• মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ৩০ চৈত্র ১৪২৭  |   ৩৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

মোদীর সফরে বিএনপি বিরোধিতা করেনি : সংসদে হারুন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৪ এপ্রিল ২০২১, ১০:৩২
সংসদে বিএনপির সাংসদ হারুনুর রশীদ
সংসদে বিএনপির সাংসদ হারুনুর রশীদ। (ছবি: সংগৃহীত)

বিএনপির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ বলেছেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফর নিয়ে বিএনপি কোনো বিরোধিতা করেনি।

তিনি বলেন, বিএনপি থেকে মোদীবিরোধী কোনো স্লোগান বা মোদীর আগমন করা যাবে না- এ ধরনের বক্তব্য দেওয়া হয়নি। মোদি সফরের সূত্র ধরে হেফাজতের আন্দোলনের সঙ্গে বিএনপিকে কেন জড়ানো হচ্ছে সেই প্রশ্নও তোলেন হারুন।

শনিবার (৩ এপ্রিল) জাতীয় সংসদে অনির্ধারিত আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ মন্তব্য করেন।

এর আগে আওয়ামী লীগের সিনিয়র সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম নরেন্দ্র মোদীর আগমন নিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে সহিংস ঘটনার প্রেক্ষিতে সংসদে কথা বলেন। এ সময় তিনি চলমান আন্দোলনে বিএনপির সম্পৃক্ততার অভিযোগ তোলেন।

হারুন বলেন, ‘যে বিষয়টি এই সংসদে উত্থাপন করা হয়েছে এ প্রসঙ্গে জানতে চাই আমাদের মত প্রকাশের স্বাধীনতা কী থাকবে? ৫০ বছরপূর্তি-আমাদের সুবর্ণজয়ন্তী। এই সুবর্ণজয়ন্তীতে আমরা লাশ উপহার দিলাম। আমরা কী শান্তিপূর্ণভাবে সারাদেশের কোথাও সুবর্ণজয়ন্তী পালন করতে পেরেছি?’

শেখ সেলিমের বক্তব্যের জবাবে তিনি বলেন, ‘বিএনপি থেকে মোদিবিরোধী স্লোগান বা মোদির আগমন করা যাবে না- এ ধরনের বক্তব্য দেওয়া হয়নি। যেহেতু ১৭ থেকে ২৬ মার্চ পর্যন্ত ঢাকায় সব কর্মসূচি বন্ধ রাখার জন্য অনুরোধ করেছেন। সে কারণে আমরা জাতীয় স্মৃতিসৌধে সীমিত আকারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছি। জিয়াউর রহমানের মাজারেও খুবই সীমিত আকারে শ্রদ্ধা জানিয়েছি। কারণ করোনা বৃদ্ধি পাচ্ছে। যে কারণে আমাদের জায়গা থেকে কর্মসূচিগুলো সীমিত করে দেওয়া হয়েছে। কোনো তথ্যপ্রমাণ দিয়ে বলতে পারবেন না যে ২৬ মার্চ.... এখানে আমি দেখে আসছি।’

বিভিন্ন সময় জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ইসলামবিরোধী কোনো কর্মকাণ্ড হলে বায়তুল মোকাররম মসজিদে তার বিরুদ্ধে আন্দোলন হয় উল্লেখ করে হারুনুর রশীদ বলেন, ‘পাকিস্তান থেকে বাংলাদেশ আমল পর্যন্ত ইসলামবিদ্বেষী কোনো কর্মকাণ্ড হলে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ হয়েছে। ফ্রান্সে আল্লাহ রাসুল (সা.) নিয়ে যখন কটাক্ষ করা হয়েছে। তখন বায়তুল মোকাররম মসজিদ থেকেই প্রতিবাদ করা হয়েছে।’

সরকারকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ‘প্রতিবাদ-বিক্ষোভ যারা করল তাদের সঙ্গে আলোচনা করতে পারতেন। যখন ভাস্কর্য-মূর্তি নিয়ে দেশে একটি সংঘাত তৈরি হলো তখন হেফাজতের সঙ্গে তো সরকার আলোচনা করেছে। তারা আলোচনা করতেন, যে বিদেশি মেহমানরা আসছে তোমরা আন্দোলন বিক্ষোভ বন্ধ রাখো। সেই ক্ষেত্রে বিএনপিকে কেন জড়ানো হচ্ছে।’

বিএনপির এই সংসদ সদস্য আরও বলেন, ‘আজকে যদি মত প্রকাশের স্বাধীনতা বন্ধ করে দেন সেখানে সন্ত্রাসবাদ, উগ্রবাদ ও ভিন্নমত অবশ্যই সৃষ্টি হবে। সত্যিকার অর্থে গণতান্ত্রিক চর্চাগুলো মুক্ত করা দরকার। মত প্রকাশের জায়গাগুলো আজ রুদ্ধ হয়ে গেছে। সেই অধিকারগুলো নিশ্চিত করতে হবে। আমি বিতর্ক বাড়াতে চাই না। আজকের সংকট হচ্ছে গণতন্ত্রের সংকট। এ সংকটের জন্য জাতি আজকে এই অবস্থার মধ্যে পতিত হয়েছে।’

ওডি/জেআই

jachai
niet
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
niet

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড