• শুক্রবার, ০৩ এপ্রিল ২০২০, ২০ চৈত্র ১৪২৬  |   ২৪ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

পাপিয়ার সঙ্গে সখ্যতা, যা বললেন তুহিন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:২৫
তুহিন-পাপিয়া
ছবি : সম্পাদিত

মাদক ব্যবসা ও হোটেলে অনৈতিক কাজের অভিযোগে গ্রেপ্তার যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়ার সঙ্গে সংগঠনটির ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি সাবিনা আক্তার তুহিনের সখ্যতা রয়েছে বলে আলোচনা চলছে।

পাপিয়ার নানা অনৈতিক কাজে সাবেক এমপি তুহিনের পৃষ্ঠপোষকতা রয়েছে এমন অভিযোগও করেছেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দেশ ত্যাগের সময় চার সহযোগীসহ পাপিয়া আটকের পর একের পর এক বিস্ময়কর তথ্য আসতে শুরু করে। মাদক ব্যবসাসহ প্রকাশ পেতে শুরু করে তার বিলাসবহুল জীবন ও রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে স্যুট ভাড়া করে অশ্লীল সব কর্মকাণ্ডের ইতিহাস।

এ অবস্থায় যে প্রশ্ন ওঠে, যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী পাপিয়ার সব অনৈতিক কর্মকাণ্ডে ক্ষমতাসীন দলের কোনো নেতার পৃষ্ঠপোষকতা রয়েছে? কাদের আশকারায় এত দূর এসে পৌঁছেছেন তিনি?

এসব প্রশ্নের মুখেই তুহিনের নাম উঠে আসে। সরকার দলীয় অনেক নেতাকর্মী জানান, তুহিনের সঙ্গে পাপিয়ার ওঠা-বসা ছিল।

তবে এসব অভিযোগের বিষয়ে যুব মহিলা লীগের নেত্রী তুহিন দাবি করেন, ‘পাপিয়ার সঙ্গে তার সাংগঠনিক সম্পর্কের বাইরে কিছু ছিল না। রাজনৈতিকভাবে হেয় করতে পাপিয়ার সঙ্গে আমাকে জড়ানো হচ্ছে। আমি মহানগর উত্তরের নেত্রী। রাজনীতির কারণে আমার অনেকের সঙ্গে মিশতে হয়েছে। আমাদের কেন্দ্রীয় সম্মেলন আছে, সে কারণে দেশের সব জেলার নেত্রীদের সঙ্গেই আমার মিশতে হয়। এখানে পাপিয়াকে আলাদা করে ভাবার কিছু নেই।’

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল পাপিয়ার সঙ্গে তার ছবিগুলোর প্রসঙ্গে সাবেক এই এমপি বলেন, ‘শুধু আমার সঙ্গে কেন, কার সঙ্গে তার ছবি নেই? এমপি-মন্ত্রী থেকে শুরু করে আমাদের পার্টির অনেক নেতার সঙ্গে পাপিয়ার ছবি আছে।’

পাপিয়াকে তিনি নেত্রী বানাননি দাবি করে তুহিন আরও করেন, ‘২০১৪ সালে সে যখন নরসিংদী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হন, তখন আমি তাকে চিনতামও না। আমার সঙ্গে তার পরিচয় ২০১৭ সালে। তাহলে পাপিয়ার উত্থানে কেমন করে আমার হাত থাকে?’

অর্থাৎ কমিটিতে আসার ব্যাপারে আমার কোনো ভূমিকা থাকতে পারে না। আর জেলা কমিটি গঠনে মহানগরের কোনো হাত থাকে না’ যোগ করেন যুবলীগের এই নেত্রী।

তবে ২০১৭ সালে পরিচয়ের সময় তিনি এমপি ছিলেন জানিয়ে তুহিন বলেন, ‘দলীয় স্বার্থে তার সঙ্গে আমার দেখা হতো, কথা হতো। বিশেষ করে তার বাসা আমার বাসা থেকে কাছে, তাই প্রায়ই বাসায় আসত সে।’ গেল এক বছর ধরে পাপিয়া তার সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করছে না বলে জানান তুহিন।

এর কারণ হিসেবে সাবেক এমপি তুহিন বলেন, ‘বছর দেড়েক আগে আমার কাছে টাকা ধার চেয়েছিল সে। আমি দিইনি। এতে হয়তো অসন্তুষ্ট হয়ে আমার এখানে আসে না। এরপর নরসিংদী গিয়ে তাকে ফোন করি, তবু সে দেখা করেনি। আমাকে অনেকটাই এড়িয়ে চলেছে সে। অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়ানোর কারণেই হয়তো ভয়ে আমার কাছে আর ঘেষতে চায়নি সে।’

প্রসঙ্গত, গত ২২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে রাজধানীর হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে দেশ ত্যাগের সময় শামীমা নূর পাপিয়া ওরফে পিউসহ (২৮) চারজনকে আটক করে র‌্যাব-১।

তাদের কাছ থেকে সাতটি পাসপোর্ট, নগদ দুই লাখ ১২ হাজার ২৭০ টাকা, ২৫ হাজার ৬০০ টাকার জাল মুদ্রা, ১১ হাজার ৯১ ইউএস ডলারসহ বিভিন্ন দেশের মুদ্রা জব্দ করা হয়।

এ দিন র‌্যাব জানায়, রাজধানীর গুলশানের হোটেল ওয়েস্টিনে প্রেসিডেন্ট স্যুট নিজের নামে সবসময় বুকড করে নানা ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছিলেন পাপিয়া। যিনি হোটেলটির বারে বিলবাবদ প্রতিদিন পরিশোধ করতেন প্রায় আড়াই লাখ টাকা।

বৈধ আয় অনুযায়ী পাপিয়ার বাৎসরিক আয় মাত্র ১৯ লাখ টাকা। অথচ হোটেল ওয়েস্টিনে শুধু গত তিন মাসেই বিল পরিশোধ করেছেন প্রায় ১ কোটি ৩০ লাখ টাকা। যিনি নারী সংক্রান্ত অপকর্ম ছাড়াও অস্ত্র-মাদক ব্যবসা, চাঁদাবাজি ও বিভিন্ন তদবির বাণিজ্যের সঙ্গে জড়িত।

শনিবার গ্রেপ্তারের পর ওইদিন রাতেই নরসিংদীর বাসায় এবং রবিবার ভোরে হোটেল ওয়েস্টিনে তাদের নামে বুকিং করা বিলাসবহুল প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটে অভিযান চালানো হয়।

আরও পড়ুনঢাকা বার নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলছে

এছাড়া ফার্মগেট এলাকার ২৮ নম্বর ইন্দিরা রোডে অবস্থিত রওশনস ডমিনো রিলিভো নামক বিলাসবহুল ভবনে তাদের দুটি ফ্ল্যাটে অভিযান পরিচালনা করে একটি বিদেশি পিস্তল, দুটি পিস্তলের ম্যাগজিন, ২০ রাউন্ড পিস্তলের গুলি, পাঁচ বোতল বিদেশি মদ ও নগদ ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, পাঁচটি পাসপোর্ট, তিনটি চেক, বিদেশি মুদ্রা, বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি ভিসা ও এটিএম কার্ড জব্দ করে র‌্যাব।

ওডি/এএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: 02-9110584, +8801907484800

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড