• বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ২৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫  |   ১৯ °সে
  • বেটা ভার্সন

'নিরপেক্ষ সরকার নয়, প্রয়োজন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের'

নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে বিএনপি : কাদের

  নিজস্ব প্রতিবেদক ১০ নভেম্বর ২০১৮, ১১:১২

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের (ছবি : সংগৃহীত)

নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য নিরপেক্ষ সরকার নয়, প্রয়োজন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। 

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, আগামী ২৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য সংসদ নির্বাচনে বিএনপি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের অংশগ্রহণ এখন আনুষ্ঠানিকতা মাত্র।

শহীদ নূর হোসেন দিবস উপলক্ষে শনিবার (১০ ডিসেম্বর) সকালে রাজধানীর জিরো পয়েন্টে নূর হোসেন চত্বরে ফুল দিয়ে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেনের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। 

বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচন নিয়ে হতাশ কেন প্রশ্ন তুলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচন নিয়ে তাদের হতাশার মধ্যেও আশার আলো আছে। তারা নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। তারা নির্বাচনে আসবে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার যে ভাষণ দিয়েছেন তাতে আমার মনে হয় না কারও নির্বাচন নিয়ে হতাশা থাকার কথা বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের। 

তিনি বলেন, ইসি তফসিল ঘোষণা দিয়ে নিরপেক্ষ নির্বাচনের প্রস্তুতির কথা জানিয়েছে। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার পর এখন লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরি করা ইসির হাতে। একটি নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য ইসির কর্তৃত্বপূর্ণ ভূমিকা পালনের জন্য আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করব বলেও জানান সেতুমন্ত্রী। 

এ দিকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে কি করবে না এই বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত এখন পর্যন্ত জানায়নি বিএনপিসহ ২০ দলীয় জোট এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। শুক্রবার ঐক্যফ্রন্টের আয়োজিত রাজশাহীর জনসভা থেকেও এই বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো ঘোষণা আসেনি জোট থেকে। 

তবে জনসভায় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র ও বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, 'গত পাঁচ বছর ধরে গণতন্ত্র রক্ষার জন্য আমরা আন্দোলন করে যাচ্ছি। সরকার পুলিশ দিয়ে, বন্দুক-পিস্তল দিয়ে মানুষকে গণতন্ত্রের অধিকার থেকে বঞ্চিত রেখেছে।' 

তিনি বলেন, 'আমাদের দাবি দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে, সংসদ ভেঙে দিতে হবে, নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন করতে হবে। তা না হলে নির্বাচন হবে না। ঐক্যফ্রন্টের সাত দফা দাবি না মানলে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন হতে দেয়া হবে না।' 

এছাড়া সমাবেশে উপস্থিত এলডিপির সভাপতি কর্নেল অলি আহমেদ বলেছেন, নির্বাচনে অংশগ্রহণ করব কি না এই বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত হয়নি। তবে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করাব এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে রাজনীতিতে এসেছি তবে বাংলাদেশের রাজনীতি মানেই খালেদা জিয়া বলে জানিয়ে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, তাই খালেদা জিয়াকে বন্দি রাখা যাবে না। তাকে অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে।  

এ দিকে জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের আগে শনিবার সন্ধ্যায় দুই দফা বৈঠকে বসছে বিএনপি। দলের স্থায়ী কমিটি এবং ২০ দলীয় জোটের সঙ্গে বৈঠক এবং জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের বৈঠকের পর মতামত নিয়ে কারাগারে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার কথা রয়েছে মির্জা ফখরুলের। এছাড়া লন্ডনে থাকা দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সঙ্গেও আলোচনা করার পর একটি চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাবে দেশের বৃহৎ এই রাজনৈতিক দল।   

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ই-মেইল: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড