• বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯  |   ২৮ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘ঢাকা উত্তরের মেয়র হতে চেয়েছিলাম, আজও চাই’

  বিশেষ প্রতিবেদক

১৯ সেপ্টেম্বর ২০২২, ২০:০৪
‘ঢাকা উত্তরের মেয়র হতে চেয়েছিলাম, আজও চাই’
‘ঢাকা উত্তরের মেয়র হতে চেয়েছিলাম, আজও চাই’

আদম তমিজী হক সমাজকর্মী ও তরুণ রাজনীতিক। ২০১৭ সালে তিনি রাজনীতিতে যোগ দেন। বর্তমানে মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটির মাধ্যমে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের মাধ্যমে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন দেশ সেবায়। এ ছাড়া তিনি দেশের অন্যতম ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হক গ্রুপের কর্ণধার। বিদেশি বাণিজ্য ও দেশীয় ব্যবসায়ের প্রসারের মাধ্যমে হক গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ ৫০ হাজারেরও বেশি কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং শ্রমিকদের নিযুক্ত করেছেন। ব্যবসায়ী হিসেবে তিনি দেশের রাজস্ব খাতে উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছেন। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে প্রার্থী হতে চান। এর মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে নিজেকে এগিয়ে নিতে চান পুরোদমে। তার সে সমস্ত পরিকল্পনা উঠে এসেছে এবারের সাক্ষাৎকারে।

অধিকার: রাজনীতি নিয়ে আপনার পরিকল্পনা কী? আদম তমিজী হক: আমি রাজনীতি নিয়ে পড়ালেখা করেছি। অনেক আগে থেকেই আমার রাজনীতিতে যোগদানের ইচ্ছা ছিল। প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষভাবে গত ১১ বছর ধরে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সঙ্গে সম্পৃক্ত আছি। শুধু তাই নয়, আমি গর্বের সঙ্গে বলি আমার বাবা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কাছের মানুষ ছিলেন। ব্যবসায়ী হিসেবে বিভিন্নভাবে সাধারণ মানুষের সেবা করতে চেষ্টা করেছি। তা আরও বৃহৎ পরিসরে করা এবং বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে জনগণের সেবা করার ইচ্ছা থেকে আমার রাজনীতিতে আসা। আমি জনসাধারণের সঙ্গে কাজ আগেও করেছি, কাজগুলোকে আরও গতিশীল করার জন্য মেয়র হিসেবে কাজ করতে চাই। আমি আশাবাদী জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ আমার অংশগ্রহণ ও একাত্মতা বিবেচনায় আনবে। আমি ব্যক্তিগতভাবে নানা কাজ করে যাচ্ছি। একজন রাজনীতিবিদ হিসেবে আমি নেত্রীর আদর্শের অনুসারী এবং তার দিক-নির্দেশনা আমার পাথেয়। আমি সেই একাগ্রতা নিয়ে কাজ করে যেতে চাই।

অধিকার: আপনার স্লোগান তো ‘মানবিক ঢাকা, মানবিক বাংলাদেশ’। স্লোগানের সঙ্গে বাস্তবতার সঙ্গতি কতটুকু? আদম তমিজী হক: সাধারণ মানুষ আমাকে আন্তরিকভাবে গ্রহণ করছেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ও সরাসরি আমার সাথে অনেকেই সাক্ষাৎ করেছে এবং সক্রিয় অংশগ্রহণ করে পাশে থাকছে। আমি আশা করি এই স্লোগান বাস্তবায়ন করতে পারব। ঢাকা উত্তর নিয়ে নগর উন্নয়ন বাস্তবায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার পরিকল্পনার পাশাপাশি অসমাপ্ত কর্মসূচি বাস্তবায়ন করবো। আমার ব্যাক্তিগত কর্মপরিকল্পনাগুলো পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে এগিয়ে নিয়ে যাবো। যেমন- সুবিধাবঞ্ছিতদের জন্য সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করার পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর বাসযোগ্য পরিবেশ প্রদান করা; নাগরিকদের জীবনকে সচল করতে পরিকল্পিত এবং আন্তর্জাতিক মানের ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা নিশ্চিত করা; জলাবদ্ধতা নিরসন এবং পয়োঃনিষ্কাশনের সুব্যবস্থার মাধ্যমে পরিচ্ছন্ন পরিবেশ নিশ্চিতকরণ; আবদ্ধ জলাশয়গুলোকে ব্যবহারযোগ্য রূপ প্রদান; সবুজ শ্যামল বাসযোগ্য একটি নগরী হিসেবে গড়ে তোলা ইত্যাদি। বাংলাদেশের রাজধানী প্রিয় ঢাকাকে বিশ্বের অন্যতম সেরা শহর হিসাবে গড়ে তুলতেই আদম তমিজী হক স্বপ্নবাজ সত্তা হয়ে একটা সময় রাজনীতির ময়দানে চলে এসেছিলাম। এখনও তেমন আদর্শিক অবস্থান থেকে সরে আসিনি। ঢাকা উত্তরের মেয়র হতে চেয়েছিলাম, আজও চাই।

অধিকার: রাজনীতির পাশাপাশি সামজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডকে কীভাবে দেখছেন? আদম তমিজী হক: আমি সাধারণ মানুষের পাশে আছি। নির্মাণকর্মী, হকার, বাস-ট্রাক-রিকশা-ভ্যানচালকসহ বিভিন্ন পেশাজীবী মানুষদের নিয়েও কাজ করে যাচ্ছি। স্বাস্থ্যকর শৌচাগার, রাস্তা মেরামত, ছোট সেতু নির্মাণ, এতিমদের বিয়েসহ বিভিন্ন জনসেবামূলক কার্যক্রম চালিয়ে আসছি। সবার জন্য শিক্ষা সহজলভ্য করার জন্য আদম তমিজী হক সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের শিক্ষার জন্য ‘শেখ রাসেল মানবিক স্কুল’ প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। দুস্থদের জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসা ও ওষুধ বিতরণ কার্যক্রম করা হয়। আমি যা-ই করি না কেন আমার উদ্দেশ্য হলো বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে অনুসরণ করা এবং বিভিন্ন সামাজিক ও উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে নিযুক্ত থাকা। আমি তৃণমূলের পক্ষে কাজ করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

অধিকার: আপনি নাকি গাজীপুরের মেয়র হতে চান... এরকম প্রচারণা আছে। এ বিষয়ে কী বলবেন? আদম তমিজী হক: বিষয়টি একদম ঠিক নয়। গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি করেছিলেন। আমার সংগঠন মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটির একজন নেতা মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন। সেই মামলায় ফরিদপুরের আদালত গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন। আগাম জামিনও নিয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম। অনেকে ভাবতে পারেন জাহাঙ্গীর আলম আমার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ। বিষয়টি তা নয়। কেউ বাঙালির স্বপ্নদ্রষ্টা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অবমাননা করলে তার সুরাহা আইনিভাবেই হওয়া উচিত, আমার সংগঠন সেটি করেছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা যিনিই করুন, বসে থাকা যাবে না। সামাজিক ন্যায়বিচার প্রত্যাশী হয়ে জনগোষ্ঠীর সাংস্কৃতিক অভিরুচিকে ঝালিয়ে নিয়ে প্রমাণ করতে হবে সকলেরই। কিছুক্ষেত্রে আপস করা যায় না, যাবে না। আমি গাজীপুরের মেয়র হতে চাই না। নির্বাচন করলে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনেই করতে চাই। বাংলাদেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এলাকা ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মানুষের সঙ্গে আমি আছি ও থাকব। যেখানে অন্যায় সেখানেই আমার প্রতিবাদ চলবে। আমি দেখতে পাচ্ছি যে, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র পদ থেকে বরখাস্তকৃত মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের অনুসারীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মিথ্যা অপপ্রচার চালিয়ে বলছে যে, গাজীপুরের মেয়র মনোনয়নের আশায় আমি খুবই তৎপর। না, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে যে ব্যক্তিবিশেষ বা গোষ্ঠী অবমাননার ধৃষ্টতায় যাবে, তাদের বিরুদ্ধেই আমার কট্টর অবস্থান নিশ্চিত করা হবে।

অধিকার: সামনে জাতীয় নির্বাচন, বিএনপি নানা ষড়যন্ত্র করবে তাদের কীভাবে মোকাবিলা করা যায় বলে মনে করেন? আদম তমিজী হক: বিএনপি তো সুযোগসন্ধানী একটি দল। ওরা সব সময় বাঁকা পথে ক্ষমতার আসার পায়তারা করে। এর আগেও তাদের জ্বালাও পোড়া, মানুষ হত্যার মতো রাজনৈতিক কর্মসূচি আমরা দেখেছি। এগুলো মানুষ ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে। বিএনপির তো রাজনৈতিক কোনো চরিত্র নেই। কারণ হলো তারা জনস্বার্থমুখী কোনো এজেন্ডা নিয়ে মাঠে নামতে পারেনি। বিএনপির আরেকটি স্বভাব হলো এরা মিথ্যাচার করে যাচ্ছে, এর মাধ্যমে তারা সরকারকে, দেশের অন্যতম বড় হলো আওয়ামী লীগকে বিব্রত করতে চায়। এগুলো রাজনৈতিকভাবেই মোকাবিলা করা হবে। দরকার হলে আমার হাজার হাজার কর্মী বিএনপিকে মোকাবিলার জন্য রাজপথে থাকবে। বিএনপিকে অবশ্যই নাশকতার রাজনীতি পরিহার করতে হবে।

অধিকার: সময় দেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আদম তমিজী হক: আপনাকেও ধন্যবাদ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো. তাজবীর হোসাইন  

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড