ঐক্যফ্রন্টের ‘জাতীয় সংলাপ’ টিকে থাকার বাহানা : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশ : ১৮ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৩৫

  অধিকার ডেস্ক

আমাদের বিজয় যেমন ধস নামানো বিজয়, তেমনি তাদের পরাজয়ও ধস নামানো পরাজয় মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, ‘মুখ রক্ষার জন্য কর্মীদের বোঝানোর জন্য কিছু একটা করতে হয়। সেজন্য নতুন বাহানা হচ্ছে জাতীয় সংলাপ। নিজেদের মুখ রক্ষার জন্য এবং রাজনৈতিক আলোচনায় টিকে থাকার জন্য এই জাতীয় সংলাপের কথা বলছে তারা।’

শুক্রবার (১৮ জানুয়ারি) ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী। আগামীকাল শনিবার (১৯ জানুয়ারি) সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের ‘বিজয় উৎসবের’ প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এই বিশেষ বর্ধিত সভার আয়োজন করা হয়। 

ঐক্যফ্রন্টের এই ‘জাতীয় সংলাপ’র সিদ্ধান্তের মধ্যেই বিএনপি নেই উল্লেখ করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘শুরুতেই অনৈক্য। আসলে রাজনীতিতে টিকে থাকার জন্যই তাদের এই ব্যর্থ চেষ্টা।’

নির্বাচনে আমাদের বিশাল বিজয়, পরপর তিনবারের এই বিজয় উৎসব করার মতো বিজয় বলে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বলেন, ‘কিন্তু নেত্রীর (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) নির্দেশে আমরা কোনো উৎসব করিনি। শনিবারের মহাসমাবেশে উৎসব হবে, কিন্তু কোনো বিশৃঙ্খলা যেনো না হয়। এই বিজয়ে আমাদের দায়িত্ব অনেক বেড়ে গেছে। আমাদের আচার-আচরণ যেনো কারও বিরক্তির কারণ না হয়। তাহলে মানুষ আবারও আমাদের ভোট দিয়ে দেশ পরিচালনার দায়িত্ব দেবে।’

বর্ধিত সভায় সভাপতিত্ব করেন- ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাত। এতে আরও বক্তব্য রাখেন- মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ। সভায় উপস্থিত ছিলেন মহানগর দক্ষিণ শাখার অন্তর্গত থানা ও ওয়ার্ডের নেতারা।