• মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯, ৫ ভাদ্র ১৪২৬  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন

নুসরাতসহ নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে নামবে বিএনপি

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১২:২১
বিএনপি
বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (ছবি : প্রতীকী)

মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির হত্যাসহ দেশে সংঘটিত নারী নির্যাতনের প্রতিবাদে মাঠে নামবে বিএনপি। এই বিষয়ে শীঘ্রই কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।  

সোমবার (২২ এপ্রিল) রাতে রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) অথবা পরদিন বুধবার (২৪ এপ্রিল) সংবাদ সম্মেলন করে এই কর্মসূচি ঘোষণা দেওয়া হবে। 

এছাড়া বৈঠকের বিষয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক সদস্য জানান, নুসরাত জাহান রাফির হত্যাসহ সারাদেশে নারী নির্যাতন বেড়ে যাওয়ায় সবাই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। এসবের প্রতিবাদে কর্মসূচি দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের উপস্থিতিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলেও জানা গেছে। 

এর আগে বিএনপির একাধিক নেতা নুসরাত জাহান রাফির হত্যাকাণ্ডে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা জড়িত বলে অভিযোগ তুলেছেন। দেশে নারী ও শিশুসহ কেউ নিরাপদ নেই বলেও অভিযোগ করে বিএনপি। 

দেশের কোথাও নারী-শিশুরা নিরাপদ না বলে অভিযোগ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘তিন বছরের কন্যা শিশু থেকে শুরু করে ষাট বছরের বৃদ্ধা, প্রতিবন্ধী নারী, কেউই বাদ যাচ্ছে না। আর প্রতিটি ঘটনা ঘটাচ্ছে এই ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীরা। নাৎসিবাদের এই অবিস্মরণীয় মূর্তি এ দেশে আর কখনোই দেখা যায়নি। এগুলো গণতন্ত্র হত্যার বিজয় অভিযানের বাই-প্রোডাক্ট।’

মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করেছে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা বলেও দাবি করেন রিজভী। তিনি বলেন, সেখানকার অন্ধকারের ভোটের এমপি থেকে শুরু করে আওয়ামী লীগ ছাত্রলীগ এবং পুলিশের সহযোগিতায় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ওলামা লীগ নেতা সিরাজ অপরাধ চালিয়ে যাচ্ছিল দিনের পর দিন।

তিনি বলেন, অধ্যক্ষ সিরাজের নির্দেশেই উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি রুহুল আমিনের জ্ঞাতসারে পৌর কাউন্সিলর মাকসুদ আলমের টাকায় ছাত্রলীগ সভাপতি শাহাদত হোসেন শামীম ও ছাত্রলীগ নেতা নুরুদ্দিনের সক্রিয় অংশগ্রহণে সরকারি দলের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে থাকা প্রভাবশালীরা পরিকল্পিতভাবে প্রকাশ্যে পুড়িয়ে মারার ঘটনা ঘটিয়েছে। এরা কতটা বেপরোয়া এবং শক্তিশালী যে, খুনির পক্ষে প্রকাশ্যে মিছিল করে হুমকি পর্যন্ত দেয়।

তিনি আরও বলেন, নয় দিন হলো নুসরাত মারা গেছেন। অথচ এই দুষ্কর্মের সহযোগিতাকারী সোনাগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোয়াজ্জেম হোসেনকে প্রত্যাহার করা ছাড়া আর কোনো ব্যবস্থা দৃশ্যমান হয়নি। যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়ার পর নুসরাত জাহানকে ডেকে নিয়ে সোনাগাজী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোয়াজ্জেম হোসেন জিজ্ঞাসাবাদের নামে তাকে লাঞ্ছিত করে, সেই ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দিলেও তার কোন বিচার হচ্ছে না।

রিজভী বলেন, “যে পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ সেই পুলিশ বাহিনীর কর্মকর্তাদের দিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। সরকার পুলিশ প্রশাসনের কাছে পুরোপুরি আত্মসমর্পণ করেছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার সৎ সাহস হারিয়ে ফেলেছে সরকার। কারণ মিডনাইট নির্বাচনে পুলিশ প্রশাসন সহযোগিতা করে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় বসিয়ে এখন রক্ষার দায়িত্ব নিয়েছে। এই সরকারের কর্মকাণ্ডে স্পষ্ট হচ্ছে এই বর্বরোচিত হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চলছে। তারা জনরোষ থেকে বাঁচার জন্য দোষীদের সাজা দেওয়া হবে বলে অভিনয় করছে।” 

নুসরাত হত্যাকাণ্ডে মেয়েটির জন্য সারা দেশের মানুষ কেঁদেছে বলে মন্তব্য করে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, কিন্তু নুসরাতকে কে হত্যা করেছে? আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ এমন কি ওসিও এদের সাথে জড়িত। ওসিকে এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় বদলি করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) বিকালে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম দলের এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

শুধু নুসরাতকে হত্যা করা নয়, একটি গবেষণায় দেখা গেছে গত তিন মাসে দুই হাজারের অধিক নারী নির্যাতনের শিকার হয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন শামসুজ্জামান দুদু। তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া যখন প্রধানমন্ত্রী ছিলেন তখন দিনাজপুরে ইয়াসমিন নামে একজন নারী নির্যাতনের শিকার হয়ে মৃত্যুর ঘটনায় শেখ হাসিনা লাফ দিয়ে রাস্তায় নেমেছিলেন। তখন বেগম খালেদা জিয়া ওই ঘটনা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু তারপরও শেখ হাসিনা লাফ দিয়ে রাস্তায় নেমেছিলেন। তখন খুশি কবীর, সুলতানা কামালরা ছিলেন কি না আমার জানা নেই। মুন্নী সাহার জন্ম হয়েছিল কি না আমার জানা নেই। এসব নেত্রীরা এখন কোথায় মুখ লুকালেন বলে প্রশ্ন ছুঁড়েছেন বিএনপির এই নেতা। 

ওডি/এআর 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মোঃ তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড