাত বিরাতে’ বইয়ের মোড়ক উম্মোচনকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সরকারের কোনো অর্জনই বিএনপির ভালো লাগে না, উন্নয়ন দেখলেই গাত্রদাহ শুরু হয় তাদের। উন্নয়নের কথা বলে যদি টাকা হাতিয়েই নেওয়া হতো তাহলে দারিদ্র্যের হার কীভাবে কমলো।

তথ্যমন্ত্রী বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, আপনি আয়নায় নিজের চেহারা দেখেন। আপনারা পাঁচবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। শেখ হাসিনার সরকার বাংলাদেশের মানুষের ভাগ্য পরির্বতন করেছে, দেশে উন্নয়নের জোয়ার বইছে।

গণতান্ত্রিক সমাজ গড়তে গণমাধ্যমের ভূমিকা খুবই জরুরি এমন কথা জানিয়ে তিনি বলেন, গণমাধ্যম এখন বহুমাত্রিক। গণতান্ত্রিক সমাজ গড়তে গণমাধ্যম খুবই জরুরি। গত ১০ বছরে গণমাধ্যমের ব্যাপক বিকাশ হয়েছে। নিবন্ধনের জন্য আট হাজারেরও বেশি অনলাইন নিউজ পোর্টালের আবেদন জমা পড়েছে। নয় কোটির বেশি মানুষ সোস্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে। এর ভালো দিক যেমন আছে, তেমনি খারাপ দিকও আছে। সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে গুজবও ছড়ানো হচ্ছে। এটিকে কীভাবে শৃঙ্খলায় আনা যায় তা ভাবতে হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অধ্যাপক সাখাওয়াত আলী খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢা‌বির সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, ইউএনবি চেয়ারম্যান আমানত উল্লাহ খান, প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

ওডি/এসএইচএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড