• বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৮ আশ্বিন ১৪২৮  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘সরকারের সমালোচনা না ক‌রে মানু‌ষের পা‌শে দাঁড়ান’ 

  অধিকার ডেস্ক

০৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৪৪
অধিকার
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছেন ঢাকা ১৮ আস‌নের সাংসদ মো. হা‌বিব হাসান

বিএনপি নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ঢাকা ১৮ আস‌নের সাংসদ মো. হা‌বিব হাসান বলেছেন, যারা এসি রুমে বসে সরকারের সমালোচনা না করে, অসহায়- মেহন‌তি মানু‌ষের পা‌শে দাঁড়ান। ক‌রোনার এই মহামা‌রির সময়ে মিথ্যা বানোয়াট সমালোচনায় লিপ্ত না হ‌য়ে অসহায় মানু‌ষের পা‌শে দাঁড়ালে তারা উপকৃত হ‌বে।

বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) দুপু‌রে উত্তরা ফায়দাবাদ ট্রান্স‌মিটার সংলগ্ন সবুজ বাংলাডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

হা‌বিব হাসান ব‌লেন, ক‌রোনার এই মহামারিতে অসহায় মানুষের পাশে কারা দাঁড়িয়েছে এটা আজ মানুষের কাছে প্রমাণিত। আওয়ামী লী‌গের প্রতি‌টি নেতাকর্মী শেখ হা‌সিনার নির্দেশনায় এই ক‌রোনার ম‌ধ্যে ও মানুষের পা‌শে দাঁড়িয়েছে। অথচ বিএন‌পির নেতারা এসির ভেত‌রে ব‌সে বক্তব্য দেন- ‘আওয়ামী -লীগের নেতাকর্মীরা মানুষের পাশে দাঁড়ায়নি’। সব সমা‌লোচনাকারী‌দের মু‌খোশ প্রকাশ পে‌য়ে‌ছে ।

আওয়ামী লী‌গের নেতাকর্মীর উদ্দেশে তিনি বলেন, অসহায় মানুষকে নিয়ে যেন, ওই সমালোচনা কারীরা ছিনিমিনি করতে না পারে সেজন্য আপনারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করবেন।

চিকিৎসকদের উদ্দেশে ঢাকা মহানগর উত্তর আ. লী‌গের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আরও ব‌লেন, ডাক্তারি পেশা মহৎ পেশা। সবুজ বাংলা ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টার যে উদ্যোগ নিয়েছে আমি তাতে সন্তুষ্ট। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর যে ভীষণ, স্বাস্থ্যসেবা মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার সেই ল‌ক্ষ্যে আপনারা কাজ কর‌বেন।

তি‌নি আরও ব‌লেন, আর্ক হাসপাতাল লি: যেমন অসহায় গরিব দুঃখী মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে এবং যে সুনাম ধরে রেখেছে সেই সুনাম এই ডায়াগনস্টিক সেন্টার ধরে রাখবে বলে আমি আশাবাদী। এই ডায়াগনস্টিক সেন্টার হসপিটাল এর মতই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবে। অনেক বিকল প্রতিবন্ধী আছে, তাদের জন্য যেন ফ্রি চিকিৎসার ব্যবস্থা ক‌রে দেবেন‌।

যারা গরিব তাদের প্রতি তীক্ষ্ণ নজর দেওয়ার আহ্বান জানি‌য়ে তিনি ব‌লেন, যাতে অসহায় মানুষগুলোর চিকিৎসা না পেয়ে ফিরে না যায় হাসপাতাল থে‌কে সে দি‌কে লক্ষ‌্য রাখ‌বেন। আমাদের নেতাকর্মীরা সর্বক্ষণ আপনাদের পাশে থাকবে, কিন্তু কোন বদনাম যেন না হয়।

ঢাকা ১৮ আসন নি‌য়ে তি‌নি আরও ব‌লেন, দক্ষিণখান থানা কেন্দ্রিক যে ওয়ার্ডগুলো রয়েছে, তার রাস্তাঘাটের অবস্থা খুব খারাপ। তাই এইসব ওয়ার্ডের মানুষের খুব অসুবিধার সম্মুখীন হতে হচ্ছে প্রতিনিয়ত। আমি নির্বাচনে জয়ী হয়ে ৭ মাস হয়েছে ক্ষমতায় এসেছি। আমি আজ কথা দিয়ে গেলাম, আগামী নির্বাচনের আগেই আপনাদের এলাকার সকল রাস্তাঘাটের কাজ শেষ করব। ধৈর্য ধরবেন আস্থা রাখবেন, উন্নয়ন দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাবে। ঢাকা ১৮ আসনকে আদর্শ আসন হিসেবে গড়ে তুলবো কথা দিয়ে গেলাম।

আর্ক হসপিটাল লি: এবং সবুজ বাংলা ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টার এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোবারক হোসেন সরকার বলেন, সেবার মনমানসিকতা নিয়ে আমরা এই সেন্টার চালু করেছি। ব্যবসার জন্য নয় সেবার জন্য আমাদের প্রতিষ্ঠান।

তি‌নি ব‌লেন, আর্ক হসপিটাল লি: এ দুইটা বেড শুরু থে‌কেই খা‌লি ক‌রে রে‌খে‌ছি যেখা‌নে শুধুমাত্র, গরিব দুঃখী অসহায় মানুষের ফ্রি চিকিৎসার জন্য। আর আমারা সেই ধারাবা‌হ্তিায় ধারাবাহিকতায়

চিকিৎসা সেবাও দি‌য়ে যা‌চ্ছি সম্পূর্ণ ফ্রিতে। এলাকার সর্বস্ত‌রের মানু‌ষকে আমা‌দের হস‌পিটা‌লের পক্ষ‌ থে‌কে একটাই অনু‌রোধ কিভা‌বে হসপিটাল চল‌লে আরও ভা‌লো ভা‌বে আপনা‌দের চিকিৎসা সেবা দিতে পার‌বো সেই পরামর্শ দে‌বেন।

ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লী‌গের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক এস এম মাহবুব আলম ব‌লেন, আর্ক হাসপাতাল লি : যেমন সুনাম অক্ষুণ্ণ রেখেছে এই ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও যেন সেই ধারাবাহিকতা ধ‌রে রা‌খে। যাদের সামর্থ্য আছে তারা যেন গরিবদের হক নষ্ট না করে। এই ডায়াগনস্টিক সেন্টারের মাধ্যমে যেন গরিব-দুঃখী মানুষের সেবা পায়। ব্যবসায়ী মনোভাব নিয়ে যেন অতিরিক্ত চার্জ না করা হয়।

সবুজ বাংলা ডায়াগনস্টিক এন্ড কনসালটেশন সেন্টার উদ্বোধন ও আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব ক‌রেন, ৪৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর, মোতালেব মিয়া। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- অ্যাডভোকেট আবু হানিফ, ফ‌য়েজ আহ‌মেদ, মাহবুব আলম ভূঁইয়া, মহসিন সরকার, মতিউর রহমান মতি, নাজমুল আলম ভূইয়া, তাজউদ্দিন তারা, শফি উদ্দিন মোল্লা, শহিদুল আলম রিপন, তান‌বির চৌধু‌রী রিও প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড