• সোমবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৯, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৬  |   ২৬ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘সরকার নিজেদের দুর্নীতির কারণেই পতন ডেকে আনবে’

  অধিকার ডেস্ক

০৮ নভেম্বর ২০১৯, ১৬:২০
মওদুদ আহমদ
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ (ফাইল ছবি)

সরকার তাদের নিজেদের দুর্নীতির কারণেই পতন ডেকে আনবে বলে মন্তব্য করেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ বলেছেন, তাদের নিজস্ব দুর্বলতা ও ব্যর্থতার কারণেই পতন হবে।

শুক্রবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবে অবিভক্ত ঢাকার সাবেক মেয়র ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা সাদেক হোসেন খোকার স্মরণে স্বাধীনতা ফোরামের আয়োজিত এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ মন্তব্য করেন।

এ সময় আমাদের অনেকের মধ্যে একটা শঙ্কা ও ভয়ভীতি আছে উল্লেখ করে দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মওদুদ আহমদ বলেন, ‘আমরা রাস্তায় নামছি না বা নামতে পারছি না। আর সে কারণে হয়তো এই সরকারের পতন হবে না। কিন্তু আমি হতাশ নই। আমাদের অতীত বলছে, যেভাবে আন্দোলন করে একটা সরকারকে পতন ঘটাতে হয়, সেই ধরনের আন্দোলন সব সময় হয় না। আমি মনে করি, বর্তমান সরকার নিজেদের দুর্নীতির কারণেই তাদের পতন ডেকে আনবে। দুর্নীতির যে শেকড় সেগুলো তারা তৈরি করেছে। এই খালেদ মাহমুদ ও জি কে শামীমের বিচার করে দুর্নীতি দমন হবে না। শোভন-রাব্বানীর তো বিচারই হচ্ছে না। আপনারা মনে করছেন, হাতেগোনা কয়েকজনের বিচার করে আপনারা পার পেয়ে যাবেন। এটা কিন্তু যথেষ্ট নয়। দেশের মানুষ জানে দেশে কোনো প্রকার বিচার নেই।’

বর্তমান সরকার দলীয় শাসন চালাচ্ছেন বলে মন্তব্য করে সাবেক এই আইনমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ২১ মাস ধরে কারাগারে বন্দি রয়েছেন। তিনি চিরদিন বন্দি থাকবেন না। আমরা খালেদা জিয়াকে যে কোনো সময় মুক্ত করে আনব। যে কোনো সময় ছোট্টো একটি ঘটনায় সরকারের পতন ডেকে আনতে পারে। এর আগে বেশ কয়েকটি উদাহরণ আমরা দেখেছি।’

বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘আজ সরকার বলছে, খালেদা জিয়া সুস্থ আছেন। কিন্তু আমরা বলছি, তিনি অসুস্থ। আমরা খালেদা জিয়াকে দেখতে যেতে চাই, আসলে তিনি কি অসুস্থ, না সুস্থ। আমরা সরকারের কথায় আস্থা রাখতে পারছি না।’

প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘বৃহস্পতিবার (৭ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রী জাসদ নেতা মঈন উদ্দীন খান বাদল মারা যাওয়ায় তার জন্য জাতীয় সংসদে শোক প্রকাশ করেছেন। ক্ষণিকের জন্যও তিনি সাদেক হোসেন খোকার নাম উল্লেখ করেননি। কিন্তু কেন? এর কারণ কি এটা যে, একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে সাদেক হোসেন খোকা আজকের প্রধানমন্ত্রীকে তখন হারিয়ে দিয়েছিলেন?’

সাদেক হোসেন খোকা একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিলেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘একজন সৎ সাহসী নাগরিক ছিলেন। তার কথা কি তার (প্রধানমন্ত্রী) মনে আসে নাই? আমরা তো মনে করি, প্রধানমন্ত্রী একজন বিরাট মনের মানুষ। তার উচিত ছিল সর্বপ্রথম খোকার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বক্তব্য রাখা।’

সভায় আয়োজক সংঠনের সভাপতি আবু নাসের মুহাম্মাদ রহমাতুল্লাহর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে আরও বক্তব্য রাখেন- জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জেএসডি) সভাপতি আ স ম আব্দুর রব, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রমুখ।

ওডি/এএস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: মো: তাজবীর হুসাইন

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

ফোন: ০২-৯১১০৫৮৪

ই-মেইল: [email protected]

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড