• সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন

এবার আড়ংয়ের শার্ট পুড়িয়ে ছাত্রলীগ নেতার প্রতিবাদ

০৪ জুন ২০১৯, ১৪:২৯
আড়ংয়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ
আড়ং বিরুদ্ধে ছাত্রলীগ নেতা আল আমিনের প্রতিবাদ (ছবি : সম্পাদিত)

আড়ংয়ে পণ্যের মূল্য অতিরিক্ত হারে বৃদ্ধির প্রতিবাদে ঝড় উঠেছে সারা দেশব্যাপী। এরই মধ্যে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন ভোক্তারা। এমনকি আড়ং থেকে কেনা ঈদের নতুন শার্ট পুড়িয়ে প্রতিবাদ করছেন ভোক্তারা। এরই ধারাবাহিকতায় এবার আড়ং এর শার্ট পুড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন এক ছাত্রলীগ নেতা। 

আড়ং এর শার্ট পুড়িয়ে ফেসবুকে ভিডিও প্রকাশ করে তাদের পণ্য বয়কটের প্রতিবাদ জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন রহমান। 

প্রকাশিত ভিডিওতে তিনি বলেন, ‘আড়ং যে ভয়ংকর রকমের প্রতারণা করেছে, এর প্রতিবাদে আমি এখন আড়ং এর যেই শার্টটি কিনেছিলাম সেটিতে আগুন দিবো। এটা হচ্ছে একধরনের প্রতিবাদ। যে প্রতিবাদের মাধ্যমে আমরা জানাতে চাই, কেউ যদি দেশের মানুষের সাথে প্রতারণা করে তাহলে প্রতিবাদ হবে। সেই ধারাবাহিকতায় আড়ং এর শার্টে আগুন দেওয়া হচ্ছে।’ 

এই বিষয়ে হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন দৈনিক অধিকারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, আড়ং তার জনপ্রিয়তার আড়ালে যে জোচ্চুরির আশ্রয় নিয়েছে, তারই প্রতিবাদে আমি এটা করেছি। আড়ং এর যে সুনাম, সেই সুনামের আড়ালে তারা যেই প্রতারণার আশ্রয় নিয়েছে সেটা আসলেই দুঃখজনক। যারই প্রতিবাদে কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মানুষ প্রতিবাদের ঝড় তুলেছেন।

একজন রাজনৈতিক কর্মী হিসেবে তার করণীয় সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন, একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের চেয়েও আমার বড় পরিচয় আমি এই দেশের একজন সচেতন নাগরিক এবং সেই হিসেবেই আমি আমার দায়িত্ব পালন করেছি।          

এছাড়া সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে আড়ং এর একটি শার্ট পুড়িয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন সজীব ওয়াফি নামের একজন ব্যক্তি। 

ফেসবুকে আড়ং এর শার্ট পোড়ানো ছবি প্রকাশ করে স্ট্যাটাস দিয়ে সজীব লিখেছেন, “আড়ং এর নিয়মিত গ্রাহক ছিলাম বলতে গেলে। লুটপাট যখন জায়েজ করা হবে, গণমানুষের উপর খবরদারি চলবে, শোষণ চলবে; তখন ঈদের নতুন জামা পুড়িয়ে হলেও আড়ং বর্জনের ডাক দিলাম....!!”   

প্রসঙ্গত, আড়ংয়ের উত্তরা শাখায় একই পোশাক এক সপ্তাহেরও কম সময়ের ব্যবধানে, প্রায় দ্বিগুণ দাম বাড়ানোর অভিযোগে সাড়ে ৪ লাখ টাকা জরিমানা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সাথে আউটলেটটি ২৪ ঘণ্টার জন্য বন্ধ করে দেয়া হয়।

সোমবার (৩ জুন) দুপুরে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে এ ব্যবস্থা নেয়া হয়।

জানা গেছে, মোহাম্মদ ইব্রাহিম নামে এক ক্রেতা গত ২৫ মে একটি পাঞ্জাবি ৭০০ টাকা দিয়ে কেনেন। একই পাঞ্জাবি ৩১ মে ১৩শ টাকা দিয়ে কিনতে হয় তাকে। পরে তিনি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরে অভিযোগ করলে, এই অভিযান চালানো হয়।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার বলেন, ‘৫ দিনের ব্যবধানে ৭০০ টাকার পণ্য হয়ে গেল ১৩০০ টাকা। এটি আমরা তদারকি করতে এসেছি, তাদের এই ব্যাপারে জিজ্ঞেস করেছি এবং পণ্যগুলোর ট্যাগে কি ধরনের কটন তা উল্লেখ নেই। এই আউটলেটকে ২৪ ঘণ্টার জন্য আমরা বন্ধ রেখেছি ও ৪ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে’।

আড়ংয়ের দাবি, কাপড়ের ব্যবধানের কারণে দামের ব্যবধান। এ ধরনের আরও প্রতারণার অভিযোগ পেলে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

আড়ংয়ের আউটলেটটি বন্ধ ঘোষণা করার কয়েক ঘণ্টা পরই ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারকে বদলির আদেশ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়। প্রজ্ঞাপনে তাকে আগামী ১৩ জুনের মধ্যে তাকে নতুন কর্মস্থলে যোগদানের নির্দেশ দেওয়া হয়।

সোমবার সন্ধ্যায় জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ওয়েব সাইটে বদলির আদেশটির প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়। জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, আগামী ১৩ জুনের মধ্যে মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারকে তার বদলি কর্মস্থলে যোগদান করতে হবে, অন্যথায় ১৩ জুন দুপুরে তার বর্তমান কর্মস্থল হতে তাৎক্ষণিকভাবে অবমুক্ত (স্ট্যান্ড রিলিজ) মর্মে গণ্য হবেন। তার নতুন কর্মস্থল সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তর খুলনা জোন। তাকে এস্টেট ও আইন কর্মকর্তা হিসেবে বদলি করা হলো।

এর পরে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে তীব্র সমালোচনার মধ্যে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের উপপরিচালক মঞ্জুর মোহাম্মদ শাহরিয়ারের বদলির আদেশ প্রত্যাহারের ঘোষণা দিলেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জনাব ফরহাদ হোসেন দোদুল।

ওডি/এআর 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড