• মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পাপিয়াকে নিয়ে মুখ খুলছে আ. লীগ নেতারা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৫:১৬
পাপিয়া
শামীমা নুর পাপিয়া (ছবি : সংগৃহীত)

নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক শামীমা নুর পাপিয়ার অপকর্ম নিয়ে দেশজুড়ে সমালোচনা ও নিন্দার ঝড় বইছে। তার কর্মকাণ্ডে সংগঠনের শীর্ষ নেতৃত্ব নিয়ে সর্বত্র প্রশ্ন উঠেছে। এবার পাপিয়াকে নিয়ে মুখ খুলতে শুরু করেছেন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা ও নেত্রীরা।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশেই পাপিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দলীয় নেতাকর্মীদের শাস্তি দেওয়ার সৎ সাহস একমাত্র শেখ হাসিনারই আছে। তাই অপরাধ করে কেউ পার পেয়ে যাবে, এটি ভাবার কোনো কারণ নেই।

তিনি বলেন, অপরাধমূলক কাজ করলে নিজ দলের লোকদেরও যে শাস্তি দেওয়া হয়, আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা তার উদাহরণ সৃষ্টি করেছেন।

শামীমা নুর পাপিয়ার পরিচয় যা-ই হোক, অপরাধী হিসেবে তার বিচার হবে এবং তার পেছনে যারা আছে তাদেরও খুঁজে বের করা হবে বলে জানান সেতুমন্ত্রী।

যুব মহিলা লীগের সভাপতি নাজমা আক্তার বলেন, নরসিংদী জেলা যুব মহিলা লীগের কমিটিতে পাপিয়া আগে কোনো পদে ছিল না। তাকে পদ না দেওয়ার জন্য নরসিংদীর একটা পক্ষ আমাদের বলেছিল। আমি পাপিয়াকে পদ দেওয়ার পক্ষে ছিলাম না। শেষ পর্যন্ত তাকে দিতে হয়েছে। তিনি বলেন, পদ বাণিজ্য করে যারা পাপিয়াকে পদ দিয়েছে তাদের বিচারের আওতায় আনা হোক, এমন মেয়েদের জন্য যুব মহিলা লীগের সম্মান যায়।

পাপিয়াকে নিয়ে যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল বলেন, এসব সমাজের কীটদের অপকর্মের দায় সংগঠন কখনোই নেবে না। একই সঙ্গে পাপিয়ার মতো আরও যারা অপরাধের সঙ্গে জড়িত রয়েছেন, তাদের কঠোর শাস্তির আওতায় আনার দাবি জানান তিনি।

পাপিয়ার সঙ্গে সখ্যতা রয়েছে এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি সাবিনা আক্তার তুহিন বলেন, পাপিয়ার সঙ্গে তার সাংগঠনিক সম্পর্কের বাইরে কিছু ছিল না। রাজনৈতিকভাবে হেয় করতে পাপিয়ার সঙ্গে আমাকে জড়ানো হচ্ছে। রাজনীতির কারণে আমার অনেকের সঙ্গে মিশতে হয়েছে। আমাদের কেন্দ্রীয় সম্মেলন আছে, তাই দেশের সব জেলার নেত্রীদের সঙ্গেই আমার মিশতে হয়। এখানে পাপিয়াকে আলাদা করে ভাবার কিছু নেই।

যুব মহিলা লীগ নেত্রী তুহিন বলেন, ২০১৪ সালে সে যখন নরসিংদী যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক হন, তখন আমি তাকে চিনতামও না। ২০১৭ সালে আমার সঙ্গে তার পরিচয় হয়। তাহলে পাপিয়ার উত্থানে কেমন করে আমার হাত থাকে? কমিটিতে আসার ব্যাপারে আমার কোনো ভূমিকা থাকতে পারে না। আর জেলা কমিটি গঠনে মহানগরের কোনো হাত থাকে না।

আরও পড়ুন : পাপিয়ার ফোনের কললিস্টে প্রভাবশালীরা

প্রসঙ্গত, গত ২২ ফেব্রুয়ারি রাজধানীর শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দেশত্যাগের সময় পাপিয়াসহ চারজনকে আটক করে র‌্যাব-১।

রবিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে ফার্মগেট এলাকায় পাপিয়ার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ১টি বিদেশি পিস্তল, ২টি ম্যাগজিন, ২০ রাউন্ড গুলি, ৫টি পাসপোর্ট, ৩টি চেক, ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি এটিএম কার্ড, বিদেশি ডলার, ৫ বোতল বিদেশি মদ উদ্ধার করে র‌্যাব।

জাল টাকা উদ্ধার, অস্ত্র ও মাদকের পৃথক তিন মামলায় পাপিয়া ও তার স্বামী মফিজুর রহমানের ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদুর রহমান ও মোহাম্মদ জসীম এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর মধ্যে বিমানবন্দর থানার জাল টাকা উদ্ধারের মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদুর রহমান ৫ দিন, শেরেবাংলা নগর থানার অস্ত্র ও মাদক আইনে দায়ের করা মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসীম ৫ দিন করে মোট ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ওডি/টিএএফ

jachai
nite
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
jachai

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড