• সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ৬ ফাল্গুন ১৪২৫  |   ১৬ °সে
  • বেটা ভার্সন

সর্বশেষ : মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইরে বিপুল পরিমাণ বোমা ও বোমা তৈরির সরঞ্জামসহ ১ জনকে আটক করেছে র‍্যাব

ঢাকায় ডেকে এনে তামশা মঞ্চস্থ করছে ইসি : মীর নাছির

  অধিকার ডেস্ক ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৯:০৯

মীর মো. নাছির উদ্দিন
বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মীর মো. নাছির উদ্দিন (ফাইল ছবি)

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-৫ আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে নির্বাচন কমিশনে আপিল করেও প্রার্থীতা ফিরে পেলেন না বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মীর মো. নাছির উদ্দিন। আপিলেও মনোনয়নপত্র অবৈধ রাখার সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেছেন, ‘বাইরে থেকে লোকদের ঢাকায় ডেকে এনে তামশা মঞ্চস্থ করছে ইসি।’

বৃহস্পতিবার (৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর আগারগাঁওস্থ নির্বাচন কমিশনে আপিল করেও প্রার্থীতা ফিরে না পেয়ে পরে গণমাধ্যমকর্মীদের কাছে তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে একথা বলেন।

এখানে তামাশা করা হচ্ছে বলে জানিয়ে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বলেন, ‘তাদের সিদ্ধান্ত পূর্বনির্ধারিত। আমারটা একেবারে রিজেক্ট করে দিয়েছে। পেন্ডিং রাখলেও তো হতো।’

সাবেক প্রতিমন্ত্রীে আরও বলেন, ‘আগেই ভেবেছিলাম, এখানে এসে সঠিক বিচার পাওয়া যাবে না। বাইরে থেকে লোকদের ঢাকায় ডেকে এনে তামশা মঞ্চস্থ করছে ইসি।’

বিএনপি নেতা মীর নাছির ছাড়াও আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগাম-৫ আসনে বিএনপির আরও দুই প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। তারা হলেন- মীর নাছিরের ছেলে মীর মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন ও ব্যারিস্টার সাকিলা ফারজানা।

বৃহস্পতিবার আগারগাঁওয়ের নির্বাচন কমিশন ভবনে প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিলের শুনানি শেষে সাজাপ্রাপ্ত হওয়ায় মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিনের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়। সঙ্গে তার ছেলে হেলাল উদ্দীনের মনোনয়নপত্রও বাতিল করা হয়।

ফলে চট্টগ্রাম-৫ আসনে ক্ষমতাশীন আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট থেকে জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রার্থী বর্তমান সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদের বিপক্ষে বিএনপির একমাত্র প্রার্থী ব্যারিস্টার সাকিলা ফারজানা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০১৮-২০১৯

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড